বিশেষ প্রতিনিধি
প্রকাশ : ৩০ জুলাই ২০২৩, ০২:২১ পিএম
আপডেট : ৩০ জুলাই ২০২৩, ০২:৫৮ পিএম
অনলাইন সংস্করণ

‘আগুন সন্ত্রাস প্রসঙ্গ হাইকোর্টে আনবেন না, এটা ১৮ কোটি মানুষের কোর্ট’

হাইকোর্ট। ছবি : সংগৃহীত
হাইকোর্ট। ছবি : সংগৃহীত

হেফাজতের তাণ্ডবের ঘটনায় ২০১৩ সালে রাজধানীর শাহবাগ থানায় দায়ের করা এক মামলায় প্রতিবেদন দাখিলের জন্য দুই মাস সময় দিয়েছেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে এ মামলায় বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব আসলাম চৌধুরীর জামিন শুনানি দুই মাস মুলতবি করা হয়েছে।

রোববার (৩০ জুলাই) বিচারপতি মো. মোস্তফা জামান ইসলাম ও বিচারপতি মো. আমিনুল ইসলামের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। শুনানিকালে আগুন সন্ত্রাস প্রসঙ্গ আদালতে তুলে ধরার চেষ্টা করেন রাষ্ট্রপক্ষের এক আইনজীবী। তার জবাবে আদালত বলেছেন, ‘আগুন সন্ত্রাস প্রসঙ্গ হাইকোর্টে আনবেন না, এটা ১৮ কোটি মানুষের কোর্ট।’

শুনানির শুরুতে রাষ্ট্রপক্ষের আইন কর্মকর্তা অতিরিক্ত জেনারেল এস এম মুনীর আদালতকে বলেন, এ মামলায় অনেক আসামি আছেন, তাদের তথ্য সংগ্রহের জন্য সময় প্রয়োজন।

তিনি বলেন, এ মামলার আসামি আসলাম চৌধুরীর বিরুদ্ধে ইসরাইলের গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদের এজেন্টের সঙ্গে হাত মিলিয়ে সরকার উৎখাতের অভিযোগ রয়েছে। তখন হাইকোর্ট বলেন, সে আমেরিকা গেছে নাকি ইসরাইল গেছে, সেটা আমরা দেখব না। ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি এর আগে ব্যবসার কথা বলে দেশে এসে পরে দেশ দখল করেছিল। এখনো অনেকে আসছেন।

দীর্ঘদিনেও মামলার তদন্ত শেষ না হওয়ায় হাইকোর্ট উষ্মা প্রকাশ করেন। আদালত মামলার তদন্ত কর্মকর্তা হারুনুর রশিদকে ডায়াসের সামনে ডেকে জানতে চান, তদন্ত শেষ করতে এত সময় নিচ্ছেন কেন? এক মাসের মধ্যে তদন্ত শেষ করতে পারবেন না? তখন তদন্ত কর্মকর্তা বলেন, দুই মাস সময় প্রয়োজন।

এ পর্যায়ে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল সারওয়ার হোসেন বাপ্পী বলেন, ‘সিনিয়রের সঙ্গে যোগ করে আমি কিছু সাবমিশন রাখতে চাই। একই ধরনের মামলায় আসলাম চৌধুরীকে হাইকোর্ট জামিন দিয়েছিলেন। কিন্তু আপিল বিভাগ সেই জামিন স্থগিত করে দিয়েছেন।

সারওয়ার হোসেন বাপ্পী বলেন, এরা (বিএনপি) তো আবার আগুন সন্ত্রাস শুরু করেছে। তখন হাইকোর্ট ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেলকে উদ্দেশ করে বলেন, আগুন সন্ত্রাসের প্রসঙ্গ কোর্টে আনবেন না। এসব কোর্টের বাইরের বিষয়। এভাবে কোর্টের পরিবেশ নষ্ট করবেন না। কোর্ট তো ১৮ কোটি মানুষের। পরে আদালত এ মামলায় পুলিশের প্রতিবেদন দাখিলের জন্য দুই মাস সময় দেন।

ইসরাইলের গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদের এজেন্টের সঙ্গে হাত মিলিয়ে বাংলাদেশের সরকার উৎখাত ষড়যন্ত্রের অভিযোগে ২০১৪ সালে শাহবাগ থানায় মামলা হয় আসলাম চৌধুরীর বিরুদ্ধে। ২০১৬ সালের ১৫ মে রাজধানীর খিলক্ষেত এলাকা থেকে আসলাম চৌধুরীকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে হেফাজতের তাণ্ডবের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় তাকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়। এ ছাড়া আসলাম চৌধুরীর বিরুদ্ধে ২০টি মামলা রয়েছে। ৭ বছর ধরে তিনি কারাগারে রয়েছেন।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

বায়তুল মোকাররম এলাকায় মিটিং নিষিদ্ধের পাঁয়তারা সুখকর হবে না : চরমোনাই পীর

৬০ লাখ কর্মীকে বিদেশ পাঠাতে চায় সরকার

অফশোর গ্যাস উত্তোলনে বিদেশি বিনিয়োগ চান প্রধানমন্ত্রী

বাকস্বাধীনতা না থাকলে ভাষা থেকেও লাভ হয় না : আনোয়ারউল্লাহ চৌধুরী

‘ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে জ্বালানিতে অতিরিক্ত খরচ ১২ বিলিয়ন ডলার’

৪৫ এর কম এবং ৬৫ এর বেশি বয়সে ব্যাংকের এমডি পদ নয়

শাবিতে জাতীয় পরিসংখ্যান দিবস পালিত

বইমেলায় রাশিদুল হাসান বাচ্চুর ‘ওয়াকিং অন দি পাথ অব পোয়েট্রি’

শেষ সময়ে বইমেলার নিরাপত্তায় ঢিলেঢালা

বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির সিদ্ধান্ত বাতিল চান সাইফুল হক 

১০

জাবির দুই শিক্ষার্থীর বহিষ্কারাদেশ বাতিলের দাবি

১১

শিশু চুরির মামলায় দুই নারীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

১২

বিআরটিসি যেন আর পিছিয়ে না যায় : তাজুল ইসলাম

১৩

ঢাবির নাটমণ্ডলে মঞ্চায়িত হচ্ছে থিয়েটার বিভাগের নাটক ‘সিদ্ধান্ত’

১৪

টিআইবির ফেলোশিপ পেলেন সাংবাদিক সজিবুর রহমান

১৫

রংপুরে এরিক ও বিদিশার ওপর হামলার অভিযোগ

১৬

বইমেলার সময় বাড়ল

১৭

রিহ্যাব নির্বাচনে ব্যবসায়ী ঐক্য পরিষদের নিরঙ্কুশ জয়

১৮

৬ মাস বিশ্ববাজারে পেট্রোল বিক্রি করবে না রাশিয়া

১৯

ফরিদপুরে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, আহত ২০

২০
X