কালবেলা প্রতিবেদক
প্রকাশ : ২১ এপ্রিল ২০২৪, ০৭:৫৬ পিএম
আপডেট : ২১ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:০০ পিএম
অনলাইন সংস্করণ
বাংলাদেশ রেলওয়ে

তাপপ্রবাহ থেকে সুরক্ষায় কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের পাঁচ নির্দেশনা

বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের তাপপ্রবাহ থেকে বাঁচতে পাঁচ নির্দেশনা দিয়েছে। ছবি : সংগৃহীত
বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের তাপপ্রবাহ থেকে বাঁচতে পাঁচ নির্দেশনা দিয়েছে। ছবি : সংগৃহীত

চলমান তীব্র তাপপ্রবাহ থেকে সুরক্ষায় মাঠপর্যায়ে কর্মরত কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের জন্য পাঁচ দফা নির্দেশনা দিয়েছে বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ।

রোববার (২১ এপ্রিল) বাংলাদেশ রেলওয়ের মহাব্যবস্থাপক (পশ্চিম) অসীম কুমার তালুকদার স্বাক্ষরিত এ নির্দেশনা জারি করা হয়।

এতে বলা হয়েছে, পানি শূন্যতা থেকে রক্ষায় প্রচুর পানি পান করতে হবে, তৃষ্ণাবোধ না করলেও সময় অন্তর পানি খেতে হবে- ঠান্ডা পানি ও বরফ পানি খাওয়া থেকে বিরত থাকতে হবে।

বাইরে বের হওয়ার সময় ছাতা অথবা টুপি রাখতে হবে। শরীরে কোনোরূপ অস্বস্তি দেখা দিলে ওরস্যালাইন অথবা লেবুপানি খেতে হবে। খাবারের মেনুতে প্রোটিন জাতীয় খাবার কমিয়ে শাকসবজি বাড়াতে হবে। সূর্যের আলো থেকে সুরক্ষার জন্য রোদ চশমা/সানগ্ল্যাস ব্যবহার করা যেতে পারে।

এর আগে গত ১৭ এপ্রিল তীব্র তাপপ্রবাহের কারণে গতি কমিয়ে সারা দেশে ট্রেন পরিচালনার নির্দেশ দেয় রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ।

রেলওয়ে সূত্র জানিয়েছে, সারা দেশে স্থান ও রেললাইনের বয়স বিবেচনায় ৪০ থেকে ৫০ কিলোমিটার গতিতে ট্রেন চালানোর নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। এটাকে রেলের ভাষায়, স্ট্যান্ডিং অর্ডার বা স্থায়ী আদেশ বলা হয়।

কারণ, প্রতিবছরই গরমের সময় এই ধরনের নির্দেশনা দিয়ে থাকে রেল কর্তৃপক্ষ। মূলত বেলা ১১টা থেকে থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত গতি কমানো হয়। কারণ, এই সময়টাতেই রেললাইন বেশি গরম হয়।

রেলওয়ে সূত্র বলছে, পৃথিবীর উপরিভাগে যত তাপমাত্রা থাকে, রেললাইনে তার চেয়ে ১০ বা ১২ ডিগ্রি বেশি তাপমাত্রা তৈরি হয়। রেলের মাঠপর্যায়ের কর্মীদের কাছে রেললাইনের তাপমাত্রা মাপার যন্ত্র রয়েছে। তারা মেপে তাপমাত্রা ৫০ ডিগ্রি সেলসিয়াস পেলেই গতি কমানোর নির্দেশনা আসে। এই তাপমাত্রায় নতুন লাইন বেঁকে যেতে পারে। লোহার পাত জোড়া দিয়ে দিয়ে সমান্তরাল রেললাইন বসানো হয়। জোড়াগুলোর জায়গাতে সামান্য ফাঁকা রাখা হয়। যাতে তাপে লোহার সম্প্রসারণ হলে দুর্ঘটনা এড়ানো যায়। কিন্তু অত্যধিক তাপে সম্প্রসারণ বেশি হয়ে গেলে দুর্ঘটনার আশঙ্কা বেড়ে যায়।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

ছয় বছরে দুই পিলার

লজ্জাজনক এ হারের দায় কার?

শান্তিপূর্ণ সমাজ বিনির্মাণে বুদ্ধের শিক্ষা অনুসরণ করা প্রয়োজন : প্রধানমন্ত্রী 

উপজেলা নির্বাচন / দ্বিতীয় ধাপে চেয়ারম্যান হলেন যারা

বুদ্ধ পূর্ণিমা আজ

সাঁকো নির্মাণ নিয়ে বিরোধ, যুবককে কুপিয়ে হত্যা

স্মার্ট বাংলাদেশের অগ্রযাত্রা নিয়ে সভা আজ

বুধবার ঢাকার যেসব এলাকায় যাবেন না

ইতিহাসের এই দিনে স্মরণীয় যত ঘটনা

২২ মে : নামাজের সময়সূচি

১০

অবসরের পরেও চেয়ারে তিনি, ৩ দিনে ৩৪ কোটি টাকার ঘুষ

১১

নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় শিক্ষার্থী নিহত

১২

বিনা টিকিটে ১২ বছর রেল ভ্রমণ, অতঃপর...

১৩

বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে নারী শ্রমিককে যৌন হয়রানি

১৪

ইন্টারন্যাশনাল স্ট্যান্ডার্ড ইউনিভার্সিটির ইংরেজি বিভাগের প্রথম জার্নাল প্রকাশিত

১৫

প্রেসিডেন্সি ইউনিভার্সিটিতে ‘সেমিস্টার ডে ২০২৪’ উদ্‌যাপন

১৬

ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি শ্রাবণের ওপর হামলার অভিযোগ

১৭

খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার খোঁজ নিলেন ফখরুল

১৮

যুক্তরাষ্ট্রের কাছে ধরাশায়ী হলো বাংলাদেশ

১৯

রাজধানীতে বিটিআরসির অভিযান, সরঞ্জামাদি জব্দ

২০
X