কালবেলা প্রতিবেদক
প্রকাশ : ১২ জুন ২০২৩, ০৫:৪৯ পিএম
অনলাইন সংস্করণ

জামায়াতকে সমাবেশের অনুমতি দিতে সরকার বাধ্য হয়েছে : গয়েশ্বর

স্বাধীনতা ঐক্য পরিষদের উদ্যোগে এক আলোচনা সভায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়।
স্বাধীনতা ঐক্য পরিষদের উদ্যোগে এক আলোচনা সভায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়।

মার্কিন ভিসা নীতির কারণে সরকার জামায়াতকে সমাবেশের অনুমতি দিতে বাধ্য হয়েছে বলে দাবি করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়।

সোমবার (১২ জুন) দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৪২তম শাহাদাতবার্ষিকী উপলক্ষে স্বাধীনতা ঐক্য পরিষদের উদ্যোগে এক আলোচনা সভায় এ দাবি করেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাম্প্রতিক এক বক্তব্যের প্রসঙ্গ টেনে গয়েশ্বর রায় বলেন, গত ২৪ মে যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশের জন্য ভিসা নীতি ঘোষণা করেছে। এরপর ক্ষমতাসীন দলের পক্ষ থেকে নানা বক্তব্য গণমাধ্যমে আসছে। গত ১০ জুন রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে জামায়াতের সমাবেশের অনুমতি দেওয়া নিয়েও নানা কথা-বার্তা, আলোচনা হচ্ছে। আসলে ভিসা নীতির কারণে সরকার জামায়াতকে সমাবেশ করার অনুমতি দিতে বাধ্য হয়েছে।

তিনি বলেন, জামায়াত রাজনীতি করবে-এটাই তো স্বাভাবিক। কিন্তু এতদিন জামায়াত কেন রাজনীতি করতে পারেনি, সেটাই তো প্রশ্ন হওয়া উচিত। এখন কেন সরকার অনুমতি দিল। এ অনুমতি দিয়ে সরকার বুঝাইতে চাইল-সরকারের সঙ্গে তাদের আঁতাত হয়েছে- কেউ কেউ এ কথা বলছেন। আসলে সরকার জামায়াতকে অনুমতি দিতে বাধ্য হয়েছে। এক ভিসা নীতির কারণে সরকারের সবাই প্রেসার মাপতেছে; সুগার পরীক্ষা করছে। সবকিছুর তো শেষ আছে।

এ সময় গত সাড়ে ১৪ বছরে ক্ষমতাসীন সরকারের আমলে গুম, খুন দুর্নীতির প্রসঙ্গ টেনে কথাও বলেন গয়েশ্বর। তিনি বলেন, গুম, খুন, হামলা, মামলা এবং দুর্নীতির সঙ্গে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হয়তো ২-৩ শতাংশ সদস্য জড়িত থাকতে পারে। দুর্নীতি অপকর্মের সঙ্গে সচিবালয়ের হয়তো একই অবস্থা। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী এবং আমলাদের বেশিরভাগই ভালো; তারা তো সরকারের কোনো অপকর্মের দায়ভার নেবে না।

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকার ‘নিরাপদ প্রস্থান’ চাইলে একটিমাত্র পথ খোলা আছে বলে মন্তব্য করেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির এ সদস্য। সরকারের উদ্দেশে তিনি বলেন, এই সরকারকে যেতে হবে। নিরাপদ প্রস্থান? এই সরকারের নিরাপদে প্রস্থান করতে চাইলে একটিমাত্র পথ খোলা আছে। তা হচ্ছে জনগণের মালিকানা জনগণের হাতে ফেরত দিতে হবে, তাদের ভোটাধিকার তাদের কাছে ফেরত দিতে হবে; জনগণের ১০ দফা মেনে নিতে হবে।

