বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩১
মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি
প্রকাশ : ০১ আগস্ট ২০২৩, ০২:৩৭ এএম
প্রিন্ট সংস্করণ
স্কুলশিক্ষার্থীকে মারধর

সিরাজদীখানে দুই গ্রামবাসীর সংঘর্ষ আহত ১০

সিরাজদীখানে দুই গ্রামবাসীর সংঘর্ষ আহত ১০

মুন্সীগঞ্জের সিরজাদীখানে এক স্কুলশিক্ষার্থী মারধর করাকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে দেশি অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে দুপক্ষের অন্তত ১০ জন আহত হয়েছে। গতকাল সোমবার সকাল থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত উপজেলার বালুচর বাজার এলাকায় খাসমহল ও মোল্লাকান্দি গ্রামবাসীর মধ্যে দফায় দফায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় টেঁটাবিদ্ধ মো. জমির আলীকে (৩০) ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। বাকিরা স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা নিয়েছে। এদিকে ঘটনার পর এলাকাজুড়ে থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। মোতায়েন করা হয়েছে অতিরিক্ত পুলিশ।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, রোববার খাসমহল বালুরচর উচ্চ বিদ্যালয়ের টিফিন সময়ে ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র ও স্থানীয় বাজার বণিক সমিতির সভাপতি আমির হোসেনের ছেলে আবিয়াত বন্ধুদের নিয়ে স্কুলের পাশের কালভার্টে যায়। সেখানে খাসমহল বালুরচর এলাকার আলি হোসেনের ছেলে আবিদুলের সঙ্গে বাগবিতণ্ডা হয়। এ সময় আবিয়াতকে গলা চেপে মারধর করে আবিদুল। পরে রাতে বিষয়টি জানতে পেরে আবিয়াতের বাবা আমির হোসেন খাসমহল এলাকায় গেলে স্থানীয় দুই গ্রামবাসীর মধ্যে উত্তেজনা তৈরি হয়। বিষয়টি নিয়ে মঙ্গলবার বিচার-সালিশের দায়িত্ব নেয় ইউপি চেয়ারম্যান। তবে সোমবার সকালে বালুরচর বাজারে স্থানীয় মোল্লাকান্দি ও খাসমহল দুই গ্রামবাসী মুখোমুখি অবস্থান নিলে একপর্যায়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এ সময় বাজার বণিক সমিতির সভাপতি আমির হোসেন, মোল্লাকান্দি এলাকার শহীদ বাউল ও প্রতিপক্ষ খাসমহল এলাকার রাসেল মেম্বার, বাজার বণিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক উজ্জ্বলের নেতৃত্বে দুই গ্রামের শত শত মানুষ দেশি অস্ত্র ও টেঁটা নিয়ে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ায় লিপ্ত হয়। এ সময় দফায় দফায় সংঘর্ষে রণক্ষেত্র পরিণত হয় বালুরচর বাজার এলাকা। দেশীয় অস্ত্রের আঘাতে দুই গ্রামের আহত হয় কমপক্ষে ১০ জন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে ঘণ্টাব্যাপী প্রচেষ্টায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (সিরাজদীখান সার্কেল) মোস্তাফিজুর রহমান রিফাত জানান, ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেপ্তার করতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। তবে এখনো কাউকে গ্রেপ্তার করা যায়নি।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

খুবি শিক্ষার্থী ধর্ষণ মামলায় একজনের যাবজ্জীবন

জানুয়ারি পর্যন্ত রাজস্ব আয় হয়েছে ১ লাখ ৯৭ হাজার কোটি টাকার বেশি : অর্থমন্ত্রী

রেললাইনে বিকল গাড়ি অপসারণে পুলিশ, প্রাণ বাঁচল ৪০ জনের

রামুর রাংকুট ও কক্সবাজার সৈকতে মুগ্ধ কূটনীতিকরা

দুঃসময়ে পাকিস্তানের পাশে দাঁড়াল চীন

ডেমোক্র্যাসি ইন্টারন্যাশনাল পুরস্কার পেলেন পাঁচ সাংবাদিক

প্রথমবারের মতো সংসদে বক্তব্য দিলেন সোলায়মান সেলিম  

আগুনের ভয়ে ট্রেন থেকে নামতেই পিষে দিল অন্য ট্রেন

আত্মঘাতী জঙ্গি গ্রেপ্তার করে সর্বোচ্চ পদক র‌্যাব-১৪ অধিনায়কের ঝুলিতে

আন্দোলনেই সরকারের পতন ঘটবে : রাশেদ প্রধান

১০

মায়ের স্বপ্নপূরণে হেলিকপ্টারে বাড়ি ফিরলেন প্রবাসী

১১

মিতু হত্যা মামলায় পরবর্তী সাক্ষ্যগ্রহণ ১৩ মার্চ

১২

পুনরুদ্ধারের পর শহর জ্বালিয়ে দিল মিয়ানমারের জান্তা

১৩

সাকিবদের হারিয়ে ফাইনালে তামিমের বরিশাল 

১৪

পবিত্র রমজানে যেসব ঐতিহাসিক ঘটনা ঘটেছে

১৫

ফিরোজায় খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ গয়েশ্বরের

১৬

রোজায় ডায়াবেটিস রোগীরা যেসব নিয়ম মানবেন

১৭

ঢাবিতে রাস্তা পারাপারে নিরাপত্তার দাবিতে স্মারকলিপি প্রদান

১৮

ছাত্র অধিকার পরিষদের সভাপতি বিন ইয়ামিন জামিনে মুক্ত

১৯

‘বিশৃঙ্খলা তৈরির উদ্দেশ্যেই গণতন্ত্র মঞ্চ পুলিশের ওপর চড়াও হয়েছে’

২০
X