কালবেলা প্রতিবেদক
প্রকাশ : ২৮ জুলাই ২০২৩, ১২:০০ এএম
প্রিন্ট সংস্করণ

রাজনৈতিক পরিস্থিতি অবনতির আশঙ্কা মার্কিন প্রতিবেদনে

রাজনৈতিক পরিস্থিতি অবনতির আশঙ্কা মার্কিন প্রতিবেদনে

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে ও পরে দেশের রাজনৈতিক ও নিরাপত্তা পরিস্থিতির অবনতি হতে পারে বলে আশঙ্কা করছে যুক্তরাষ্ট্র। বিনিয়োগ পরিবেশবিষয়ক এক প্রতিবেদনে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এই আশঙ্কার কথা জানিয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তর বিশ্বের ১৬০টিরও বেশি দেশের ব্যবসা-বাণিজ্য ও বিনিয়োগ পরিবেশ মূল্যায়ন করে ২০২৩ সালের ওই প্রতিবেদন তৈরি করেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ ঐতিহাসিকভাবে মধ্যপন্থি, ধর্মনিরপেক্ষ, শান্তিপূর্ণ ও স্থিতিশীল রাষ্ট্র; কিন্তু এ দেশটি ২০২৩ সালের শেষের দিকে বা ২০২৪ সালের প্রথম দিকে সাধারণ নির্বাচনের কাছাকাছি আসার সঙ্গে সঙ্গে রাজনৈতিক ও নিরাপত্তা পরিস্থিতি অস্থিতিশীল হয়ে উঠতে পারে।

সবশেষ সাধারণ নির্বাচন প্রসঙ্গে বলা হয়েছে, ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিত শেষ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নানা ধরনের অনিয়ম, সহিংসতা ও ভয়ভীতি প্রদর্শনের কারণে ব্যাহত হয়েছে। সরকার বিভিন্ন আইন ও নীতি প্রণয়নের মাধ্যমে বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোর পরিসর সংকুচিত করেছেন, সেইসঙ্গে বিচার বিভাগের স্বাধীনতা খর্ব এবং গণমাধ্যম ও সুশীল সমাজের স্বাধীনতা হুমকির মুখে ফেলা হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০১০ থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশ গড়ে ৬ শতাংশের বেশি হারে প্রবৃদ্ধি অর্জন করেছে। দেশের ভৌগোলিক অবস্থানের কৌশলগত গুরুত্ব ও বিপুল শ্রমশক্তির কারণে মার্কিন কোম্পানি

এখানে বিনিয়োগ করে থাকে। তবে কভিড-১৯ ও তারপর রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে দেশের প্রধান রপ্তানি পণ্য অর্থাৎ তৈরি পোশাকের চাহিদা কমেছে। সেইসঙ্গে যুদ্ধের কারণে জ্বালানি ও খাদ্যের দাম বেড়েছে। বিশ্ববাজারে পণ্যের মূল্যবৃদ্ধি ও আমদানি ব্যয় বৃদ্ধির কারণে ২০২২ সালে দেশে ব্যালান্স অব পেমেন্টের ঘাটতি বেড়েছে। ফলে দেশে বিদেশি মুদ্রার রিজার্ভ ২০২১ সালের আগস্টে ৪৮ বিলিয়ন ডলার থেকে ২০২৩ সালের জানুয়ারিতে ৩২ দশমিক ২ বিলিয়ন ডলারে নেমে আসে। বিদেশি মুদ্রার সংকটের মধ্যে গত বছর বাংলাদেশে ব্যাংক খাতে ঋণ কেলেঙ্কারি ঘটে। ২০২২ সালের সেপ্টেম্বরে দেশে খেলাপি ঋণের পরিমাণ দাঁড়ায় ১২ দশমিক ৮ বিলিয়ন ডলার, যার সিংহভাগের হদিস সরকারের কাছে নেই। এ পরিস্থিতিতে বাংলাদেশ আইএমএফের ঋণ পেয়েছে।

