কালবেলা প্রতিবেদক
প্রকাশ : ৩১ জুলাই ২০২৩, ০২:৩০ এএম
প্রিন্ট সংস্করণ

গাড়ি পুড়িয়ে বিএনপির ওপর দোষ চাপাচ্ছে সরকার: ফখরুল

গাড়ি পুড়িয়ে বিএনপির ওপর দোষ চাপাচ্ছে সরকার: ফখরুল

ঢাকার প্রবেশমুখ গত শনিবার বিএনপির অবস্থান কর্মসূচিতে পুলিশ ও সরকারি দলের হামলা, টিয়ার গ্যাসের শেল নিক্ষেপ ও গুলিবর্ষণের ঘটনার নিন্দা জানিয়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, নিজেরা গাড়ি পুড়িয়ে ও অপরাধ করে বিএনপির ওপর দোষ চাপানোর অপচেষ্টা করছে। তিনি বলেন, দেশ ও দেশের মানুষের কাঁধে সিন্দাবাদের দৈত্যের মতো চেপে বসা অবৈধ সরকারের পদত্যাগ, অনির্বাচিত জাতীয় সংসদ বাতিল ও নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবিতে বিএনপিসহ দেশের সব গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক দলের ডাকা শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি বানচাল করার জন্য সরকার তার আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও দলীয় সন্ত্রাসীদের অন্যায় ও বেআইনিভাবে জনগণের বিরুদ্ধে নামিয়ে তাণ্ডব চালিয়েছে। ওদের নির্মম আক্রোশে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় মাথায় গুরুতর রক্তক্ষরণ, দলের চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমান উল্লাহ আমানসহ অসংখ্য নেতাকর্মীকে আহত ও অগণিত নেতাকর্মীকে নির্বিচারে গ্রেপ্তারের ঘটনা প্রমাণ করে যে, ক্ষমতালোভী এই সরকারের হাতে দেশের কোনো নাগরিক নিরাপদ নয়। এই সরকার আজ শুধু ঘৃণা ও ধিক্কার পাওয়ার যোগ্য। শনিবার রাতেই গুলশানে দলের চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, আমরা জানতে পেরেছি যে, মাতুয়াইল ও শ্যামলীতে গাড়িতে আগুন দেওয়া ও ভাঙচুরের ঘটনার জন্য বিএনপিকে দায়ী করা হয়েছে। অথচ সোশ্যাল মিডিয়া ও পত্রিকায় সুস্পষ্ট প্রমাণসহ খবর বেরিয়েছে যে, পুলিশের সামনেই এসব ঘটনা ঘটিয়ে ভিডিও করে অপরাধীরা নির্বিঘ্নে চলে গেছে। কারা এটা করতে পারে, তা অনুমানের জন্য বেশি বুদ্ধিমান হওয়ার প্রয়োজন নেই। নিজেরা অপরাধ করে বিএনপির ওপর দোষ চাপানোর অপচেষ্টা থেকে বিরত থাকার জন্য আমরা সংশ্লিষ্টদের পরামর্শ দিচ্ছি।

নাটক করছে সরকার: গয়েশ্বর চন্দ্র রায় ও আমান উল্লাহ আমানকে আটকের পর উনাদের কাছে ফুল পাঠানো হচ্ছে, পুলিশের অফিসে নিয়ে মিষ্টি ও খাবার খাওয়ানো হচ্ছে—এ বিষয়টিকে আপনারা কীভাবে দেখছেন? সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মির্জা ফখরুল বলেন, যারা সমালোচক আছেন, হিউমার করে কথা বলেন তারা বলছেন যে, এটা নাকি ভিসা নীতির একটা পরিণতি। কারণ আসলে নিজেদের রক্ষা ও নিরাপরাধ প্রমাণ করার জন্য এ ধরনের নাটক তারা সাজিয়েছে। তিনি বলেন, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের দলের প্রতি অঙ্গীকার প্রমাণ করার প্রয়োজন রাখে না। তিনি আন্দোলন সংগ্রামের মধ্য দিয়ে রাজনীতি করে বড় হয়েছেন। আমান উল্লাহ আমানকে প্রমাণ করতে হবে না তিনি তার রাজনীতি ও দলের প্রতি দেশের মানুষের প্রতি কোনো ঘাটতি আছে। কারণ তিনি নব্বইয়ে গণঅভ্যুত্থানে অন্যতম নায়ক ছিলেন। এই বিষয়গুলো মানুষ নেয় না ভাই।

শনিবার ঢাকার প্রবেশমুখে অবস্থান কর্মসূচিতে পুলিশ ও সরকারি দলের হামলা, গ্রেপ্তারসহ একদফার পরবর্তী কর্মসূচি নিয়ে আলোচনা করতে বিএনপির স্থায়ী কমিটি বৈঠকে বসে। দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সভাপতিত্বে এই ভার্চুয়াল বৈঠকের পর বিএনপি মহাসচিব সংবাদ সম্মেলনে আসেন। এ সময় দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, কেন্দ্রীয় নেতা হাবিব-উন-নবী খান সোহেল, শামা ওবায়েদ, জহির উদ্দিন স্বপন, শহীদ উদ্দীন চৌধুরী এ্যানি, আলী নেওয়াজ মাহমুদ খৈয়ম, তাইফুল ইসলাম টিপু প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

মধ্যপ্রাচ্যে টিকে থাকতে ইসরায়েলকে যা করতে বললেন বাইডেন

রাজপথ দখলে আবারও মাঠে নামছে ইমরান খানের পিটিআই

আ.লীগ নেতার রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার

এক শর্তে জাহাজে হামলা বন্ধের বিষয়টি বিবেচনা করবে ইয়েমেন

গাজীপুরে মার্কেটে আগুন

শিক্ষার্থীকে শাসন করায় শিক্ষককে বেধড়ক মারধর

প্যারিসে একুশের কবিতা পাঠ ও আলোচনা সভা

রাশিয়ার ভয়ে পিছু হটল ন্যাটো

নসিমন-মোটরসাইকেল সংঘর্ষে নিহত ২

২৮ ফেব্রুয়ারি : কী ঘটেছিল ইতিহাসের এই দিনে

১০

বুধবার রাজধানীর যেসব এলাকায় যাবেন না

১১

২৮ ফেব্রুয়ারি : নামাজের সময়সূচি

১২

কর্ণফুলী নদীতে ৩ দিন বন্ধ থাকবে ফেরি চলাচল

১৩

মিয়ানমার সীমান্ত এখন শান্ত, ফের গোলাগুলি শুরুর আশঙ্কায় আতঙ্ক

১৪

বোনাস দাবিতে সার কারখানা শ্রমিকদের মানববন্ধন

১৫

সিলেটে পরিবহন শ্রমিকদের অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট শুরু আজ

১৬

হাসপাতালে রেখে তরুণ-তরুণী উধাও, ছোটমণি নিবাসে ঠাঁই হলো নবজাতকটির

১৭

চট্টগ্রামে শাস্তির মুখে ৮ ল্যাব-হাসপাতাল

১৮

এবার বাড়ছে সব ধরনের ছোলা ও ডালের দাম

১৯

বিধবা মেয়েকে নিয়ে ঢাকায় যাওয়ার পথে চলন্ত ট্রেনে বাবার মৃত্যু

২০
X