কালবেলা প্রতিবেদক
প্রকাশ : ০৯ অক্টোবর ২০২৩, ০২:২৯ এএম
প্রিন্ট সংস্করণ
সম্পাদকীয়

সম্ভাবনার নতুন দ্বার

সম্ভাবনার নতুন দ্বার

আন্তর্জাতিক যোগাযোগ ও ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসার ঘটাতে বিমানপথের গুরুত্ব কতখানি—তা পরিমাপ করা সহজসাধ্য বিষয় নয়। কারণ বিশ্বের একপ্রান্ত থেকে আরেকপ্রান্তে মানুষের যাতায়াত এবং ব্যবসা-বাণিজ্যকে সহজতর করে তুলেছে এ আকাশপথ। আর এ পথে আন্তর্জাতিকভাবে যেসব দেশে বিমান চলাচলের হাব রয়েছে, বিভিন্ন দিক দিয়ে সেসব দেশ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এ দৃষ্টিতে হযরত শাহজালাল বা কক্সবাজার আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর আন্তর্জাতিক বিমান চলাচলের হাব হবে বলে দেশের প্রধানমন্ত্রীর যে অঙ্গীকার, তা নিঃসন্দেহে খুবই তাৎপর্যপূর্ণ ও আশাব্যঞ্জক।

শনিবার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের তৃতীয় টার্মিনালের সফট ওপেনিং অনুষ্ঠানের ফলক উন্মোচন শেষে তিনি এ আশা ব্যক্ত করেন। ভৌগোলিক অবস্থানের কারণে এটা করা উচিত এবং সরকার সেভাবেই এটি তৈরি করতে চাচ্ছে বলেও জানান। তিনি বলেন, পৃথিবীতে বিভিন্ন সময় কিছু পরিবর্তন হয়েছে। এক সময় হংকং ছিল বিমান পরিবহনের আন্তর্জাতিক হাব। এরপর হলো সিঙ্গাপুর, তারপর থাইল্যান্ড, এখন দুবাই। আমি বিশ্বাস করি, পূর্ব ও পশ্চিমের আকাশপথের মধ্যবর্তী হওয়ায় এক সময় আমাদের কক্সবাজার বা হযরত শাহজালাল হবে আন্তর্জাতিক বিমান পরিবহন হাব। রিফুয়েলিংয়ের জন্য এখানে সবাই আসবে। কক্সবাজারে নামলে আমাদের দীর্ঘ সি বিচের সৌন্দর্য উপভোগ করতে পারবে। সেভাবেই আমরা বাংলাদেশকে গড়ে তুলতে চাই। সরকারপ্রধান বলেন, মানুষের যোগাযোগ ও ব্যবসা-বাণিজ্যে উন্নয়নের জন্য বিমানপথ অপরিহার্য। বিদেশের সঙ্গে আমাদের যোগাযোগের মূল পথ ও বাহন হলো বিমান তথা আকাশপথ। কাজেই আমরা সেটিকে গুরুত্ব দিয়ে কাজ করছি। নতুন নির্মিত টার্মিনালটির যাত্রী ক্যাপাসিটি হবে দেড় কোটির ওপর। তৃতীয় টার্মিনাল পুরোপুরি চালু হলে বছরে প্রায় আড়াই কোটি যাত্রীকে সেবা দেওয়া সম্ভব হবে। টার্মিনালটির ফ্লোর আয়তন ২ লাখ ৩০ হাজার বর্গমিটার। এটির মোট বোর্ডিং ব্রিজ থাকবে ২৬টি। একই সঙ্গে নতুন টার্মিনালে ৩৭টি উড়োজাহাজ পার্কিং করা যাবে। তৃতীয় টার্মিনালে লাগেজ কনভেয়ার বেল্ট থাকবে ১৬টি। এতে আরও যুক্ত হয়েছে চেক-ইন কাউন্টার ১১৫টি। এ টার্মিনালকে এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে ও মেট্রোরেলের একটি রুটের সঙ্গে সম্পৃক্ত করা হয়েছে। ফ্রান্সের সহায়তায় আধুনিক প্রযুক্তির রাডারসহ অন্যান্য প্রয়োজনীয় আকাশ নিরাপত্তা ব্যবস্থা সংযোজন করা হয়েছে এ টার্মিনালে। নতুন এ টার্মিনালের মাধ্যমেই মূলত বাংলাদেশ সনাতনী ধারা বিমানবন্দর পরিষেবা থেকে বেরিয়ে আধুনিক বিমানবন্দর যুগে প্রবেশ করতে যাচ্ছে। তৃতীয় টার্মিনালটি উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে এটি ব্যবহার করে বিমান চলাচল শুরু হলেও, এর পুরোপুরি ব্যবহার সম্ভব হবে আগামী বছরের শেষদিকে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, নতুন ও আধুনিক এ টার্মিনালের উদ্দেশ্য সফল করাই হবে গুরুত্বপূর্ণ চ্যালেঞ্জ। এটির কার্যকারিতা নির্ভর করবে যে ২৫-৩০টি সংস্থা এয়ারপোর্টে কাজ করে, তাদের দক্ষতা ও সফল সমন্বয়ের ওপর। এ ছাড়া কাস্টমস, ইমিগ্রেশন, সিকিউরিটি ও সিভিল অ্যাভিয়েশন—যাত্রী অধিকার ক্ষুণ্ন না করে প্রয়োজনীয় সব পরিষেবা দ্রুত দিতে পারে কি না, সেটাও গুরুত্বপূর্ণ। যাত্রী অধিকার ক্ষুণ্ন হওয়ার যে অতীত অভিযোগ রয়েছে, সেই চর্চা থেকে বেরিয়ে আসতে হবে। তবেই এ বিমানবন্দর ব্যবহার করতে বড় বড় এয়ারলাইনস উৎসাহী হবে এবং এটির প্রত্যাশিত সুফল মিলবে।

