শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১
রাফসান জানি
প্রকাশ : ০৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ০১:৪৪ এএম
আপডেট : ০৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ০৮:১২ এএম
প্রিন্ট সংস্করণ
ঢাকা কাস্টমস

স্বর্ণ গায়েবে ‘রাজস্ব কর্মকর্তা সিপাহি সিন্ডিকেট’

স্বর্ণের বার। ছবি : সংগৃহীত
স্বর্ণের বার। ছবি : সংগৃহীত

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ঢাকা কাস্টম হাউসের গুদাম থেকে ৫৫ কেজি স্বর্ণ গায়েবে তিনজন জড়িত থাকার তথ্য পাওয়া গেছে। কাস্টমসের দুই সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা (এআরও) ও এক সিপাহিকে গুদাম থেকে স্বর্ণ চুরির প্রধান সন্দেহভাজন হিসেবে চিহ্নিত করেছে পুলিশ। তারা হলেন সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা মো. সাইদুল ইসলাম শাহেদ, মো. শহিদুল ইসলাম ও সিপাহি নিয়ামত হাওলাদার।

তিনজনকে প্রাথমিকভাবে চিহ্নিত করা হলেও গুদাম থেকে স্বর্ণ গায়েব সিন্ডিকেটের শিকড় আরও অনেক গভীরে বলে তথ্য পাচ্ছেন তদন্ত সংশ্লিষ্টরা। মামলাটি থানা পুলিশ থেকে ডিবিতে স্থানান্তরের সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিমানবন্দর জোনের অতিরিক্ত কমিশনার তৌহিদুল ইসলাম।

কাস্টম হাউস সূত্রে জানা গেছে, সন্দেহভাজন দুই রাজস্ব কর্মকর্তার মধ্যে শাহেদ ঢাকা কাস্টম হাউসের শীর্ষ কর্মকর্তার খুব আস্থাভাজন। সম্প্রতি এই কর্মকর্তাকে গুদাম থেকে বদলি করে হাউসের খুবই গুরুত্বপূর্ণ ও লোভনীয় শাখা এয়ারফ্রেইটে বদলি করা হয়। সাধারণত কাস্টম হাউসের কমিশনারের সবচেয়ে কাছের এবং বিশ্বস্ত লোকদের এই শাখায় বদলি করা হয়ে থাকে। শাহেদকেও সেখানে পাঠানো হয়েছিল। তবে স্বর্ণ গায়েবের বিষয়টি প্রকাশ্যে আসার পর তড়িঘড়ি করে সেই বদলির আদেশ স্থগিত করা হয়। আর স্বর্ণ চুরিতে শাহেদের সম্পৃক্ততা পাওয়ায় শীর্ষ কর্মকর্তার যোগসাজশ নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে।

সূত্রে জানা গেছে, মামলার তদন্ত শুরুর পর থেকে মূল হোতাদের আড়াল করতে ঢাকা কাস্টম হাউস কর্তৃপক্ষ নানাভাবে অসহযোগিতার অভিযোগ রয়েছে। গুদামে থাকা মালপত্রের পূর্ণাঙ্গ তালিকা চাওয়া হলেও তা মঙ্গলবার সন্ধ্যা পর্যন্ত দেয়নি তারা। আর চুরি যাওয়া ৫৫.৫১ কেজি স্বর্ণের মধ্যে বাজেয়াপ্ত করা স্বর্ণ ছিল ৪৭.৪৯ কেজি। যেগুলোর কোনো মালিকানা নেই। এই স্বর্ণের কেউ মালিকানা দাবি করতে আসবে না জেনেই পরিকল্পিতভাবে ৪৭.৪৯ কেজিসহ ৫৫.৫১ কেজি স্বর্ণ গায়েব করা হয়েছে বলে মনে করছেন কাস্টমস সংশ্লিষ্টরা।

এদিকে গুদামের ভেতর এসির ভেন্টিলেটরের পাশের অংশ ভাঙা দেখিয়ে ঘটনাটি চুরি বলে ঢাকা কাস্টম হাউস থেকে দাবি করা হলেও তার স্বপক্ষে যুক্তি দেখাতে পারছে না কাস্টমস কর্তৃপক্ষ। ভেন্টিলেটরের পাশের যে অংশ দিয়ে চোর চুরি করে বের হতে পারে, তার শেষ অংশে একটি সিসি ক্যামেরা রয়েছে। ওই নির্দিষ্ট ক্যামেরাটি কারা নিয়ন্ত্রণ করছে, তা কোনো সংস্থা স্বীকার করছে না। এই ক্যামেরার ফুটেজ পাওয়া গেলে চুরির যে অভিযোগটি করা হচ্ছে তার মীমাংসা হয়ে যাবে বলে ধারণা তদন্ত সংশ্লিষ্টদের। সাধারণত বিমানবন্দরে সব কর্তৃপক্ষ ও গোয়েন্দাদের নিজস্ব ক্যামেরা রয়েছে।