সংলাপের প্রসঙ্গ টেনে গয়েশ্বর রায় বলেন, সরকারের মন্ত্রী-এমপি এবং তাদের নেতারা সংলাপ সংলাপ করছে। সংলাপ হতে পারে। কিন্তু তার আগে ১০ দফা মেনে নিতে হবে। এরপর নির্বাচনকালীন নির্দলীয় নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা নিয়ে সংলাপ হতে পারে। চলমান আন্দোলনের প্রসঙ্গ টেনে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল বলেন, আমরা শুধু অধিকার আদায়ের জন্য লড়াই করছি না। এই লড়াই আমাদের অস্তিত্বের লড়াই। বাংলাদেশের অস্তিত্বের প্রশ্নে আমরা কোনোদিন আপস করব না এই সরকারের সঙ্গে। এই অস্তিত্বের লড়াই করতে যে যেখানেই আছেন বা যেই পরিচয়েই আছেন তারা আমাদের বন্ধু।

আলাল বলেন, কিছুদিন আগেও আমরা সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রীর মুখে শুনেছি জামায়াতে ইসলামী নিষিদ্ধ। সে অবস্থার মধ্যে জামায়াতের সঙ্গে এমন কী হলো বা এমন কোনো গোপন চুক্তি হলো যে, জামায়াতকে কর্মসূচি পালন করতে দেওয়া হলো। যাই হোক, আমরা এতে খুশি। কারণ ডাকাত তাড়াতে যারাই আমাদের সঙ্গে থাকবে তারাই আমাদের বন্ধু। হোক সেটা জামায়াত, হোক সেটা কমিউনিস্ট বা অন্য কোনো দল। আর জামায়াত লড়াই করছে তাদের অধিকারের জন্য।

স্বাধীনতা ঐক্যপরিষদের আহ্বায়ক ড. কাজী মনিরুজ্জামান মনিরের সভাপতিত্বে এতে আরও বক্তব্য দেন বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা আবু নাসের মো. রহমাতুল্লাহসহ অনেকে। পরে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের পক্ষ থেকে গুম হওয়া পরিবারকে আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

পিরোজপুরে ছেলের হাতে মা খুন

বগুড়ায় প্রাইভেটকার-ট্রাক মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ২

মাদকের ২ হাজার টাকার জন্য শিশু অপহরণ, গ্রেপ্তার ৪

কর্ণফুলী পেপার মিলসে আগুন

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ফুটবল খেলা নিয়ে দুপক্ষের সংঘর্ষ

মেসির সাথে আলোচিত সেই ছবি নিয়ে যা বললেন ইয়ামাল

উয়েফার নতুন ক্লাব র‌্যাঙ্কিং প্রকাশ, শীর্ষে কোন ক্লাব?

সকাল ৯টার মধ্যে ঝড় শুরু হতে পারে রাজধানীসহ যেসব অঞ্চলে

কোটা ইস্যুতে শাহবাগে এবার পাল্টা কর্মসূচি

নেস্তোর লরেঞ্জো, আর্জেন্টাইনদের প্রিয় শত্রু

১০

রাশিয়ায় যাত্রীবাহী বিমান বিধ্বস্ত, সব আরোহী নিহত

১১

হঠাৎ চাকরি ছাড়লেন ৬ বিসিএস ক্যাডার

১২

চ্যানেল২৪’র অনুসন্ধান / ৪৬তম বিসিএসের প্রিলির প্রশ্নও ফাঁস হয়েছিল

১৩

গর্ভবতী ও নবজাতক মায়েদের জন্য টগুমগু

১৪

এবার জিআই পণ্যের স্বীকৃতি পেল গোপালগঞ্জের গয়না

১৫

কোটা সংস্কার আন্দোলন / রাজশাহীতে ৪ ঘণ্টা পর সারাদেশের রেল যোগাযোগ সচল

১৬

ফুটবল টুর্নামেন্টে সংঘর্ষ, আহত ২

১৭

কোটা আন্দোলনকারীদের ওপর হামলার প্রতিবাদে জাবিতে মশাল মিছিল

১৮

মানিকগঞ্জে বাসচাপায় পথচারী নিহত

১৯

টেঁটার ফলায় বিদ্ধ রকিবের আইনজীবী হওয়ার স্বপ্ন

২০
X