মাহমুদুল হাসান
প্রকাশ : ২৮ জুলাই ২০২৩, ১২:০০ এএম
প্রিন্ট সংস্করণ

হেপাটাইটিস রোগীরা বৈষম্যের শিকার

বিশ্ব হেপাটাইটিস দিবস আজ
হেপাটাইটিস রোগীরা বৈষম্যের শিকার

বিদেশ গমনেচ্ছু ভোলার রবিউল ইসলাম। সম্প্রতি মেডিকেল টেস্টে হেপাটাইটিস-বি ভাইরাস শনাক্তের পর বিদেশ যাত্রার স্বপ্ন ভঙ্গ হয়েছে। রিক্রুটিং এজেন্সি জানিয়েছে, রোগটি শনাক্তের কারণে তিনি আপাতত বিদেশ যেতে পারবেন না। এতে মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছেন রবিউল। এদিকে, রাজধানীর নয়াপল্টনে একটি ছাপাখানায় কাজ করেন শরীয়তপুরের যুবক শফিকুল ইসলাম। পরিবারের সুখের আশায় মধ্যপ্রাচ্য যাওয়ার চেষ্টা করছেন। প্রস্তুতি হিসেবে মেডিকেল টেস্ট করান। সেখানে হেপাটাইটিস-বি শনাক্ত হওয়ায় তার বিদেশ যাত্রাও অনিশ্চয়তার মুখে। শুধু বিদেশের চাকরিতে নয়, দেশেও হেপাটাইটিস রোগীরা নানাভাবে নিগৃহের শিকার। এমনকি কর্মস্থলে রোগটি সম্পর্কে তথ্য ছড়িয়ে পড়লে চাকরিচ্যুতের ঘটনাও আছে।

সাভারের হেমায়েতপুর এলাকায় গার্মেন্টে কাজ করেন ভাকুর্তার রাহেলা। দুই সন্তানের জননী এই নারী হেপাটাইটিসে আক্রান্ত। চাকরি হারানোর ভয়ে রোগের তথ্য গোপন করেই কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। কালবেলাকে রাহেলা বলেন, রোগটি সম্পর্কে জানলে তার চাকরি যাবে। তাই তিনি কাউকে জানাননি। অথচ হেপাটাইটিস ছোঁয়াচে রোগ নয়। শুধু অনিরাপদ রক্ত সঞ্চালন, সুঁই ও সিরিঞ্জ ব্যবহার এবং অনিরাপদ দৈহিক সম্পর্কের মাধ্যমে হেপাটাইটিস ছড়ায়। এ ছাড়া নাক-কান ফুটো, সংক্রমিত ব্যক্তির টুথব্রাশ ও শেভিং যন্ত্রপাতি ব্যবহারের মাধ্যমেও রোগটি ছড়ানোর ঝুঁকি থাকে। এমন পরিস্থিতিতে হেপাটাইটিসের বিরুদ্ধে ঘুরে দাঁড়াতে উই আর নট ওয়েটিং, অর্থাৎ আমরা আর অপেক্ষা করতে পারি না—এমন প্রতিপাদ্য নিয়ে আজ পালিত হবে বিশ্ব হেপাটাইটিস দিবস। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এবং ওয়ার্ল্ড হেপাটাইটিস অ্যালায়েন্সের আহ্বানে বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও নানা কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে। দিবসটি ঘিরে সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান সচেতনতামূলক শোভাযাত্রা, আলোচনা সভা, সেমিনার ও স্ক্রিনিং ক্যাম্প স্থাপন করার উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) হেপাটাইটিসবিষয়ক সচেতনতামূলক একটি সেমিনারের আয়োজন করা হয়েছে। ন্যাশনাল লিভার ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশ রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে একটি সেমিনারের আয়োজন করেছে। এ ছাড়া বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান নানা কর্মসূচিতে দিবসটি উদযাপনের উদ্যোগ নিয়েছে।

বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা বলেন, হেপাটাইটিস রোগী মানেই কেউ

কর্ম-অক্ষম নয়, বিষয়টি জোর দিয়ে বলতে হবে। দেশে ও বিদেশে চাকরির ক্ষেত্রে হেপাটাইটিস পরীক্ষার বাধ্যবাধকতা তুলে দিতে হবে। সচেতনতার পাশাপাশি চিকিৎসার জন্য হেপাটোলজিস্টদের সংখ্যা বাড়াতে হবে। অন্তঃসত্ত্বা নারী ও জন্মের ২৪ ঘণ্টার মধ্যে নবজাতকের টিকা নিশ্চিত করতে হবে। সর্বোপরি ২০৩০ সালের মধ্যে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জনে হেপাটাইটিস রোধে জনগণের দোরগোড়ায় চিকিৎসার ব্যবস্থা পৌঁছাতে হবে।

