সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
কালবেলা ডেস্ক
প্রকাশ : ১৪ জুন ২০২৩, ০৪:৩৩ পিএম
অনলাইন সংস্করণ

তৃতীয় এলএনজি টার্মিনালের দায়িত্বও পেল সামিট

ছবি : সংগৃহীত
ছবি : সংগৃহীত

কক্সবাজারের মহেশখালীতে তৃতীয় ভাসমান এলএনজি টার্মিনাল স্থাপনের কাজও পেতে যাচ্ছে দেশীয় কোম্পানি সামিট অয়েল অ্যান্ড শিপিং লিমিটেড। প্রতিষ্ঠানটিকে কাজ দিতে পেট্রোবাংলার প্রস্তাব অনুমোদন করেছে অর্থনৈতিক বিষয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি।

টার্মিনালটি থেকে দিনে ৬০০ মিলিয়ন ঘনফুট এলএনজি পাইপলাইনে সরবরাহ করা যাবে। আজ বুধবার মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠক শেষে এ তথ্য জানিয়েছেন মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব সাঈদ মাহবুব খান।

তিনি বলেন, ‘জ্বালানি ও খনিজসম্পদ বিভাগের অধীন পেট্রোবাংলা কর্তৃক কক্সবাজারের মহেশখালীতে প্রতিদিন ৬০০ এমএমসিএফ ক্ষমতাসম্পন্ন তৃতীয় ভাসমান এলএনজি টার্মিনাল স্থাপনের জন্য সামিট অয়েল অ্যান্ড শিপিং লিমিটেডকে কাজ দেওয়ার প্রস্তাব নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।’

কক্সবাজারের মহেশখালীতে বর্তমানে ৫০০ এমএমসিএফডি ক্ষমতাসম্পন্ন দুটি ভাসমান এলএনজি টার্মিনাল চালু আছে। একটি পরিচালনার দায়িত্বে সামিট, অপরটির যুক্তরাষ্ট্রের এক্সিলারেট এনার্জি।

ক্রয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে পেট্রোবাংলা জন্য উন্মুক্ত দরপত্রের মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্রের এক্সিলারেট এনার্জি এলপির কাছ থেকে এক কার্গো বা ৩৩ লাখ ৬০ হাজার এমএমবিটিইউ এলএনজি আমদানির অনুমোদন দেওয়া হয়। এতে মোট খরচ হবে ৫৭৪ কোটি ৬৫ লাখ ৭৪ হাজার ৩০২ টাকা। প্রতি ইউনিটের দাম দাঁড়াচ্ছে ১৩ দশমিক ৯ ডলার।

সার কেনার অনুমোদন ক্রয় কমিটির বৈঠকে কাতার, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও কাফকোর কাছ থেকে ৯০ হাজার টন ইউরিয়া সার কেনার অনুমোদন দেওয়া হয়। এতে খরচ ধরা হয়েছে ২৯৬ কোটি ৬২ লাখ ৭৫ হাজার ৯২১ টাকা।

অতিরিক্ত সচিব সাঈদ মাহবুব খান জানান, বাংলাদেশ কেমিকেল ইন্ডাস্ট্রিজ করপোরেশনের (বিসিআইসি) জন্য কাফকোর কাছ থেকে ১৯তম লটে ৩০ হাজার টন ইউরিয়া সার ১০৪ কোটি ৪৩ লাখ ৫৯ হাজার ৮৮৭ টাকায় কেনার অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

বিসিআইসির জন্য আমিরাতের ফার্টিগ্লোব ডিস্ট্রিবিউশনের কাছ থেকে ১২ম লটে ৩০ হাজার টন ইউরিয়া সার ৯৪ কোটি ১৩ লাখ ৬৮ হাজার ৬১৭ টাকায় আমদানির অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

আরেক প্রস্তাবে বিসিআইসির জন্য কাতারের মুনতাজাত থেকে ১৭তম লটে ৩০ হাজার টন সার ৯৮ কোটি ৫ লাখ ৪৭ হাজার ৪১৭ টাকায় আমদানির অনুমোদন দেওয়া হয়।

মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে সংযুক্ত আরব আমিরাত, সৌদি আরব ও কাতার থেকে জিটুজি ভিত্তিতে সার কিনতে দীর্ঘমেয়াদি চুক্তিরও নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়।

অতিরিক্ত সচিব জানান, বিসিআইসি ২০২৩-২৪ অর্থবছরে জিটুজি চুক্তির আওতায় সংযুক্ত আরব আমিরাতের ফোর্টিগ্লোব ডিস্ট্রিবিউশনের কাছ থেকে তিন লাখ ৯০ হাজার টন ইউরিয়া সার আমদানির নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়।

একই প্রতিষ্ঠানকে ২০২৩-২৪ অর্থবছরে জিটুজি চুক্তির আওতায় মুনতাজাত কাতার থেকে চার লাখ ৮০ হাজার টন ইউরিয়া সার আমদানির নীতিগত অনুমোদনও দেওয়া হয়। আর সৌদি আরবের সাবিক এগ্রি নিউট্রিয়েন্টস কোম্পানির কাছ থেকে জিটুজি চুক্তির আওতায় ২০২৩-২৪ অর্থবছরে ইউরিয়া সার আমদানির নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হলেও পরিমাণ উল্লেখ করা হয়নি।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

আইপিএল চ্যাম্পিয়ন হয়ে কত টাকা পেল কেকেআর?

সাতক্ষীরায় আশ্রয় কেন্দ্রে বিজিবির খাদ্য বিতরণ

ঘূর্ণিঝড় রিমাল / বরগুনায় বাঁধ ভেঙ্গে প্লাবিত ১২ গ্রাম

একপেশে ফাইনালে হায়দ্রাবাদকে হারিয়ে কলকাতার শিরোপা উৎসব

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান রাস্তাঘাটসহ বসতবাড়ি প্লাবিত

সর্বজনীন পেনশন স্কিম বাতিলের দাবি খুবির শিক্ষক সমিতির

ঘূর্ণিঝড় রিমাল / দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে নৌ চলাচল বন্ধ

১৫ ঘণ্টা পর শুরু হলো একাদশে ভর্তির আবেদন

গাজায় ইসরায়েলি নিপীড়ন ও গণহত্যার বিরুদ্ধে ইআরডিএফবি’র বিবৃতি

নারায়ণগঞ্জে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ১০

১০

ছাদ থেকে পড়ে শ্রমিক নিহত

১১

বুটেক্সের নজরুল হলে মারামারির ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন

১২

২০ দিনের নবজাতককে নিয়ে আশ্রয়কেন্দ্রে পরিবার

১৩

খুবির পরীক্ষা স্থগিত

১৪

চট্টগ্রাম এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের পিলারে ফাটল

১৫

পরিকল্পনা মন্ত্রীর বিরুদ্ধে আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ

১৬

‘পর্যটনে উন্নত প্রশিক্ষণক্ষেত্রে মালয়েশিয়ার সহযোগিতা চায় বাংলাদেশ’

১৭

ঋণখেলাপিদের শাস্তি ছাড়া ব্যাংক একত্রীকরণে সুফল মিলবে না

১৮

বৈষম্যমূলক পেনশন স্কিম বাতিলের দাবি সিকৃবি শিক্ষকদের

১৯

১০ বছরের অপেক্ষা ঘুচিয়ে আইপিএল চ্যাম্পিয়ন কলকাতা

২০
X