জাবি প্রতিনিধি
প্রকাশ : ২৯ জুলাই ২০২৩, ১২:০০ এএম
প্রিন্ট সংস্করণ

বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসে দলীয় কর্মসূচিতে জাবি ছাত্রলীগ

ছাত্রলীগ, যুবলীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগ আয়োজিত শান্তি সমাবেশে যোগদানের উদ্দেশ্যে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগকে ৫টি বাস বরাদ্দ দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এ ছাড়া প্রথমবর্ষের শিক্ষার্থীদের জোর করে সমাবেশে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগও উঠেছে।

গতকাল শুক্রবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছবি চত্বর সংলগ্ন সড়ক থেকে সমাবেশের উদ্দেশ্যে যাত্রা করে শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি আকতারুজ্জামান সোহেল এবং সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান লিটনের নেতৃত্বে ৫ শতাধিক নেতাকর্মী সমাবেশের উদ্দেশ্যে রওনা দেন।

পরিবহন অফিস সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার সকালে পরিবহন অফিসে বাস চেয়ে আবেদন করেন হাবিবুর রহমান লিটন। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ৫টি দ্বিতল বাস বরাদ্দ দেয় কর্তৃপক্ষ। রাজনৈতিক কর্মসূচিতে যাওয়ার উদ্দেশ্যে বাস বরাদ্দ দেওয়া বৈধ কি না, এমন প্রশ্নের জবাবে পরিবহন অফিসের পরিচালক

আওলাদ হোসেন বলেন, বাস বরাদ্দের আবেদন ফর্মে প্রক্টর আ স ম ফিরোজ-উল হাসানের সুপারিশ ছিল। তাই বরাদ্দ না দিয়ে পারি না।

সুপারিশের বিষয়ে প্রক্টর আ স ম ফিরোজ-উল হাসান বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের যে কোনো সংগঠন আবেদন করলেই সুপারিশ করি। বাস বরাদ্দ দেওয়ার দায়িত্ব পরিবহন অফিসের। তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের বাস নিয়ে রাজনৈতিক কর্মসূচিতে যেতে পারবে কি না—এমন নিয়মের বিষয়ে আমি পরিষ্কার জানি না।

এদিকে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আ ফ ম কামালউদ্দীন হলের গণরুমে থাকা বেশ কয়েকজন প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী বলেন, বুধবার রাতে ৫০তম ব্যাচের বড় ভাইয়েরা আমাদের নিয়ে বসেছিলেন। সমাবেশে না গেলে হলে সিট পাওয়া যাবে না, বলে দিয়েছেন তারা। তাই কর্মসূচিতে না যেয়ে তো উপায় নেই আমাদের।

তবে জোরপূর্বক কর্মসূচিতে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ অস্বীকার করে শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি আকতারুজ্জামান সোহেল বলেন, এ ধরনের অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা। যেসব শিক্ষার্থী মনেপ্রাণে ছাত্রলীগকে ভালোবাসে, তারা স্বেচ্ছায় কর্মসূচিতে যাচ্ছে। বাস বরাদ্দ পাওয়ার বিষয়ে তিনি বলেন, প্রক্টর অফিস ও পরিবহন অফিসের অনুমোদনে ৫টি বাস বরাদ্দ পেয়েছি। তবে রাজনৈতিক কর্মসূচিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের বাস নেওয়া যাবে কি না, এমন নিয়মের বিষয়ে আমারও জানা নেই।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

বঙ্গবন্ধুর দুঃসময়ের বন্ধু, কিংবদন্তি রাজনীতিক শওকত আলী

১৩০ টাকায় শুরু করা নার্সারির বাজারমূল্য ২০ লাখ

যশোরে ভাষা শহীদদের স্মরণে ৫২শ মোমবাতি প্রজ্বলন

শহীদ মিনারে সর্বস্তরের মানুষের ঢল

সাভারে খঞ্জনকাঠি খাল উদ্ধার করল উপজেলা প্রশাসন

শোক ও গৌরবের একুশে আজ

২১ ফেব্রুয়ারি : নামাজের সময়সূচি

ইতিহাসের এই দিনে যত ঘটনা

গ্রিজমানদের খালি হাতেই ফেরত পাঠাল ইন্টার মিলান  

একটি হুইল চেয়ারের আকুতি প্রতিবন্ধী সিয়ামের

১০

ফেব্রুয়ারি উপলক্ষে চবিতে ফুলের দাম বেড়েছে ৩ গুণ

১১

সীমান্তে শেষবারের মতো সরুকজানের লাশ দেখল স্বজনরা

১২

‘উদ্যোক্তা তৈরির মাধ্যমে কর্মসংস্থান তৈরি করতে চাই’- প্রাণিসম্পদমন্ত্রী

১৩

সৌদি বসে ঢাকায় ডাকাত দল চালায় ইলিয়াস

১৪

‘ডাল ভাত খেয়েও যুদ্ধ করতে পারি’

১৫

ভাষা শহীদদের প্রতি রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

১৬

কোম্পানি রিটার্নের মেয়াদ ২ মাস বাড়ানোর দাবি এফবিসিসিআইর

১৭

ন্যায্যতা সম্পর্কিত সংসদীয় ককাস / উন্নয়নমূলক পদক্ষেপে ন্যায়বিচার নিশ্চিত করার আহ্বান 

১৮

এমপিদের থোক বরাদ্দের আগে জবাবদিহিতা নিশ্চিতের দাবি টিআইবির

১৯

চাকরি গেল জাবির আলোচিত সেই শিক্ষকের

২০
X