ব্লগসমূহ

তাপস শর্মা এর ছবি

ভাষার কাছে ক্ষমা।

ভাষার জন্য, একুশকে নিয়ে কিছু লিখতে ইচ্ছে করে। কিন্তু কলম চলেনা। ভাষাকে নিয়ে কখনো কখনো নিরালায় বসে কাঁদতে ইচ্ছে করে, পারিনা। ভাষাকে নিয়ে 'খেঙরার নোংরামি' দেখতে দেখতে হাতে হাতিয়ার তুলে নিতে ইচ্ছে করে, পারিনা। আমার ভাষার বুকে কখনো
কখনো ধেয়ে আসে সব অরাজকতার ঢেউ, চুপচাপ আমি আত্মসমর্পণ করে দেই।

এর পরেও কি আমি বলতে পারি - আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি, আমি কি ভুলিতে পারি।

অজেয় বিক্রম শিবু এর ছবি

ভাবনার চাওয়া গুলো

একটা দুপুর, একটা বিকেল
প্রহর থেকে প্রহর
তোমায় নিয়ে ভাবছি আমি
ভাবছে আমার শহর।

করণিক আখতার এর ছবি

স্থিতি স্থাপক

কখনো আমি যদি আমার ওপর হাতেগোণা কয়েকটা সন্ত্রাসীর সুসংগঠিত আক্রমণকে আমার দোষের শাস্তি হিসেবে স্বীকার করতে না-চাই, তাহলে আমার জন্যে স্মরণীয়, কিছুকাল আগে সমাজের ঐ কয়েকটা কুলাঙ্গার যখন আমার নীরবতার প্র

তাপস শর্মা এর ছবি

পকেট ফুটো

গত বছরের সেপ্টেম্বর মাস। মেসি কলকাতার যুবভারতী মাঠে দাপাইতাছে। সারা দেশের মানুষ এবং মিডিয়াকূল মেসির হেসিতে(থুড়ি) হাসিতে ওতলা হইয়া ৩২ খান দাঁতের প্রদর্শন করতে ব্যস্ত। আর ওই সন্ধ্যায় আমি খেলার মজা উপভোগ করব ভাবছিলাম। কিন্তু আল্যেজ পোড়া কপাল আমার। চিফ এর ফোন! গন্তব্য মোহনপুর। জিজ্ঞাইলাম, ক্যান ? উত্তরে হেই বেডা যা কইল তাতে বুঝলাম আজকের মত আমার খেলা দেখা পটলে উঠছে। অতঃপর, দে ছুট। মনে মনে চিফ এবং সাংবাদিকতা প্রোফেশানের গুষ্ঠিশ্রাদ্ধ করতে করতে তাড়াতাড়ি সিটি বাসে উঠে পড়লাম।

মো: বাইজিদ ইসলাম নোবেল এর ছবি

" ঐশ্বর্য "

ও সখি তুমি শোনেছ কি...
 রাধা প্রেমে ভেসেছে কৃষ্ণচূড়া,
 লক্ষ্য-কোটি লালনের দুয়া'য়
প্রকৃতি তার ঐশ্বর্য মেলে ধরেছে
আবারো নাকি বসন্ত এসেছে !

অভিষেক মোহাম্মদ এর ছবি

এক ও দুই ০১

মধ্যরাত
শহুরে শৃগাল
হল দলছুট অ সহিষ্ণু-আত্মা
চার্চের ঘণ্টা থেমে গেছে
নিদ্রাহীন

নিদ্রাহীন
নিষ্প্রভ নিষ্প্রাণ
হামাগুড়ি দেয় চেতনা
নারীবাদীরা ষড়যন্ত্রে লিপ্ত তখন
সহচরী...

মো: বাইজিদ ইসলাম নোবেল এর ছবি

"সরষু পুজারী"

আমি ছোট্ট মৌ মাছি তুমি সরষু দানাদার
নিজের হালখাতায় আমি নিজেই দেনাদার
কাল-বৈশাখী ঝড়ে যাবে যা যাবার
তুমিই পাওনাদার মোর নব্য হালখাতার

পৃষ্ঠাসমূহ

Subscribe to RSS - blogs