বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১
রংপুর ব্যুরো
প্রকাশ : ১১ মার্চ ২০২৪, ০৭:১৭ পিএম
অনলাইন সংস্করণ

রংপুরে নিত্যপণ্যের বাজার চড়া, বিপাকে ক্রেতারা

পুরোনো ছবি।
পুরোনো ছবি।

রংপুরে রমজান শুরুর আগেই হইহই করে বাড়ল প্রায় সব পণ্যের দাম। ইচ্ছেমতো দাম বাড়িয়ে দিচ্ছে একটি অসাধু চক্র। পণ্যের দামে এমন আগুন লাগায় চরম বিপাকে পড়েছেন ক্রেতারা। নিয়মিত বাজার মনিটরিং না করায় এমন দাম বাড়ছে বলেও অভিযোগ তাদের।

সোমবার (১১ মার্চ) রংপুর নগরীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা যায় নিত্যপ্রয়োজনীয় প্রায় সব পণ্যের দাম চড়া।

সবজির বাজারে গিয়ে দেখা যায়, চিকন বেগুন ৭০ টাকা এবং মাঝারি ও গোল বেগুন ৮০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। এ ছাড়া টমেটো ৩০-৪০, গাজর ২৫-৩০ টাকা, পেঁপে ২৫-৩০ টাকা, করলা ১৩০-১৪০ টাকা, লেবু প্রতিহালি ১০-১৫ টাকা থেকে লাফিয়ে ২৫-৩০ টাকা, শুকনা মরিচ ৪৮০-৫০০ টাকা, প্রতি পিস লাউ (আকারভেদে) ৫০-৬০ টাকা, পটোল ১২০ টাকা, দেশি রসুন ১৪০-১৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

অন্যদিকে খুচরা বাজারে প্রতি কেজি দেশি পেঁয়াজ ১০০ টাকা এবং ভারতীয় পেঁয়াজ ৯০ টাকা। এ ছাড়া পোলট্রি মুরগির ডিমের হালি ৪০-৪২ টাকা বিক্রি হচ্ছে। এখানে প্রতিটি পণ্যের দাম ১০-১৫ টাকা পর্যন্ত বেড়েছে।

বাজারে কার্ডিনাল আলু ৩০ টাকা, শিল আলু ৫০ টাকা, বগুড়ার সাদা পাকরি আলু ৪০ টাকা, গ্রানুলা ৩৫-৪০ টাকা এবং ঝাউ আলুর দাম বেড়ে ৫০-৫৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। খুচরা বাজারে কাঁচামরিচ ৬০ থেকে এক লাভে ৯০ টাকা টাকা এবং দেশি আদার কেজি ২২০-২৪০ টাকা বিক্রি হচ্ছে।

বিক্রেতারা বলেন, রমজান মাসে বেগুনের চাহিদা বেড়ে যায়, কিন্তু আমদানি কম থাকায় দাম বেড়েছে।

এদিকে বাজার ঘুরে দেখা যায়, খোলা চিনি ১৪৫-১৫০ টাকা, প্যাকেট আটা আগের মতোই ৫৫-৬০ টাকা, খোলা আটা ৪৮-৫০ টাকা, ছোলাবুট ৯৫-১০০ টাকা, প্যাকেট ময়দা ৭০ টাকা, মসুর ডাল (মাঝারি) ১২০ টাকা, চিকন ১৩৫-১৪০ টাকা, মুগডাল ১৭০-১৮০ টাকা এবং বুটডাল ১১০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।

মুরগি বাজার ঘুরে দেখা যায়, খুচরা বাজারে ব্রয়লার মুরগি ১৯০-২০০ টাকা, পাকিস্তানি মুরগির দাম বেড়ে ৩১০-৩২০ টাকা, পাকিস্তানি হাইব্রিড ২৭০-২৮০ টাকা থেকে বেড়ে ২৯০-৩০০ টাকা, পাকিস্তানি লেয়ার ২৯০-৩০০ টাকা এবং দেশি ৪৮০-৫০০ টাকা থেকে বেড়ে ৫২০-৫৩০ কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।

বাজারে গরুর মাংস ৬৮০ থেকে ৭২০ টাকা এবং খাসির মাংস ৮০০-৯০০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।

মুলাটোল আমতলা বাজারের মুরগি বিক্রেতা আল আমির হোসেন বলেন, সপ্তাহের ব্যবধানে ব্রয়লার মুরগির দাম সামান্য কমলেও অন্য জাতের মুরগির দাম বেড়েছে।

তেলের বাজার ঘুরে দেখা যায়, খুচরা বাজারে এক লিটার বোতলজাত সয়াবিন আগের মতোই ১৭৩ টাকা এবং দুই লিটার ৩৪৬ টাকা এবং খোলা সয়াবিন তেল ১৬০-১৮০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

মাছের বাজার ঘুরে দেখা যায়, আকারভেদে রুই মাছ ২৫০-৩৫০ টাকা, মৃগেল ২২০-২৫০ টাকা, কারপু ২০০-২২০ টাকা, পাঙাস ১৫০-১৬০ টাকা, তেলাপিয়া ১৪০-১৬০, কাতল ৪০০-৪৫০ টাকা, বাটা ১৬০-১৮০ টাকা, শিং ৩০০-৪০০ টাকা, সিলভার কার্প ১৫০-২৫০ টাকা এবং গছিমাছ ৮০০-১০০০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।

রংপুর ভোক্তা অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মোস্তাফিজার রহমান বলেন, আমরা প্রতিনিয়ত অভিযান পরিচালনা করছি। আমাদের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

এবার সাইপ্রাসে হামলার হুমকি

দিনটি কেমন কাটবে, জেনে নিন রাশিফলে

সুপার এইটে ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে ইংল্যান্ডের দাপুটে জয়

বগুড়ায় পানিতে ডুবে প্রাণ গেল শিশুর

সৌদিতে হজে গিয়ে মৃত্যুর সংখ্যা ৯০০ ছাড়াল

আফগানদের বিপক্ষে ভারতীয় দলে বদলের ইঙ্গিত

বিয়ের দাবিতে রায়হানের বাড়িতে কিশোরী

আজ দেশে ফিরবেন ৮৩৯ হাজি

ছুটি শেষে ঘরে ফেরাদের করণীয় জানাল স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

ঢাকার বাতাসের খবর কী

১০

ইংলিশদের ১৮১ রানের বড় টার্গেট উইন্ডিজের

১১

দুপুরের মধ্যে ঝড় হতে পারে যেসব অঞ্চলে

১২

কেমন থাকবে আজকের আবহাওয়া?

১৩

কী ঘটেছিল ইতিহাসের এই দিনে

১৪

২০ জুন : নামাজের সময়সূচি

১৫

বন্যায় দিশেহারা মৌলভীবাজার-রাজনগরের দেড় লাখ মানুষ

১৬

পৃথিবীর ইতিহাসে সবচেয়ে ধনী কে এই মানসা মুসা?

১৭

বিপৎসীমা ছাড়াল তিস্তার পানি, আতঙ্কে চরাঞ্চলের মানুষ

১৮

লুকোচুরি খেলতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে স্কুলছাত্রীর মৃত্যু

১৯

টস জিতে ক্যারিবীয়দের ব্যাটিংয়ে পাঠাল ইংলিশরা

২০
X