সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩১
কালবেলা প্রতিবেদক
প্রকাশ : ১০ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৯:৩৯ পিএম
অনলাইন সংস্করণ

মানবাধিকার রক্ষায় কমিশন ভূমিকা রাখতে পারেনি : গণতন্ত্র মঞ্চ

গণতন্ত্র মঞ্চের মানববন্ধনে বক্তব্য রাখছেন সাইফুল হক। ছবি : কালবেলা

বাংলাদেশে মানবাধিকার কমিশনের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে গণতন্ত্র মঞ্চ। মঞ্চের অন্যতম শীর্ষ নেতা ও বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক বলেছেন, প্রতিদিন দেশের নাগরিকদের মানবাধিকার লঙ্ঘন হচ্ছে। বিশেষ করে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী মানবাধিকার লঙ্ঘন করে গণতান্ত্রিক অধিকার হরণ করছে। কিন্তু বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন তাদের বিরুদ্ধে কোনো তদন্ত করার ক্ষমতা রাখে না। এই কমিশন কোনো কার্যকর ভূমিকা রাখতে পারেনি। এই ধরনের কমিশন দেশের মানুষ আর দেখতে চায় না।

আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবসে রোববার (১০ ডিসেম্বর) দুপুরে কাওরানবাজারে মানবাধিকার কমিশনের কার্যালয়ের সামনে গণতন্ত্র মঞ্চের মানববন্ধন কর্মসূচিতে তিনি এসব কথা বলেন।

নাগরিক ঐক্যের সভাপতি মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন অনেকগুলো বছর ধরে কাজ করছে। কিন্তু কী কাজ করে তারা? নেপাল, ভুটানের মতো দেশ মানবাধিকারে ‘এ’ শ্রেণিতে উন্নীত হয়েছে। আমরা এতগুলো বছর ধরে ‘বি’ শ্রেণি থেকে উপরে যেতে পারি না। রাজনৈতিক দলের সভা-সমাবেশ পুলিশ পণ্ড করে দেয়, গ্রেপ্তার করে নিয়ে যায়। আর আমাদের মানবাধিকার কমিশন কী করে?

ক্ষমতাসীন দলের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আপনারা যদি মনে করেন এই ভুয়া ভোট করে, জাল ভোট করে ক্ষমতায় থাকবেন। তাহলে এই নির্বাচন আপনাদেরকে নির্বাসনে পাঠাবে।’

সভাপতির বক্তব্যে গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি বলেন, ‘আগামী ৭ জানুয়ারির নির্বাচনে কোনো দেশপ্রেমিক মানুষ ভোট দিতে পারে না। ঐক্যবদ্ধ হোন, রাজপথের দখল নিন। তারা তফসিল, নির্বাচন বন্ধ করতে বাধ্য হবে। অপেক্ষা করেন, বেশি সময় নেই। এই সরকারকে মানুষ ধাওয়া করবে। তখন আর পালানোর পথ পাবে না। আমরাও তাদের ধাওয়া করব।’

ভাসানী অনুসারী পরিষদের আহ্বায়ক শেখ রফিকুল ইসলাম বাবলু বলেন, ধারাবাহিকভাবে দেশে মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা ঘটছে। রাজনৈতিক দমন-পীড়নের মধ্য দিয়ে সরকার ফের একতরফা নির্বাচনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। দেশবাসীকে জেগে উঠতে হবে, একতরফা নির্বাচন প্রতিহত করতে হবে।

গণসংহতি আন্দোলনের রাজনৈতিক পরিষদের সদস্য মনির উদ্দীন পাপ্পুর সঞ্চালনায় মানববন্ধনে আরও বক্তব্য দেন ভাসানী অনুসারী পরিষদের হাবিবুর রহমান রিজু, রাষ্ট্র সংস্কার আন্দোলনের হাসনাত কাইয়ূম, প্রীতম দাশ, জেএসডির শহীদ উদ্দীন মাহমুদ স্বপন, সিরাজ মিয়া, নাগরিক ঐক্যের সাধারণ সম্পাদক শহীদুল্লাহ কায়সার, বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির আনসার আলী দুলাল, গণসংহতি আন্দোলনের বাচ্চু ভূইয়া, বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির আকবর খান প্রমুখ।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

মোঘল স্থাপত্য : বজরা শাহী মসজিদ

৩১ হাজার ইউক্রেনীয় সেনা হারিয়েছে জেলেনস্কি

নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির নির্বাচনে বিজয়ী হলেন যারা

যবিপ্রবির ৩ প্রশাসনিক পদে রদবদল

জ্বর থেকে দ্রুত মুক্তি পেতে ভুলেও খাবেন না এসব খাবার

ছেলের বিরুদ্ধে বাবাকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

অবশেষে ব্রাজিলের হেক্সা মিশন সফল

রংপুরে ৫ গ্রামের মানুষের ভরসা বাঁশের সাঁকো

পোস্তগোলা সেতু পুরোদমে বন্ধ

তিস্তার চরে চাষ করা ফসলের বাম্পার ফলন

১০

নিয়োগ দিচ্ছে বিআইডব্লিউটিএ, বেতন ৬৭ হাজার

১১

সুন্নাতে খতনার উপকারিতা ও বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা

১২

কেমন থাকবে আজকের আবহাওয়া

১৩

রাজশাহী মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে চাকরি, আবেদন করবেন যেভাবে

১৪

ব্র্যাক এনজিওতে নিয়োগ, নেই বয়সসীমা

১৫

সোমবার রাজধানীর যেসব এলাকায় যাবেন না

১৬

কী ঘটেছিল ইতিহাসের এই দিনে

১৭

২৬ ফেব্রুয়ারি : নামাজের সময়সূচি

১৮

পরীক্ষাকেন্দ্রে প্রবেশ করায় যুবকের কারাদণ্ড

১৯

‘সৃষ্টিকর্তার যে কাজ অপছন্দ, ইবলিশ তা সবচেয়ে বেশি পছন্দ করে’

২০
X