উল্লেখ্য, ২০১৭ সালে ওয়ার্ল্ড হেপাটাইটিস অ্যালায়েন্স সিভিল সোসাইটি দেশের ১ হাজার ৩৯ জনের ওপর গবেষণা চালায়। সেখানে দেখা গেছে, চাকরি নিয়ে বৈষম্যের শিকার প্রায় ২৮ শতাংশ, সামাজিক বৈষম্যের শিকার প্রায় ১৫, চিকিৎসা নিতে বাধার সম্মুখীন প্রায় ৯, পরিবারে ৭ এবং শিক্ষাক্ষেত্রে ৪ শতাংশ মানুষ বৈষম্যের শিকার। বৈষম্যের ভয়ে অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে প্রায় ৪৬ শতাংশ চাকরি ক্ষেত্রে, ৭৬ শতাংশ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এবং ৭ শতাংশ পরিবারে তাদের রোগের কথা গোপন রেখেছেন।

বিএসএমএমইউর লিভার বিভাগের চিকিৎসক ও হেপাটোলজি সোসাইটির আন্তর্জাতিকবিষয়ক সম্পাদক মো. সাইফুল ইসলাম এলিন সম্প্রতি এক সভায় জানান, দেশে হেপাটাইটিস বি ভাইরাসে আক্রান্ত পুরুষের সংখ্যা ৫৭ লাখ, নারী ২৮ লাখ ও শিশু ৪ লাখ। চাকরিপ্রার্থী ১৫ থেকে ৩০ বছর বয়সের নাগরিকদের মধ্যে আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ২৫ লাখ।

বিএসএমএমইউর সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক মো. নজরুল ইসলাম বলেন, হেপাটাইটিস নির্মূল নয়, প্রতিরোধ সম্ভব। আক্রান্ত মা-বাবা থেকে হেপাটাইটিস যাতে নবজাতকের শরীরে ছড়িয়ে না পড়ে সেজন্য প্রসূতিদের পরীক্ষা করে টিকা দিতে হবে। নবজাতককে জন্মের চব্বিশ ঘণ্টার মধ্যে অ্যাডভান্স ভ্যাকসিনেশন স্ট্র্যাটেজি ফলো করতে টিকা দিয়ে তার সুরক্ষা নিশ্চিত করতে হবে। এক্ষেত্রে বড় সহায়ক হবে প্রাতিষ্ঠানিক সন্তান জন্মদান। কারণ বাসাবাড়িতে সন্তান জন্ম নিলে শিশুর হেপাটাইটিস পরীক্ষা ও ভ্যাকসিন দেওয়া হয় না। দেশের সব মানুষকে পরীক্ষা করে টিকা দিতে পারলেই হেপাটাইটিসের ভয়াবহতা থেকে রক্ষা পাওয়া সম্ভব।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

টিআইবির ফেলোশিপ পেলেন সাংবাদিক সজিবুর রহমান

রংপুরে এরিক ও বিদিশার ওপর হামলার অভিযোগ

বইমেলার সময় বাড়ল

রিহ্যাব নির্বাচনে ব্যবসায়ী ঐক্য পরিষদের নিরঙ্কুশ জয়

৬ মাস বিশ্ববাজারে পেট্রোল বিক্রি করবে না রাশিয়া

ফরিদপুরে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, আহত ২০

গাধা বেচবে চিড়িয়াখানা

রাজধানীতে ৬ স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা

হকিতে মেরিনার্স-আবাহনীর সহজ জয়

ভিনদেশের মোহ কেটেছে জামালের! 

১০

পানগাঁও আইসিটিকে মুখ থুবড়ে পড়তে দেওয়া যাবে না : নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী

১১

বিপিএম পদকে ভূষিত হলেন মো. শাহ আলম

১২

পুলিশের ৪০০ সদস্যকে পদক পরিয়ে দিলেন প্রধানমন্ত্রী

১৩

প্রথমবারের মতো ওয়াটার রকেট উৎক্ষেপণ ঢাবি আইটি সোসাইটির

১৪

ট্রাকচাপায় দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

১৫

খেজুর ভেজানো পানি খেয়ে বেঁচে আছে গাজার শিশুরা

১৬

টাইগারদের ব্যাটিং ও বোলিং কোচ হলেন যারা

১৭

বিপিএম পদকে ভূষিত হলেন মো. মাজহারুল ইসলাম

১৮

বিপিএম পদক পেলেন তওফিক মাহবুব চৌধুরী

১৯

ছিনতাই মামলায় ছাত্রলীগ নেতা কারাগারে

২০
X