কালবেলা ডেস্ক
প্রকাশ : ২১ মে ২০২৪, ০১:৪২ পিএম
আপডেট : ২১ মে ২০২৪, ০২:৩২ পিএম
অনলাইন সংস্করণ

বঙ্গবন্ধুর দৌহিত্র রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিকের জন্মদিন আজ

বঙ্গবন্ধুরই দৌহিত্র ও সিআরআই এর ট্রাস্ট্রি রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিক। ছবি : সংগৃহীত
বঙ্গবন্ধুরই দৌহিত্র ও সিআরআই এর ট্রাস্ট্রি রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিক। ছবি : সংগৃহীত

১৯৭৫ সালের পর গণমাধ্যম ও সরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানসহ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতেও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নাম নেওয়া ছিল নিষিদ্ধ। বঙ্গবন্ধুকে এভাবে বাংলাদেশের বুক থেকে মুছে ফেলার সাক্ষী হয়ে আছেন আশির দশকে ঢাকায় শৈশব পার করা বঙ্গবন্ধুরই দৌহিত্র রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিকসহ তৎকালীন প্রজন্ম। আজ ২১ মে রাদওয়ান মুজিবের জন্মদিন। ১৯৮০ সালের এই দিনে বঙ্গবন্ধুর ছোট মেয়ে শেখ রেহানার ঘর আলোকিত করেন তিনি।

নিজের শৈশবের বেশ কিছু অভিজ্ঞতার কথা এক অনুষ্ঠানে জানান সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশন (সিআরআই) ট্রাস্ট্রি রাদওয়ান মুজিব। বিশেষত স্কুলকে ঘিরে তৎকালীন সময় শিশু রাদওয়ান মুজিবের দেখা বেশ কিছু ঘটনা। এর বর্ণনা দিতে গিয়ে তিনি বলেন, স্কুলে অনেকেই তখন নানার নামই শোনেনি। আমার বন্ধুরা বলত, ‘কে তোমার এই বঙ্গবন্ধু নানা?’ স্কুলে আমার শিক্ষকরা ‘বঙ্গবন্ধু’ শব্দটা শুনলে অনেক ঘাবড়ে যেতেন। আমাকে বলত, ‘বঙ্গবন্ধু বলতে হয় না স্কুলে’। শিশু রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিক সে সময় বুঝতে পারতেন না কেনো তার নানাকে কেউ চেনেন না, যিনি বাংলাদেশের জন্য সবকিছু ত্যাগ করেছেন, তাকে কেনো চিনবে না বন্ধুরা!

আর এ কারণেই বর্তমান প্রজন্মের তরুণদের জন্য বঙ্গবন্ধুকে ভিন্নভাবে উপস্থাপনের স্বপ্ন দেখতেন রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিক। তার পরিকল্পনায় শিশু-কিশোরদের জন্য প্রকাশিত হয় গ্রাফিক নভেল ‘মুজিব’। প্রকাশনার শুরু থেকেই শিশু-কিশোরদের পাশাপাশি তরুণদেরও দারুণ আকৃষ্ট করেছে এই গ্রাফিক নভেল। ১০ পর্বের গ্রাফিক নভেলের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী গ্রন্থটিকে যেন বাস্তবে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। এ যেন গল্পের ছলে দেশের গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাসকে জানা। নতুন প্রজন্মের সকলের কাছে দারুণ জনপ্রিয়তা পাওয়া গ্রাফিক নভেল মুজিবের জনপ্রিয়তার কারণেই চলতি বছরের বইমেলায় প্রকাশিত হয় বঙ্গবন্ধুর লেখা গ্রন্থ ‘আমার দেখা নয়া চীন’ অবলম্বনে গ্রাফিক নভেল। একুশের বই মেলায় এই বইটিও সকলের দৃষ্টি কাড়ে।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ইয়াং জেনারেশনকে কীভাবে শিখাব, কীভাবে তাদের কাছে পৌঁছাব। বিষয় হলো, আমাদের আসলে তাদের ভাষায় কথা বলতে হবে। আর এ কারণেই যখন সুযোগ হলো নানাকে নিয়ে গ্রাফিক নভেল তৈরি করা হলো।

