কালবেলা ডেস্ক
প্রকাশ : ১২ জুন ২০২৩, ০৩:৩৫ এএম
অনলাইন সংস্করণ

পাল্টা আক্রমণে ৩ গ্রাম পুনর্দখলের দাবি ইউক্রেনের

পাল্টা আক্রমণে ৩ গ্রাম পুনর্দখলের দাবি ইউক্রেনের

রাশিয়ার অধিকৃত দক্ষিণ-পূর্ব দোনেৎস্কের তিনটি গ্রাম পুনর্দখলের দাবি করেছে ইউক্রেন। চলতি সপ্তাহে পাল্টা আক্রমণ শুরুর পর রুশ সেনাদের কাছ থেকে মুক্ত করা প্রথম এলাকা এই তিন গ্রাম।

একটি ভিডিওতে দেখা যায়, দোনেৎস্কের ব্লাহোদাত্ন গ্রামের যুদ্ধবিধ্বস্ত একটি ভবনে ইউক্রেনের সশস্ত্র বাহিনী তাদের দেশের পতাকা উত্তোলন করছে। এ ছাড়া ব্লাহোদাত্নের পাশের গ্রাম নেস্কুচনে সেনারা তাদের ইউনিটের পতাকা নিয়ে অবস্থান নিয়েছে। তবে এ ভিডিও যাচাই করতে পারেনি রয়টার্স।

ইউক্রেনের ‘তাভরিয়া’ সামরিক সেক্টরের মুখপাত্র ভ্যালেরি শেরশেন বলেন, ‘আমরা পাল্টা আক্রমণের প্রথম ফলাফল দেখতি পাচ্ছি।’

পৃথক আরেক বিবৃতিতে ইউক্রেনের উপপ্রতিরক্ষামন্ত্রী হান্না মালিয়ার বলেন, ইউক্রেনের সেনাবাহিনী মাকারিভকা নামে আরেকটি গ্রাম পুনর্দখল করে দক্ষিণের দুই দিকে ৩০০ থেকে ১৫০০ মিটার অগ্রসর হয়েছে।

এ ছাড়া ইউক্রেনের বাহিনী যে দিকে প্রতিরক্ষামূলক অবস্থানে আছে সেদিকে কোনো জায়গা বেদখল হয়নি বলেও যোগ করেন তিনি।

রাশিয়ার দখল করা পূর্ব ও দক্ষিণ অঞ্চল পুনর্দখলে বহুল প্রতিক্ষিত পাল্টা আক্রমণ শুরুর কথা গতকাল শনিবার জানান প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। তিনি জানান, পাল্টা আক্রমণ ও প্রতিরক্ষামূলক অভিযান চলছে।

তবে গত শুক্রবারই রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন জানিয়েছিলেন, ইউক্রেনের পাল্টা আক্রমণ চলমান। তবে এখন পর্যন্ত এটি রাশিয়ার প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা লঙ্ঘন করতে ব্যর্থ হয়েছে। এমনকি পাল্টা আক্রমণে তাদের ব্যাপক হতাহত হয়েছে।

ইউক্রেনীয় সশস্ত্র বাহিনী বাখমুত শহরের কাছে হামলা চালিয়ে যাচ্ছে এবং তারা বার্খিভকা জলাধারের দিকে ২৫০ মিটার অগ্রসর হয়েছে বলে বিবৃতিতে জানান ইউক্রেনের উপপ্রতিরক্ষামন্ত্রী হান্না মালিয়ার। গত মাসে বাখমুত শহর দখল সম্পন্ন করে রাশিয়া।

এদিকে জার্মানির তৈরি চারটি লেপার্ড ট্যাংক ও যুক্তরাষ্ট্রের তৈরি পাঁচটি ব্র্যাডলি যুদ্ধযান ধ্বংস করায় সেনাদের পুরস্কৃত করেছে রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়। রাশিয়ার অধিকৃত অঞ্চল পুনর্দখলে পাল্টা আক্রমণে পশ্চিমাদের দেওয়া এসব ট্যাংক ও যুদ্ধযান ব্যবহার করেছিল ইউক্রেন।

গতকাল শনিবার সেনাদের দেশটির সর্বোচ্চ সামরিক পদক ‘হিরো অব রাশিয়া গোল্ড স্টার’ পদক দেন রুশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শোইগু। এই সেনারা ওই সব ট্যাংক ও যুদ্ধযান ধ্বংসের দাবি করেছিলেন।

সূত্র : রয়টার্স

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

নসিমন-মোটরসাইকেল সংঘর্ষে নিহত ২

২৮ ফেব্রুয়ারি : কী ঘটেছিল ইতিহাসের এই দিনে

বুধবার রাজধানীর যেসব এলাকায় যাবেন না

২৮ ফেব্রুয়ারি : নামাজের সময়সূচি

কর্ণফুলী নদীতে ৩ দিন বন্ধ থাকবে ফেরি চলাচল

মিয়ানমার সীমান্ত এখন শান্ত, ফের গোলাগুলি শুরুর আশঙ্কায় আতঙ্ক

বোনাস দাবিতে সার কারখানা শ্রমিকদের মানববন্ধন

সিলেটে পরিবহন শ্রমিকদের অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট শুরু আজ

হাসপাতালে রেখে তরুণ-তরুণী উধাও, ছোটমণি নিবাসে ঠাঁই হলো নবজাতকটির

চট্টগ্রামে শাস্তির মুখে ৮ ল্যাব-হাসপাতাল

১০

এবার বাড়ছে সব ধরনের ছোলা ও ডালের দাম

১১

বিধবা মেয়েকে নিয়ে ঢাকায় যাওয়ার পথে চলন্ত ট্রেনে বাবার মৃত্যু

১২

দুই সন্তানের জননীকে নিয়ে ‘উধাও’ ইউপি সদস্য

১৩

স্বামী কারাগারে, সন্তান ফেলে উধাও গৃহবধূ

১৪

বেসরকারি ৩ ক্লিনিককে দেড় লাখ টাকা জরিমানা

১৫

আগুনে পুড়ে দাদি-নাতির মৃত্যু

১৬

আমতলী পৌরসভা নির্বাচন / আচরণবিধি ভঙ্গ করে মিছিল, মেয়র প্রার্থীর সমর্থককে সাজা

১৭

স্কুলের সামনে ছাত্রীদের ইভটিজিং, অতঃপর...

১৮

নারায়ণগঞ্জে ৬ স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা, জরিমানা

১৯

সিলেটে উদ্ধার হওয়া মর্টার শেল নিষ্ক্রিয় করল সেনাবাহিনী

২০
X