মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি
প্রকাশ : ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:৩৮ পিএম
আপডেট : ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ১০:৩৭ এএম
অনলাইন সংস্করণ

আওয়ামীলীগের দুই গ্রুপের গোলাগুলি, গুলিবিদ্ধ ৭

সংঘর্ষের পর ঘটনাস্থল পরিদর্শনে পুলিশ। ছবি : কালবেলা
সংঘর্ষের পর ঘটনাস্থল পরিদর্শনে পুলিশ। ছবি : কালবেলা

আধিপত্য বিস্তার ও বিয়ে বাড়িতে হামলার জেরে আওয়ামীলীগের দুই গ্রুপের গোলাগুলি ও ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার মোল্লাকান্দিতে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় গুলিবিদ্ধসহ ৭ জন আহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে সদরের মোল্লাকান্দি ইউনিয়নের ঢালীকান্দি গ্রামে ৪ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য সুমা আক্তার ও ৭, ৮ ও ৯ নম্বর ওয়ার্ডের সংরক্ষিত নারী সদস্য ডলি বেগমের লোকজনের মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

গুলিবিদ্ধ সিফাত (২০) ও ককটেল বিস্ফোরণে আহত আম্বিয়া খাতুনকে (৬০) মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বাকিদের স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেওয়া হয়।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, মোল্লাকান্দি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও সদর উপজেলা আ.লীগের যুগ্ম সম্পাদক রিপন হোসেন পাটোয়ারী এবং সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ও সদর উপজেলা আ.লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক মহসিনা হক কল্পনার মধ্যে বিরোধ চলে আসছিলো। ওই বিরোধের জেরে ঢালীকান্দি গ্রামে বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যানের অনুসারী সংরক্ষিত নারী ইউপি সদস্য ডলি বেগমের সমর্থক বাহারউদ্দিনের বাড়িতে হামলা চালায় প্রতিপক্ষ সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মহসিনা হক কল্পনার অনুসারী ৪ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য সুমা আক্তারের সমর্থিত লোকজন।

সোমবার (১৫ এপ্রিল) বাহারউদ্দিনের ছেলে আশিকের বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে। মঙ্গলবার বিয়ে উপলক্ষে ওই বাড়িতে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এ সময় হামলা চালিয়ে বিয়ে বাড়িতে ব্যাপক ভাংচুর ও লুটপাটের অভিযোগ ওঠে।

পরবর্তীতে বিয়ে বাড়িতে হামলার ঘটনার জেরে উভয় পক্ষের লোকজনের মধ্যে গোলাগুলির সূত্রপাত। এ সময় সেখানে মুহুর্মুহু ককটেল বিস্ফোরণ ঘটে। তবে এ ঘটনার পর উভয় গ্রুপের কাউকে পাওয়া যায়নি। তাই কারও বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ও সদর উপজেলা আ.লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক মহসিনা হক কল্পনা বলেন, আমরা নৌকা করে, আ.লীগ করে বিপদে আছি। বিএনপির চাইতেও খারাপ অবস্থানে আছি। আজ যদি বিএনপি অত্যাচার করতো তাহলে মানতে পারতাম। আমরা কিংবা আমার সমর্থনের কেউই বাড়ি ঘরে থাকতে পারে না। প্রতিনিয়তই ইউপি সদস্য ডলি বেগমের ছেলেরা আমার লোকজনকে হুমকি ধামকি দিচ্ছে। বাড়িঘরে হামলা করছে। এসব ঘটনায় থানায় মামলা পর্যন্ত নিচ্ছে না। বর্তমান চেয়ারম্যানের লোকজন এরুপ ঘটনা ঘটাচ্ছে। আমাদের পিঠ দেয়ালে ঠেকে গেছে।

মোল্লাকান্দি ইউপি চেয়ারম্যান ও সদর উপজেলা আ.লীগের যুগ্ম সম্পাদক রিপন হোসেন পাটোয়ারী ও তার অনুসারীদের ফোনে বিভিন্ন ভাবে যোগাযোগের চেষ্টা করলে তাদের সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার থান্দার খায়রুল হাসান জানান, মূলত, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে সংঘাতের সৃষ্টি হয়। বেশ কয়েকজন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। ঘটনার পর সেখানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

ছয় বছরে দুই পিলার

লজ্জাজনক এ হারের দায় কার?

শান্তিপূর্ণ সমাজ বিনির্মাণে বুদ্ধের শিক্ষা অনুসরণ করা প্রয়োজন : প্রধানমন্ত্রী 

উপজেলা নির্বাচন / দ্বিতীয় ধাপে চেয়ারম্যান হলেন যারা

বুদ্ধ পূর্ণিমা আজ

সাঁকো নির্মাণ নিয়ে বিরোধ, যুবককে কুপিয়ে হত্যা

স্মার্ট বাংলাদেশের অগ্রযাত্রা নিয়ে সভা আজ

বুধবার ঢাকার যেসব এলাকায় যাবেন না

ইতিহাসের এই দিনে স্মরণীয় যত ঘটনা

২২ মে : নামাজের সময়সূচি

১০

অবসরের পরেও চেয়ারে তিনি, ৩ দিনে ৩৪ কোটি টাকার ঘুষ

১১

নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় শিক্ষার্থী নিহত

১২

বিনা টিকিটে ১২ বছর রেল ভ্রমণ, অতঃপর...

১৩

বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে নারী শ্রমিককে যৌন হয়রানি

১৪

ইন্টারন্যাশনাল স্ট্যান্ডার্ড ইউনিভার্সিটির ইংরেজি বিভাগের প্রথম জার্নাল প্রকাশিত

১৫

প্রেসিডেন্সি ইউনিভার্সিটিতে ‘সেমিস্টার ডে ২০২৪’ উদ্‌যাপন

১৬

ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি শ্রাবণের ওপর হামলার অভিযোগ

১৭

খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার খোঁজ নিলেন ফখরুল

১৮

যুক্তরাষ্ট্রের কাছে ধরাশায়ী হলো বাংলাদেশ

১৯

রাজধানীতে বিটিআরসির অভিযান, সরঞ্জামাদি জব্দ

২০
X