বাংলাদেশে নির্মিত ডকুড্রামা ‘হাসিনা : এ ডটারর্স টেল’-এর নির্মাণের পেছনেও বড় ভূমিকা রেখেছেন রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিক। মূলত ১৯৭৫ সালের নিজ পরিবারের সকল সদস্যকে হারিয়ে যেভাবে জাতির পিতার দুই কন্যা বেঁচেছিলেন এবং সেখান থেকে বাংলাদেশের মানুষের কাছে ফিরে এসেছিলেন দেশের প্রতি দায়বদ্ধতা থেকে, সেই বিষয়গুলো তুলে ধরা হয়েছে এই ডকুড্রামার মাধ্যমে। এটি নির্মাণের পেছনেও মূল কারণ ছিল তরুণদের আকৃষ্ট করা। এই ডকুড্রামাটি দারুণ সাড়া ফেলে তরুণদের মাঝে। সেই সঙ্গে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে প্রশংসা কুড়ায় ডকুড্রামাটি।

সর্বদাই পর্দার আড়ালে থেকে তরুণদের জন্য কাজ করে যাওয়া রাদওয়ান মুজিব গণমাধ্যমের সামনেও খুব একটা আসেন না। কিন্তু তার দুর্দান্ত সব কার্যক্রমের কল্যাণে দেশ গঠনে উদ্বুদ্ধ হয়ে এগিয়ে এসেছে তরুণ প্রজন্ম। রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান সিআরআইয়ের ট্রাস্টি হিসেবে কাজ করছেন। সিআরআইয়ের অঙ্গপ্রতিষ্ঠান ‘ইয়াং বাংলার’ মাধ্যমে তরুণদের ক্ষমতায়ন ও উদ্বুদ্ধকরণের কাজ করছেন তিনি। ৫০ হাজার স্বেচ্ছাসেবী ও ৩১৫টি সংগঠনকে সঙ্গে নিয়ে চলা ইয়াং বাংলার সদস্য সংখ্যা ৩ লাখেরও বেশি।

২০১৪ সালে যাত্রা শুরুর পর থেকে তার নেতৃত্বে ইয়াং বাংলার পক্ষ থেকে আয়োজন করা হয় জয় বাংলা ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ড ও জয় বাংলা কনসার্টসহ আরও নানা আয়োজন। রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিক গণমাধ্যমে দেওয়া বক্তব্যে বার বার জানিয়েছেন, তরুণদের দেশের ইতিহাসের সঙ্গে সহজে পরিচিতি ঘটাতে এবং দেশ গঠনে তরুণদের শক্তিকে কাজে লাগাতেই এই উদ্যোগগুলো গ্রহণ করা হয়।

২০২১ সালে জয় বাংলা ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, আসলে আমাদের শুধু বললেই হবে না। এখন সময় এসেছে তরুণদের হাতে আরও দায়িত্ব তুলে দেওয়ার। সকল সেক্টরে তরুণদের দায়িত্ব প্রদান করতে হবে, সেটা ব্যবসা, রাজনীতি, এনজিও থেকে শুরু করে সকল ক্ষেত্রে।

বাস্তবতা হলো, রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিক শুধু তরুণদের দায়িত্ব দিতে বলেননি। তিনি তরুণদের কাঁধেই সকল দায়িত্ব অর্পণ করেছেন। জয় বাংলা ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানের পরিকল্পনার মাধ্যমে দেশের প্রান্তিক সব অঞ্চল থেকে দেশ গঠনে কাজ করে যাওয়া তরুণদের খুঁজে বের করে ইয়াং বাংলা প্লাটফর্মের মাধ্যমে সারা দেশে উদ্ভাবনী সব কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে, যার পরিকল্পনা ও বাস্তবায়ন সকল ক্ষেত্রেই নেতৃত্ব দিচ্ছেন তরুণরা। আর তাদের পাশে সর্বদা ইয়াং বাংলার মাধ্যমে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিক।

শুধু তাই নয়, তরুণদের সরকারি কার্যক্রমের সঙ্গে যুক্ত করতে রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিকের উদ্যোগে ইয়াং বাংলা পরিচালনা করে বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ে ইন্টার্নশিপ কার্যক্রম। এই কার্যক্রমের সাফল্যে অনুপ্রাণিত হয়ে বাংলাদেশের মন্ত্রিপরিষদ এ বিষয়ক গেজেট প্রকাশ করে যার মাধ্যমে বিভিন্ন সরকারি দপ্তর ও মন্ত্রণালয়গুলোতে ইন্টার্নের সুযোগ পাচ্ছেন তরুণরা। তার হাত ধরে গড়ে ওঠা তরুণদের সর্ববৃহৎ প্লাটফর্ম ইয়াং বাংলার সদস্য হয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও। তার হাত ধরেই দেশের নীতি-নির্ধারকদের সঙ্গে নিয়মিত আলোচনায় বসে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা করতে পারছে তরুণ প্রজন্ম।