দুই রাজস্ব কর্মকর্তা ও এক সিপাহি জড়িত থাকা প্রসঙ্গে উত্তরা বিভাগের উপকমিশনার মোহাম্মদ মোর্শেদ আলম কালবেলাকে বলেন, আমরা চারজন সিপাহি ও চারজন সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছি। চারজন রাজস্ব কর্মকর্তার মধ্যে দুজন গত ৬ আগস্ট নতুন যোগ দেন। পুরোনো হলেন শহীদুল ও শাহেদ। এই দুজনই আমাদের প্রধান টার্গেট। তারা দীর্ঘদিন ধরে এখানে কর্মরত ছিলেন। এই দুজন ঘটনার সঙ্গে জড়িত বলে আমরা তথ্য পাচ্ছি।

কারণ হিসেবে তিনি বলেন, ঘটনার দিন, ঘটনার আগে ও পরে তাদের বিভিন্ন সময় এয়ারপোর্টের বিভিন্ন স্থানে পাওয়া যায়। সিসি ক্যামেরার ফুটেজ ও তথ্যপ্রযুক্তির সহযোগিতায় আমরা বিষয়গুলো নিশ্চিত হতে পেরেছি। জিজ্ঞাসাবাদে তাদের কথার মধ্যে অনেক অসংগতি লক্ষ করা যায়। যখন ডিউটি নেই তখন এই তিনজনকে একসঙ্গে বিভিন্ন লোকেশনে দেখা গেছে। যেখানে তাদের থাকার কথা নয়। এসব তথ্য প্রমাণে এই দুই কর্মকর্তা ও সিপাহি নিয়ামত হাওলাদারকে আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে।

গুদাম থেকে স্বর্ণগুলো গায়েব করার পর কোথায় নেওয়া হয়েছে, তা অনুসন্ধান করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন পুলিশের এই কর্মকর্তা। কাস্টমস থেকে বেশ কিছু বিষয়ে তথ্য এখনো পাওয়া যায়নি উল্লেখ করে মোহাম্মদ মোর্শেদ আলম বলেন, আমরা কিছু তথ্য এখনো পাইনি, সেগুলো সংগ্রহ করার চেষ্টা করছি। যেগুলো আসার পর আরও কারা জড়িত আছে, সেটি বেরিয়ে আসবে।

গায়েব করা স্বর্ণ কোথায় রাখা হয়েছে, বা হাতবদলের পর কী করা হয়েছে, তাও খোঁজা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন পুলিশের এই কর্মকর্তা।

নতুন দুই রাজস্ব কর্মকর্তা দায়িত্ব নিতে গিয়েই বের হয় গায়েবের তথ্য

ঢাকা কাস্টম হাউস সূত্রে জানা গেছে, গত ৬ আগস্ট ঢাকা কাস্টমসের গুদামে মাসুম রানা ও আকরাম শেখকে ‘চুরি যাওয়া’ গুদামের দায়িত্ব দেওয়া হয়। নতুন দুই কর্মকর্তাকে কাজ বুঝিয়ে দেওয়ার দায়িত্বে ছিলেন সাইদুল ইসলাম শাহেদ ও শহিদুল ইসলাম। কাজ বুঝিয়ে দিলেও গুদামে থাকা মালপত্রের হিসাব বোঝাচ্ছিলেন শাহেদ ও শহিদুল। গুদামে থাকা মালপত্রের হিসাব না বুঝিয়ে দিয়েই নতুন দুই কর্মকর্তাকে সব বুঝে পাওয়ার কাগজে অনেকটা জোর করে স্বাক্ষর করান শাহেদ ও শহিদুল। নতুন দুই সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা মাসুম ও আকরাম তালিকা অনুযায়ী গুদামে থাকা মালপত্রের হিসাব করতে গিয়ে প্রথমে বেরিয়ে আসে ৬টি ডিটেনশন মেমোর (ডিএম) বিপরীতে থাকা স্বর্ণ গায়েব।

