কালবেলা প্রতিবেদক
প্রকাশ : ২৮ মে ২০২৪, ১১:৫৬ পিএম
অনলাইন সংস্করণ

উদ্ভাবন ছাড়া টেকসই উন্নয়ন সম্ভব নয় : ঢাবি উপাচার্য

ঢাবিতে ‘৮ম আরবান ডায়ালগ-২০২৪’ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল। ছবি : কালবেলা
ঢাবিতে ‘৮ম আরবান ডায়ালগ-২০২৪’ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল। ছবি : কালবেলা

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল বলেছেন, উদ্ভাবন ছাড়া টেকসই উন্নয়ন সম্ভব নয়। টেকসই উদ্ভাবনের ক্ষেত্রে গবেষণা কার্যক্রম পরিচালনার জন্য সংশ্লিষ্টদের পারস্পরিক সহযোগিতা ও অংশীদারিত্ব বৃদ্ধি করতে হবে।

মঙ্গলবার (২৮মে) বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে অনুষ্ঠিত ‘৮ম আরবান ডায়ালগ-২০২৪’ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ‘স্বল্পোন্নত দেশ (এলডিসি) থেকে উত্তরণের পথে টেকসই নগরায়ন’ শীর্ষক মূল প্রবন্ধ উপস্থাপনকালে উপাচার্য এসব কথা বলেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিজাস্টার সায়েন্স অ্যান্ড ক্লাইমেট রেজিলিয়েন্স বিভাগ এবং আরবান আইএনজিও ফোরাম বাংলাদেশ-এর যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত ‘৮ম আরবান ডায়ালগ-২০২৪’ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন।

অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের চ্যালেঞ্জসমূহ মোকাবিলার মাধ্যমে পরিকল্পিতভাবে নগর উন্নয়নের লক্ষ্যে গবেষক, স্টেকহোল্ডারস, সিটি করপোরেশন, এনজিও, সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, নীতিনির্ধারকসহ সংশ্লিষ্টদের সমন্বিতভাবে কাজ করতে হবে।

তিনি বলেন, জলবায়ু পরিবর্তন এখন মানবজাতির জন্য সবচেয়ে বড় হুমকি। এর কারণে দরিদ্র দেশগুলোসহ আমাদের মতো উন্নয়নশীল দেশগুলো সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। ঢাকা ও এর আশপাশের এলাকা বিশেষ করে নদীগুলো ও জলাধার প্রতিনিয়ত আমারা নানাভাবে দূষণ করছি। এর ফলে ডেঙ্গু, চিকুনগুনিয়াসহ বিভিন্ন মহামারি রোগে আক্রান্ত হচ্ছি। ঢাকা মহানগরীকে পরিবেশবান্ধব নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে এর জলাধার ও নদীগুলোর প্রাণ ফিরিয়ে আনতে হবে, পর্যাপ্ত বৃক্ষরোপণ ও সবুজায়ন করতে হবে, জীব-বৈচিত্র্যগুলো সংরক্ষণে এবং বায়ুদূষণ রোধে সকলকে সচেতন হতে হবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ে বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদনের উদ্যোগের বিষয়ে জানিয়ে উপাচার্য বলেন, বিশ্বের অনেক বিশ্ববিদ্যালয় তাদের নিজস্ব বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদন করে। নবায়নযোগ্য জ্বালানির এ যুগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়েও এ ধরনের কর্মকাণ্ড হওয়া উচিত। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিটি হলের সামনে বিভিন্ন রকমের ডাস্টবিন রাখা হবে। ময়লার ধরনের ওপর ভিত্তি করে এসব ডাস্টবিনে বর্জ্য ফেলবেন শিক্ষার্থীরা। পরবর্তীতে এসব বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদনের উদ্যোগ নেওয়া হবে। আপাতত এটিকে পাইলট প্রজেক্ট হিসেবে নেওয়ার চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে। এ প্রজেক্ট বাস্তবায়নে সিটি করপোরেশন ও বিভিন্ন এনজিওর সহযোগিতা প্রয়োজন।

