কালবেলা প্রতিবেদক
প্রকাশ : ২৮ জুলাই ২০২৩, ০৬:৪৮ পিএম
আপডেট : ২৮ জুলাই ২০২৩, ০৭:১৮ পিএম
অনলাইন সংস্করণ
শান্তি সমাবেশে

জিয়াউর রহমানের মরণোত্তর বিচার দাবি

বায়তুল মোকাররমের দক্ষিণ ফটকে যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক ও ছাত্রলীগ লীগের যৌথ আয়োজনে শান্তি সমাবেশ। ছবি : সংগৃহীত
বায়তুল মোকাররমের দক্ষিণ ফটকে যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক ও ছাত্রলীগ লীগের যৌথ আয়োজনে শান্তি সমাবেশ। ছবি : সংগৃহীত

বিএনপি প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের শাসনামলে অন্যায়ভাবে ও বিনা বিচারে ফাঁসি দেওয়া সেনা, নৌ ও বিমানবাহিনীর সদস্যদের পরিবারের সংগঠন ‘মায়ের কান্না’র আহ্ববায়ক কামরুজ্জামান লেলিন সেসময়ের স্মৃতিচারণ করে সব সামরিক কর্মকর্তার হত্যার দায়ে জিয়াউর রহমানের মরণোত্তর বিচার দাবি করেন।

শুক্রবার (জুলাই) বায়তুল মোকাররমের দক্ষিণ ফটকে যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক ও ছাত্রলীগ লীগের যৌথ আয়োজনের শান্তির সমাবেশে এসব কথা বলেন তিনি।

লেলিন বলেন, জাপানের রেড আর্মি ১৯৭৭ সালে বিমান হাইজ্যাক করে নিয়ে আসে। সেই বিমানকে ঢাকা বিমান বন্দরে অবতরণের অনুমতি দিয়েছিল জিয়াউর রহমান। জিয়া সামরিক অভ্যুত্থানের নামে নাটক করেছিল। সামরিক কর্মকর্তাদের এক মিনিটের নাটক করে প্রহসনের বিচার করেছিল। প্রায় ১৪০০ সামরিক কর্মকর্তাকে হত্যা করেছিল।

উপস্থিত ছাত্রলীগ, যুবলীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের সকলকে একাত্মতা প্রকাশ করে জিয়ার মরণোত্তর বিচার দাবি করে লেলিন বলেন, এই খুনি জিয়ার মরণোত্তর বিচার দাবি করি। তৎকালীন সামরিক শাসক জিয়াউর রহমান এক প্রহসনের বিচার করেছিল। জিয়ার অপরাধের বিচারের পথে সেই বিএনপিই এখন ন্যায়বিচারের পথে প্রধান বাধা।

বাংলাদেশে বিচারহীনতার সংস্কৃতি থেকে বের হয়ে এসেছে উল্লেখ করে লেলিন বলেন, এই দেশে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার হয়েছে, বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার হয়েছে, জেলহত্যার বিচার হয়েছে, ১৯৭৭ সালে খুনি জিয়া যে ১ হাজার ৪০০ সামরিক কর্মকর্তাদের হত্যা করেছিল তার মরণোত্তর বিচার দাবি করছি।

মায়ের কান্না সংগঠন সূত্রে জানা গেছে, ১৯৭৭ সালে জিয়াউর রহমানের সময় ঢাকার কেন্দ্রীয় কারাগারে ফাঁসি কার্যকর হওয়া ১২১ জন, কুমিল্লায় ৭২ জন, বগুড়ায় ১৬ জন এবং রংপুরে সাতজন সামরিক কর্মকর্তাকে ফাঁসি দেওয়া হয়। বিমানবাহিনীর ৫৬১ জন নিখোঁজ হয়। এমনকি ঘটনার দিন যারা ছুটিতে ছিলেন তাদেরও ফাঁসি দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

অফশোর গ্যাস উত্তোলনে বিদেশি বিনিয়োগ চান প্রধানমন্ত্রী

বাকস্বাধীনতা না থাকলে ভাষা থেকেও লাভ হয় না : আনোয়ারউল্লাহ চৌধুরী

‘ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে জ্বালানিতে অতিরিক্ত খরচ ১২ বিলিয়ন ডলার’

৪৫ এর কম এবং ৬৫ এর বেশি বয়সে ব্যাংকের এমডি পদ নয়

শাবিতে জাতীয় পরিসংখ্যান দিবস পালিত

বইমেলায় রাশিদুল হাসান বাচ্চুর ‘ওয়াকিং অন দি পাথ অব পোয়েট্রি’

শেষ সময়ে বইমেলার নিরাপত্তায় ঢিলেঢালা

বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির সিদ্ধান্ত বাতিল চান সাইফুল হক 

জাবির দুই শিক্ষার্থীর বহিষ্কারাদেশ বাতিলের দাবি

শিশু চুরির মামলায় দুই নারীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

১০

বিআরটিসি যেন আর পিছিয়ে না যায় : তাজুল ইসলাম

১১

ঢাবির নাটমণ্ডলে মঞ্চায়িত হচ্ছে থিয়েটার বিভাগের নাটক ‘সিদ্ধান্ত’

১২

টিআইবির ফেলোশিপ পেলেন সাংবাদিক সজিবুর রহমান

১৩

রংপুরে এরিক ও বিদিশার ওপর হামলার অভিযোগ

১৪

বইমেলার সময় বাড়ল

১৫

রিহ্যাব নির্বাচনে ব্যবসায়ী ঐক্য পরিষদের নিরঙ্কুশ জয়

১৬

৬ মাস বিশ্ববাজারে পেট্রোল বিক্রি করবে না রাশিয়া

১৭

ফরিদপুরে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, আহত ২০

১৮

গাধা বেচবে চিড়িয়াখানা

১৯

রাজধানীতে ৬ স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা

২০
X