কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি
প্রকাশ : ০৮ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৯:১৪ পিএম
অনলাইন সংস্করণ

জন্মের আগেই নবজাতক বিক্রি, অতঃপর...

শিশুকে কোলে নিয়ে আছেন মা কোকিলা খাতুন। ছবি : কালবেলা

গর্ভবতী থাকা অবস্থায় স্বামীর সাথে মনোমালিন্য হলে মায়ের বাড়িতে চলে যান কোকিলা খাতুন। কোকিলা খাতুনের মা ঝিনাইদহ শহরে ভিক্ষা করেন। এর মধ্যে কোকিলা খাতুনের প্রসব বেদনা উঠলে কালীগঞ্জ শহরের ডক্টরস ক্লিনিকে তাকে ভর্তি করানো হয়। গত ২৮ নভেম্বর ফুটফুটে এক শিশুসন্তানের জন্ম হয়। পরে সন্তানকে দত্তক দেন ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ শহরের হেলাই গ্রামের সোহাগ হোসেনের কাছে।

এ ঘটনা জানতে পেরে বৃহস্পতিবার সকালে থানায় এসে অভিযোগ করেন কোকিলা খাতুনের স্বামী আকাশ হোসেন। এরপর পুলিশ গিয়ে হেলাই গ্রাম থেকে নবজাতককে উদ্ধার করে। বিকেলে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান কালীগঞ্জ থানার ওসি আবু আজিফ।

ওসি আবু আজিফ জানান, বৃহস্পতিবার সকালে ঝিনাইদহ সদর থানায় একটি অভিযোগ করেন আকাশ হোসেন। গত ২৮ নভেম্বর তার স্ত্রী সিজারের মাধ্যমে একটি পুত্রসন্তানের জন্ম দেয়। আকাশ হোসেনকে না জানিয়ে তার স্ত্রী ও শাশুড়ি সন্তানকে দত্তক দেয়। পরে তার স্ত্রী কোকিলা খাতুন ভুল বুঝতে পারে এবং স্বামীর সাথে যোগাযোগ করে সন্তানকে উদ্ধার করে আনতে বলে।

নবজাতকটি দত্তক নেওয়া সোহাগ হোসেন জানান, ঝিনাইদহ শহরে ভিক্ষা করেন আনোয়ারা খাতুন। মেয়ের সিজারের কথা বলে ভিক্ষা করতে আসেন। সেখান থেকেই পরিচয়। সিজারের আগেই সন্তানটি তাদের দিবেন বলে জানান সন্তানের নানি আনোয়ারা খাতুন। বিনিময়ে সিজারের খরচ ও নগদ ৩০ হাজার টাকা দিতে হবে। স্থানীয় মেয়র ও কাউন্সিলরকে জানিয়ে শিশুটিকে তারা নিয়ে গিয়েছিলেন।

নবজাতক শিশুটির বাবা আকাশ হোসেন জানান, তার স্ত্রীর সাথে মনোমালিন্য হয়েছিল। তাকে না জানিয়ে সন্তানটিকে দত্তক দিয়েছিল। জানতে পেরে তিনি তার সন্তানকে ফেরত নিতে থানায় অভিযোগ করেছিলেন।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

দীপংকরের সিনেমায় প্রফুল্লনলিনীর অজানা গল্প

‘ভুল তথ্য প্রতিরোধে যৌথভাবে কাজ করবে বাংলাদেশ-তুরস্ক’

মজুতদার ও সিন্ডিকেটদের বিএনপি পৃষ্ঠপোষকতা করছে : ওবায়দুল কাদের

উল্টে গেল যাত্রীবোঝাই বাস

আবারও রুশ গোয়েন্দা বিমান ভূপাতিতের দাবি ইউক্রেনের

জলাবদ্ধতায় তলিয়ে গেছে দুইশ একর বোরো জমি

অবশেষে কথা রাখলেন শচীন

রমজানে সেহরি ও ইফতারের বিষয়ে নির্দেশনা দিল সৌদি

তিন সদস্যের কমিটি গঠন / উত্তরাঞ্চলের সঙ্গে ৮ ঘণ্টা পর ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক

সম্প্রতি বাংলাদেশের গোলটেবিল আলোচনা / ‘ভাষাকে শক্তিশালী করতে অর্থনীতিকে সমৃদ্ধ করতে হবে’

১০

সাড়া ফেলেছে মনিরুল ইসলামের ‘পথভোলা পথিকেরা’

১১

মীর হামজার ‘ডেইলি স্টার এ লেভেল এওয়ার্ড’ অর্জন 

১২

মাথাব্যথা কমাতে ওষুধ না খেয়ে কী কী করবেন?

১৩

পাকিস্তানে নতুন সরকার গঠনের পরই প্রেসিডেন্ট নির্বাচন

১৪

অসাধু ব্যবসায়ীদের কারসাজি রোধে ভোক্তাদেরও সতর্ক থাকতে হবে : খাদ্যমন্ত্রী

১৫

এ কেমন শত্রুতা!

১৬

বাজার কারসাজির বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেবে সরকার : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

১৭

রমজানে কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করলে কঠোর ব্যবস্থা : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী 

১৮

পরকীয়ার জেরে ৩ সন্তা‌নের জননী‌কে গলা কেটে হত্যা, আটক ১

১৯

আলভেজকে সাহায্য করে বিপাকে নেইমার

২০
X