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, করোনা মহামারি, জলবায়ু পরিবর্তন এবং বিভিন্ন দেশে চলমান যুদ্ধের কারণে উন্নয়নশীল ও দরিদ্র দেশগুলো সার্বিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। কার্বন নিঃসরণ ও জলবায়ু পরিবর্তনের জন্য উন্নত দেশগুলোই প্রধানত দায়ী, এজন্য তাদেরই দায়ভার নিতে হবে এবং দরিদ্র দেশগুলোকে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। আমাদের পরিবেশ দূষণের জন্য আমরা নিজেরাও অনেকটা দায়ী।

ঢাকা মহানগরী বিশ্বের সবচেয়ে ঘনবসতিপূর্ণ নগরীর একটি উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমরা নানাভাবে এই মহানগরীর পরিবেশ দূষণ করছি। সুনাগরিক হিসেবে পরিবেশ সংরক্ষণে সকলকে সচেতন হতে হবে এবং জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে উদ্বৃত চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় সম্মিলিতভাবে কাজ করতে হবে।

উল্লেখ্য, শিক্ষক, গবেষক, শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের বিশেষজ্ঞ ও প্রতিনিধিরা এই সংলাপে অংশগ্রহণ করেন।

হেবিট্যাট ফর হিউম্যানিটি ইন্টারন্যাশনাল, বাংলাদেশের ন্যাশনাল ডিরেক্টর জেমস্ স্যামুয়েল-এর সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন গ্লোবাল ওয়ান, বাংলাদেশ-এর কান্ট্রি ম্যানেজার রায়হান মাহমুদ কাদেরী, কনসার্ন ওয়াল্ডওয়াইড, বাংলাদেশ-এর কান্ট্রি ডিরেক্টর মনিষ কুমার আগ্রাওয়াল এবং ব্র্যাক-এর কান্ট্রি ডিরেক্টর ড. লিয়াকত আলী।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

গরম নিয়ে আবহাওয়া অফিসের নতুন বার্তা

ইউরো ২০২৪ / ডাচদের হারিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েই শেষ ষোলোতে অস্ট্রিয়া

সিলেটে ৮ লাখ টাকার চিনিসহ ট্রাক জব্দ

সিলেটে বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি, বাড়ছে নানা রোগবালাই

জাবির সাবেক উপাচার্য মারা গেছেন

চিকিৎসকদের অবহেলায় সাপে কাটা রোগীর মৃত্যুর অভিযোগ

খালেদা জিয়ার আরোগ্য কামনায় যুবদলের দোয়া মাহফিল

ট্রাক্টরচাপায় প্রাণ গেল দুজনের

চাঁদা চাওয়ায় কাস্টমসের কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ব্যবসায়ীর মামলা

এবার সিরাজগঞ্জে মিলল রাসেল ভাইপারের বাচ্চা, এলাকায় আতঙ্ক

১০

এআইইউবি ও ফিলিস্তিনের শিক্ষার্থীদের মধ্যে প্রীতি ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত

১১

সিলেটে তরুণীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ

১২

১৫ লাখ টাকার একটি খাসি, কেড়ে নিল লাকীর হাসি

১৩

বিশ্বকে মহাবিপদ থেকে বাঁচাতে যে সতর্কবার্তা দিল তুরস্ক

১৪

হত্যা নাকি মৃত্যু, দেড় মাস পর কিশোরের লাশ উত্তোলন

১৫

কীসের বিনিময়ে মুক্তি পেলেন জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জ?

১৬

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নৈশপ্রহরী হত্যা, দুজনের যাবজ্জীবন

১৭

খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় দোলাইপাড়ে বিএনপির দোয়া মাহফিল

১৮

সরকারি কর্মকর্তাদের দুর্নীতি নিয়ে সংসদে ক্ষোভ

১৯

স্মার্ট নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে ছাত্রলীগের প্রতি আহ্বান পলকের

২০
X