কাস্টম হাউসের একাধিক কর্মকর্তা জানান, গত ১৭ জুলাই জানা যায় ছয়টি ডিএমের বিপরীতে আসা স্বর্ণ পাওয়া যাচ্ছে না। বিষয়টি নতুন দুই কর্মকর্তা ঊর্ধ্বতনদের জানান। তখন গুদামে থাকা পুরো পণ্যের হিসাব শুরু হয়। আর এতেই গুদাম থেকে আরও বেশি পরিমাণ স্বর্ণ গায়েবের তথ্য বেরিয়ে আসে।

এ নিয়ে যখন ঢাকা কাস্টম হাউসে তোলপাড় তার মধ্যেই জানা যায়, ২ সেপ্টেম্বর রাত ১২টা ১৫ মিনিট থেকে সকাল ৯টার মধ্যে বিমান বন্দরের লস্ট অ্যান্ড ফাউন্ড সংলগ্ন কাস্টমস ট্রানজিট গোডাউনের ভেতরে চুরি হয়েছে। গুদামের ভেতরে একটি স্টিলের আলমারির দরজার লক ভাঙা অবস্থায় পাওয়া যায় এবং গোডাউনের পূর্বপাশের ওপরের দিকে এসির বাতাস বের হওয়ায় জায়গায় টিনের কিছু অংশ কাটা রয়েছে।

ঢাকা কাস্টম হাউসের পক্ষ থেকে দাবি করা হয় গুদামে চুরি হয়েছে। ২০২০ থেকে ২০২৩ সালের বিভিন্ন সময়ে জব্দ করা ৩৮৯টি ডিএমের ৪৭.৪৯ কেজি স্বর্ণসহ ৫৫.৫১ কেজি স্বর্ণ পাওয়া যাচ্ছে না। এই পরিমাণ স্বর্ণ চুরি হয়েছে এমন অভিযোগে অজ্ঞাতদের আসামি করে ৩ অক্টোবর রাতে বিমানবন্দর থানায় মামলা করেন ঢাকা কাস্টম হাউসের এয়ারপোর্ট প্রিভেন্টিভ টিমের সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা মোহাম্মদ সোহরাব হোসেন। মামলাটি থানা পুলিশ তদন্ত করছে।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

৮০ কিমি বেগে ঝড়ের শঙ্কা, সতর্কতা জারি

পাবলিশহার এক্সেলেন্স অ্যাওয়ার্ড পেলেন মিতিয়া ওসমান

৮৪ জন গ্রাউন্ড সার্ভিস এসিস্টেন্ট নিয়োগ দিল বিমান

প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলের শাড়ি বন্ধুদের দিলেন ব্যারিস্টার সুমন

‘নতুন প্রজন্মের মাঝে স্বাধীনতার ঘোষণাপত্রের তাৎপর্য তুলে ধরার আহ্বান’

লক্ষ্য যাত্রী সেবার মানোন্নয়ন  / ৮৪ জন গ্রাউন্ড সার্ভিস অ্যাসিস্ট্যান্ট নিয়োগ দিল বিমান

নওগাঁয় সিআইডি পরিচয়ে চাঁদাবাজি, অতঃপর...

ইন্দোনেশিয়ায় অগ্ন্যুৎপাতে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে ১১ হাজার মানুষকে

প্রবাসীদের রেমিট্যান্স উন্নয়নের অন্যতম মূল চালিকা শক্তি : দীপু মনি

প্রচণ্ড তাপদাহে অগ্নি দুর্ঘটনা প্রতিরোধে যা করবেন

১০

মেঘনায় জাটকা ধরায় ২০ জেলে আটক

১১

হাইকমিশনারের সঙ্গে বৈঠক / বিএনপির কৌশল বুঝতে চায় ব্রিটেন

১২

মদ বিক্রেতার হামলায় আহত হয়ে মন্দিরের প্রতিমা ভাঙচুর

১৩

যৌন হয়রানির অভিযোগে শিক্ষক রিমান্ডে 

১৪

বাংলাদেশ থেকে ইউরোপে অভিবাসী পাচারের অভিযোগে গ্রেপ্তার ২৪

১৫

সাভারে গ্যাস বিস্ফোরণে দগ্ধ ৩

১৬

বিএনপি-জামায়াত দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে : লিটন

১৭

শিল্প এবং সংস্কৃতির উন্নয়নে বিনিয়োগ বাড়াতে হবে : তথ্যপ্রতিমন্ত্রী 

১৮

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে গলা কেটে হত্যা

১৯

বিরিশিরিতে নয়নাভিরাম সৌন্দর্যে মোড়ানো সাদা মাটির পাহাড়

২০
*/ ?>
X