কালবেলা প্রতিবেদক
২৩ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ০৩:২০ এএম
প্রিন্ট সংস্করণ

একদফার আন্দোলন তীব্রতর হবে

উত্তরায় ফখরুল

সরকারের পদত্যাগ ও নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতে চলমান একদফা আন্দোলনকে তীব্র থেকে আরও তীব্রতর করার ঘোষণা দিয়েছেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘আমাদের হারাবার কিছু নেই। আমরা পথে নেমেছি, আমরা রাস্তায় নেমে গেছি। আমরা পদযাত্রা করছি, রোডমার্চ করছি, সমাবেশ করছি, আমরা জনগণকে সঙ্গে নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছি। এই আন্দোলন এখন আরও তীব্র থেকে তীব্রতর করতে হবে।’

গতকাল শুক্রবার বিকেলে রাজধানীতে এক সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন। একদফা দাবিতে ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির উদ্যোগে উত্তরার আবদুল্লাহপুর পলওয়ে মার্কেট সংলগ্ন মাঠে এই সমাবেশ হয়।

মির্জা ফখরুল বলেন, আমাদের পরিষ্কার কথা, শেখ হাসিনাকে অবশ্যই পদত্যাগ করতে হবে। নির্দলীয়-নিরপেক্ষ সরকারের কাছে ক্ষমতা দিতে হবে। যদি কথা শোনো ভালো, অন্যথায় ফয়সালা হবে রাজপথে। সরকারকে বলব, এখনো সময় আছে, পদত্যাগ করুন। দেশের মানুষকে রেহাই দেন। অনেক হত্যা-গুম-খুন হয়েছে। এগুলো আর দেখতে চাই না। নির্দলীয় তত্ত্বাবধায়ক সরকারের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর করুন। নির্বাচনে ইউরোপীয় ইউনিয়নের পর্যবেক্ষক না পাঠানোর বিষয়ে নির্বাচন কমিশন সচিবের দেওয়া বক্তব্যকে ‘মিথ্যাচার’ উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘তাদের মিথ্যা বলতে এতটুকু বাধে না।’

ঢাকা উত্তর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক অধ্যাপক ডা. ফরহাদ হালিম ডোনারের সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব আমিনুল হকের সঞ্চালনায় সমাবেশে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল আউয়াল মিন্টু, কেন্দ্রীয় নেতা আতাউর রহমান ঢালী, শাহজাদা মিয়া, শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস, ফজলুল হক মিলন, কামরুজ্জামান রতন, রকিবুল ইসলাম বকুল, সাঈদ সোহরাব, তাবিথ আউয়াল, যুবদলের মামুন হাসান, কৃষক দলের হাসান জাফির তুহিন, তাঁতী দলের আবুল কালাম আজাদ প্রমুখ বক্তব্য দেন।

‘ক্ষমতা তছনছ হয়ে যাবে’ : সরকারের উদ্দেশে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস বলেছেন, ১৫ বছরে ঢাকাসহ সারা দেশে লাখ লাখ নেতাকর্মীকে জেলে নিয়েছেন, অবিচার-অনাচার করেছেন। অনেক কষ্ট সহ্য করেছি। এই জুলুম আর সইতে পারব না। আজ জুলুমবাজদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়েছি, এই অত্যাচারী শাসকদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়েছি। সরকার পতনের লক্ষ্যে আজ সারা দেশ ফুঁসে উঠেছে, সভা-সমাবেশ চলছে। আজকেও যাত্রাবাড়ী ও উত্তরায় জনতার ঝড় উঠেছে। এই ঝড় যদি শহরের দিকে, সচিবালয়ের দিকে রওনা দেয়—তাহলে এই সরকার টিকে থাকতে পারবে না। নেতাকর্মীদের বলব, আপনারা প্রস্তুতি নেন। এমন আন্দোলন কর্মসূচি আসবে, যাতে এই অবৈধ সরকারের ক্ষমতা তছনছ হয়ে যাবে। অত্যাচারী লুটেরা সরকারকে আমরা দেখতে চাই না। বিকেলে যাত্রাবাড়ীর শহীদ ফারুক রোডে সরকার পতনের একদফা দাবিতে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপি আয়োজিত এক বিশাল সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আব্বাস এসব কথা বলেন।

সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে দলটির স্থায়ী কমিটির আরেক সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান বলেন, জনগণের ইচ্ছার কাছে নতি স্বীকার করলে সরকারের কোনো লজ্জা নেই। তাই সরকারকে বলব, অবিলম্বে গণদাবি মেনে পদত্যাগ করুন, নির্দলীয় তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন দিন।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির আহ্বায়ক আব্দুস সালামের সভাপতিত্বে এবং ভারপ্রাপ্ত সদস্য সচিব লিটন মাহমুদের সঞ্চালনায় এতে বিএনপির আবুল খায়ের ভূঁইয়া, খায়রুল কবির খোকন, আজিজুল বারী হেলাল, যুবদলের সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, ছাত্রদলের সাইফ মাহমুদ জুয়েল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

ফ্রান্সকে হারিয়ে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন জার্মানি

যে কারণে যুদ্ধবিরতির আলোচনা শেষ করে দিল ইসরায়েল

‘নতুন শিক্ষাক্রম প্রণয়নের নামে প্রজন্ম ধ্বংসের নীলনকশা করেছে সরকার’

ভূমিকম্প আতঙ্কে দোতলা থেকে লাফ দিয়ে দুই শিক্ষার্থী আহত

জলবায়ু অভিঘাত মোকাবিলায় সর্বজনীন আন্তর্জাতিক আর্থিক ব্যবস্থার আহ্বান তথ্যমন্ত্রীর

ইউএনওর বিরুদ্ধে তথ্য ফাঁসের অভিযোগ স্বতন্ত্র প্রার্থীর 

যুক্তরাষ্ট্রকে সতর্ক করল ইরাক

অলিম্পিকে ৪ ডিসিপ্লিনে আবেদন করবে বাংলাদেশ

সমমনা জোট থেকে মাইনরিটি জনতা পার্টিকে বহিষ্কার

আ.লীগের মনোনয়ন না পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হলেন যারা

১০

মোতালেবের সমর্থকদের হুমকি-ধমকি, দুই থানায় জিডি

১১

নিয়োগ পরীক্ষায় ইলেকট্রনিক ডিভাইস ব্যবহার করে নকল, কারাগারে ২

১২

ডেঙ্গুতে মৃত্যু কমল, হাসপাতালে ভর্তি ৬০৫

১৩

ঢাকায় সমাবেশের ঘোষণা আওয়ামী লীগের 

১৪

অবরোধ সফলে রিজভীর নেতৃত্বে রাজধানীতে মশাল মিছিল

১৫

পুলিশ পরিচয়ে পুলিশের সঙ্গেই প্রতারণা, গ্রেপ্তার ১

১৬

লেভানদোভস্কির সঙ্গে ইচ্ছা করেই বিরোধে জড়ান মেসি

১৭

ইসলামী আন্দোলনের কর্মসূচি ঘোষণা

১৮

অপরাজনীতি করে দেশকে ব্যর্থ করতে চাইলে রুখে দেওয়া হবে : নাছিম

১৯

খুলে নেওয়া হলো রেলপথের নাট-বল্টু, বিলম্বে ছাড়ল ‘কক্সবাজার এক্সপ্রেস’

২০
X