প্রতিবেদনে বাংলাদেশের বিনিয়োগ পরিবেশের ভালো দিক উল্লেখ করে বলা হয়েছে, গত এক দশকে বিনিয়োগের বাধা অপসারণের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ ধারাবাহিকভাবে উন্নতি করেছে, যেমন বিদ্যুৎ উৎপাদন বৃদ্ধি করে বিদ্যুতের নিশ্চয়তা বৃদ্ধি; কিন্তু অপর্যাপ্ত অবকাঠামো, অর্থায়নের সীমিত সুযোগ, আমলাতান্ত্রিক বিলম্ব, শ্রম আইনের শিথিল প্রয়োগ ও দুর্নীতির কারণে এখনো বিদেশি বিনিয়োগ ব্যাহত হচ্ছে। সরকার ব্যবসার পরিবেশ উন্নয়নে প্রয়াস পেয়েছে; কিন্তু বিদেশি বিনিয়োগ নীতির এখনো পূর্ণাঙ্গ বাস্তবায়ন হয়নি। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাংলাদেশের পুঁজিবাজার এখনো বিকশিত হচ্ছে। আর্থিক খাত ব্যাংকের ওপর অনেকাংশে নির্ভরশীল। অথচ ২০২২ সালে দেশের ব্যাংক খাতে বড় ধরনের কেলেঙ্কারি ঘটে গেছে। ১১টি ব্যাংকের সম্মিলিত মূলধন ঘাটতির পরিমাণ দাঁড়ায় ৩১০ কোটি ডলার। বিচারিক প্রক্রিয়া নিয়ে প্রতিবেদনে নেতিবাচক মন্তব্য করে বলা হয়েছে, দেশের বিচারিক কার্যক্রমের গতি কম এবং এ ক্ষেত্রে দুর্নীতির অভিযোগ আছে। সেইসঙ্গে বিকল্প বিরোধ নিষ্পত্তির ক্ষেত্রে নানা সীমাবদ্ধতা থাকায় চুক্তি বাস্তবায়ন ও ব্যবসায়িক বিরোধ নিষ্পত্তি ব্যাহত হয়।

শ্রম অধিকারের ক্ষেত্রে বলা হয়েছে, বুদ্ধিবৃত্তিক সম্পদ অধিকার ও পরিবেশবিষয়ক বেশ কিছু আধুনিক আইন করা হয়েছে; কিন্তু এসব আইনের অনেক কিছুই প্রয়োগ হয় না। তবে গত এক দশকে ভবন ও অগ্নিনিরাপত্তার ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য উন্নতি হলেও শ্রমিকদের স্বাধীনভাবে সংগঠন করা ও সম্মিলিতভাবে দরকষাকষির অধিকার সীমিত। এ ছাড়া বাংলাদেশ পরিবেশবিষয়ক বেশ কিছু আন্তর্জাতিক সমঝোতায় যোগ দিলেও বায়ুদূষণের দিক থেকে ঢাকা বিশ্বের অন্যতম দূষিত শহর।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

টিআইবির ফেলোশিপ পেলেন সাংবাদিক সজিবুর রহমান

রংপুরে এরিক ও বিদিশার ওপর হামলার অভিযোগ

বইমেলার সময় বাড়ল

রিহ্যাব নির্বাচনে ব্যবসায়ী ঐক্য পরিষদের নিরঙ্কুশ জয়

৬ মাস বিশ্ববাজারে পেট্রোল বিক্রি করবে না রাশিয়া

ফরিদপুরে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, আহত ২০

গাধা বেচবে চিড়িয়াখানা

রাজধানীতে ৬ স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা

হকিতে মেরিনার্স-আবাহনীর সহজ জয়

ভিনদেশের মোহ কেটেছে জামালের! 

১০

পানগাঁও আইসিটিকে মুখ থুবড়ে পড়তে দেওয়া যাবে না : নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী

১১

বিপিএম পদকে ভূষিত হলেন মো. শাহ আলম

১২

পুলিশের ৪০০ সদস্যকে পদক পরিয়ে দিলেন প্রধানমন্ত্রী

১৩

প্রথমবারের মতো ওয়াটার রকেট উৎক্ষেপণ ঢাবি আইটি সোসাইটির

১৪

ট্রাকচাপায় দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

১৫

খেজুর ভেজানো পানি খেয়ে বেঁচে আছে গাজার শিশুরা

১৬

টাইগারদের ব্যাটিং ও বোলিং কোচ হলেন যারা

১৭

বিপিএম পদকে ভূষিত হলেন মো. মাজহারুল ইসলাম

১৮

বিপিএম পদক পেলেন তওফিক মাহবুব চৌধুরী

১৯

ছিনতাই মামলায় ছাত্রলীগ নেতা কারাগারে

২০
X