ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশ : ০১ আগস্ট ২০২৩, ০২:৪২ এএম
প্রিন্ট সংস্করণ

আবাহনী থেকেও নির্বাসিত সাদেক

২০১৯ সালের নির্বাচনের পর হকি অঙ্গনও ছেড়ে গেছেন আব্দুস সাদেক। খেলাটির জীবন্ত কিংবদন্তি এখন ক্রীড়াঙ্গন থেকেই নির্বাসিত। এ নির্বাসনটা কিন্তু স্বেচ্ছা নির্বাসন নয়! বেঁধে দেওয়া শর্ত পূরণ না করায় আবাহনীর এ প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ক্লাবের পরিচালনা পর্ষদ থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। বাদ দেওয়া হয়েছে কিংবদন্তি ফুটবলার আশরাফউদ্দিন আহমেদ চুন্নুকেও। আবাহনীকে দর্শক হৃদয়ে স্থান করে দিতে যাদের অবদান, তাদের এভাবে ছুড়ে ফেলায় হতাশ ক্রীড়া সংগঠকরা। ‘সাদেক ভাই ক্রীড়াঙ্গনের কোথাও নেই—এটা আসলে কল্পনাও করতে পারি না। এ বিষয়ে নিজের অনুভূতিটাও ভাষায় প্রকাশ করার মতো নয়। আদর্শ সংগঠক, যোগ্য নেতা ও নিপাট ভদ্রলোক আব্দুস সাদেক। তার মতো মানুষকে ক্রীড়াঙ্গনে ধরে রাখতে না পারাটা আমাদের ব্যর্থতা। আব্দুস সাদেকের মতো মানুষ ও সংগঠকদের ধরে রাখতে পারছি না বলেই ক্রীড়াঙ্গনে আমাদের পতনের পথ চওড়া হচ্ছে’—কালবেলাকে বলছিলেন বর্ষীয়ান সংগঠক মোহাম্মদ ইউসুফ আলী। পরিচালনা পরিষদ ঢেলে সাজিয়ে তহবিল সংগ্রহে ক্লাবের পরিচালকদের চিঠি দেওয়া হয়েছিল। চিঠিতে উল্লেখ করা হয়— পরিচালক পদ টিকিয়ে রাখতে হলে কোটি টাকা প্রদান করতে হবে। চিঠি পাওয়ার পর জুড়ে দেওয়া শর্তে রাজি হননি আশরাফউদ্দিন আহমেদ চুন্নু। এমন চিঠি পেয়েছেন কি না—ঠিক মনে করতে পারলেন না আব্দুস সাদেক। তবে চিঠিতে যদি কোটি টাকা দিয়ে পরিচালক পদ রাখার কথা উল্লেখ থাকলেও তার কোনো অর্থ খুঁজে পাচ্ছেন না হকির এ জীবন্ত কিংবদন্তি। ‘ভালুকায় একটা স্কুল করেছি। দরিদ্র পরিবারের বাচ্চারা সেখানে লেখাপড়া করে। কোটি টাকা দিয়ে পরিচালক হওয়ার চেয়ে স্কুলে সেটা ব্যয় করা উত্তম বলেই আমার মনে হয়। তাতে দরিদ্র পরিবারের সদস্যরা উপকৃত হবে’—কালবেলাকে বলছিলেন আব্দুস সাদেক। অখণ্ড পাকিস্তান দলে খেলা সাবেক এ তারকা আরও বলেন, ‘আমি আসলে এমনি কোথাও খুব একটা যাই না। মাঝেমধ্যে স্কুলে যাই, বাচ্চাদের সময় দেই। তার বাইরে খুব বেশি বিষয় নিয়ে ভাবি না, ভাবকে চাই না।’

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

১৩০ টাকায় শুরু করা নার্সারির বাজারমূল্য ২০ লাখ

যশোরে ভাষা শহীদদের স্মরণে ৫২শ মোমবাতি প্রজ্বলন

শহীদ মিনারে সর্বস্তরের মানুষের ঢল

সাভারে খঞ্জনকাঠি খাল উদ্ধার করল উপজেলা প্রশাসন

শোক ও গৌরবের একুশে আজ

২১ ফেব্রুয়ারি : নামাজের সময়সূচি

ইতিহাসের এই দিনে যত ঘটনা

গ্রিজমানদের খালি হাতেই ফেরত পাঠাল ইন্টার মিলান  

একটি হুইল চেয়ারের আকুতি প্রতিবন্ধী সিয়ামের

ফেব্রুয়ারি উপলক্ষে চবিতে ফুলের দাম বেড়েছে ৩ গুণ

১০

সীমান্তে শেষবারের মতো সরুকজানের লাশ দেখল স্বজনরা

১১

‘উদ্যোক্তা তৈরির মাধ্যমে কর্মসংস্থান তৈরি করতে চাই’- প্রাণিসম্পদমন্ত্রী

১২

‘ডাল ভাত খেয়েও যুদ্ধ করতে পারি’

১৩

ভাষা শহীদদের প্রতি রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

১৪

কোম্পানি রিটার্নের মেয়াদ ২ মাস বাড়ানোর দাবি এফবিসিসিআইর

১৫

ন্যায্যতা সম্পর্কিত সংসদীয় ককাস / উন্নয়নমূলক পদক্ষেপে ন্যায়বিচার নিশ্চিত করার আহ্বান 

১৬

এমপিদের থোক বরাদ্দের আগে জবাবদিহিতা নিশ্চিতের দাবি টিআইবির

১৭

চাকরি গেল জাবির আলোচিত সেই শিক্ষকের

১৮

পঞ্চগড়ে বন্যহাতির আক্রমণে যুবক নিহত

১৯

অনলাইনে ভিডিও দেখে গামছা বিক্রেতার ছেলের মেডিকেলে চান্স

২০
X