আমরা মনে করি, বর্তমান সরকারের এক যুগেরও অধিক সময়ে দেশের অবকাঠামো উন্নয়নে যে অভূতপূর্ব উন্নয়ন সাধন হয়েছে, শাহজালাল বিমানবন্দরের এ তৃতীয় টার্মিনাল সেই অগ্রযাত্রায় আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ সংযোজন। শুধু প্রধানমন্ত্রী নয়, দেশবাসীরও নিশ্চয়ই এমন প্রত্যাশা যে, ঢাকা ও কক্সবাজারের দুটি বিমানবন্দরের মাধ্যমে ভবিষ্যতে এ অঞ্চল অ্যাভিয়েশন হাবে পরিণত হবে। এতে সর্বোপরি দেশের অর্থনৈতিক অগ্রযাত্রা আরও গতি পাবে, এ নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

নারায়ণগঞ্জে লাইসেন্সবিহীন হাসপাতালের ছড়াছড়ি

পিলখানায় ৭২ বিজিবি সদস্যকে পদক পরিয়ে দিলেন প্রধানমন্ত্রী

রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার ২৭

ব্র্যাকে চাকরির সুযোগ, বয়সসীমায় ছাড়

সিঙ্গাপুর গেলেন মির্জা ফখরুল

সাংবাদিক ও কবি তালাত মাহমুদ মারা গেছেন

যুক্তরাজ্যের বিরুদ্ধে আবারও ইয়েমেনিদের হুঁশিয়ারি

বাড়ির আঙিনায় ড্রেনের পানি, দুর্গন্ধ ও মশায় অতিষ্ঠ

পাহাড়ি হলুদের দাম দ্বিগুণেরও বেশি, তবু কেন এত কদর

রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্তর্জাতিক ধ্রুপদী সংগীত সম্মেলন শুরু

১০

১৩ জেলায় তীব্র ঝড় ও বজ্রসহ বৃষ্টির আশঙ্কা

১১

ত্রিপুরা ভাষায় পাঠদান না থাকায় চট্টগ্রামে ঝরে পড়ছে শিক্ষার্থী

১২

লালমনিরহাট-বুড়িমারী মহাসড়কে বেড়েছে দুর্ঘটনা, ১৭ দিনে ঝরল ৭ প্রাণ

১৩

ওডেশায় রুশ ড্রোন হামলায় নিহত বেড়ে ১০

১৪

চার বিভাগে বজ্রসহ বৃষ্টির পূর্বাভাস

১৫

৪ মার্চ : নামাজের সময়সূচি

১৬

সোমবার রাজধানীর যেসব এলাকায় যাবেন না

১৭

আজ ১৬ ঘণ্টা গ্যাস থাকবে না যেসব এলাকায়

১৮

নিয়মিত খেজুর খেলেই মিলবে উপকার

১৯

খাবার অযোগ্য চাল সরবরাহের অভিযোগ

২০
X