লন্ডন স্কুল অব ইকোনমিক্স অ্যান্ড পলিটিক্যাল সায়েন্স থেকে গভর্নেন্স অ্যান্ড হিস্ট্রি বিষয়ে স্নাতক অর্জনকারী রাদওয়ান একই প্রতিষ্ঠান থেকে কমপ্যারেটিভ পলিটিক্স বিষয়ে স্নাতকোত্তর করেন। সিআরআই থেকে প্রকাশিত নীতি-নির্ধারণী ম্যাগাজিন হোয়াইট বোর্ডের প্রধান সম্পাদক রাদওয়ান মুজিব। তার হাত ধরে গড়ে ওঠা তরুণদের সর্ববৃহৎ প্লাটফর্ম ইয়াং বাংলার সদস্য হয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও। তার হাত ধরেই দেশের নীতি-নির্ধারকদের সঙ্গে নিয়মিত আলোচনায় বসে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা করতে পারছে তরুণ প্রজন্ম।

২০০৮ সালের জুন মাসে শেখ হাসিনাকে সামরিক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের কারাগার থেকে মুক্ত করার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছিলেন তার ছোট বোন শেখ রেহানা ও ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়। ২০০৭ সালে শেখ হাসিনা যখন গ্রেপ্তার হন তখন লন্ডনে তীব্র আন্দোলন গড়ে উঠলে রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিক ববি ‘ফ্রস্ট অব দ্য ওয়ার্ল্ড’-খ্যাত স্যার ডেভিডকে যে সাক্ষাৎকার দেন, যা বিশ্বব্যাপী জনমত তৈরিতেও বড় ভূমিকা রাখে।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

অস্ট্রেলিয়ায় নেমেসিসের তিন কনসার্ট

নানা আয়োজনে বাগেরহাটে কবি রুদ্রের মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

তীব্র গরমে সৌদিতে এক হাজারের বেশি হজযাত্রীর মৃত্যু

এবার পাকিস্তান অধিনায়কের বিরুদ্ধে ম্যাচ ফিক্সিংয়ের অভিযোগ

তারা সুতারিয়ার স্বপ্ন

উজানের পানিতে গাইবান্ধায় নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত

নেত্রকোনায় পানিতে ডুবে মাদ্রাসা শিক্ষার্থীর মৃত্যু

সড়ক দুর্ঘটনায় লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ইরান আহত 

‘জামায়াতের সর্বস্তরের জনশক্তি বন্যার্তদের পাশে রয়েছে’ 

ড. মোহাম্মদ বদরুজ্জামান ভূঁইয়ার নিবন্ধ / ‘প্রতিবেশী কূটনীতিতে বাংলাদেশ’

১০

যার ওপর বাংলাদেশ দাঁড়িয়ে

১১

বাংলাদেশের অর্থনীতি যেন ‘কৈ মাছের প্রাণ’

১২

চট্টগ্রামে পাহাড়ি ঝরনা থেকে পড়ে পর্যটক আহত

১৩

‘প্রধানমন্ত্রী এবার কী নিয়ে আসেন, জনগণ তা দেখার প্রতীক্ষায়’

১৪

বন্যা থেকে সিলেটবাসীকে রক্ষা করতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ : পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী

১৫

এবার মানব বীর্যে মাইক্রোপ্লাস্টিকের উপস্থিতি শনাক্ত

১৬

সাংবাদিক মুজাহিদ মসির বিরুদ্ধে হয়রানি মামলা, তদন্তে মন্ত্রিপরিষদের নির্দেশনা

১৭

বগুড়ায় নারী চিকিৎসকের আত্মহত্যা

১৮

রাসেল ভাইপার দেখলে যোগাযোগ করবেন যেসব নাম্বারে

১৯

জামিনে কারামুক্ত যুবদলের সাবেক সভাপতি নিরব

২০
X