চবি প্রতিনিধি
প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১১:৫৮ পিএম
অনলাইন সংস্করণ

বর্ণাঢ্য আয়োজনে চবি ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের নবীনবরণ

চবি ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের নবীনবরণ। ছবি : কালবেলা
বর্ণাঢ্য আয়োজনে চবি ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের নবীনবরণ

বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের (২০২২-২৩) শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীদের নবীনবরণ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সোমবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) বিশ্ববিদ্যালয়ের বোটানিক্যাল গার্ডেনে ৪৮ ব্যাচের শিক্ষার্থী মো. ফুয়াদ মন্ডল ও নিশাত শাওরিনের সঞ্চালনায় সকাল ১১টা থেকে এ অনুষ্ঠান শুরু হয়।

অনুষ্ঠানের শুরুতে নবীন শিক্ষার্থীদের ফুল দিয়ে বরণ করে নেওয়া হয়। পরে সবাই বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও খেলাধুলায় মেতে উঠে। এ সময় এক ঝাঁক শিক্ষানবীশের মিলনমেলায় মুখরিত ছিল বোটানিক্যাল গার্ডেন।

প্রতিদিনের নিয়মমাফিক ক্লাস করতে করতে যখন নবীন শিক্ষার্থীদের হাঁসফাঁস অবস্থা উঠেছিল ঠিক তখনই এমন উৎসবমুখর একটি অনুষ্ঠানে প্রাণ ফিরে পেয়েছে তারা।

নবীন শিক্ষার্থী মাহফুজ রহমান নিজের অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে বলেন, সিনিয়রদের পক্ষ থেকে এত সুন্দর আয়োজন অপেক্ষা করছিল তা আমাদের কল্পনাতীত। আমাদের খুব ভালো লেগেছে। বাসা থেকে অনেক দূরে থেকেও আমরা আপন একটি পরিবারের সন্ধান পেয়েছি। আজীবন যেন আমাদের এ বন্ধন অটুট থাকে সেই কামনা করি।

আরেক নবীন শিক্ষার্থী এস এম অভি বলেন, আমি আমাদের ৪৯ ব্যাচের পক্ষ থেকে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। ভবিষ্যতেও যেন এমন আয়োজন অব্যাহত থাকে সেই প্রত্যাশা করছি।

অনুষ্ঠানে নবীনদের উদ্দেশ্য ৪৮ ব্যাচের পক্ষ থেকে ফাতেমা তুজ জোহরা মীম বলেন, বসন্তের মধ্যাহ্নে অন্তরের অন্তস্থল থেকে নবীনদের বরণ করে নিয়েছি। আমাদের একসঙ্গে পথচলা শুরু হয়েছে। আমাদের এ সিনিয়র-জুনিয়র ভ্রাতৃত্বের বন্ধন সবসময় অটুট থাকুক। সিনিয়রদের ভালোবাসা ও স্নেহ এবং জুনিয়রদের সম্মান ও আন্তরিকতায় পরিপূর্ণ থাকুক এ বন্ধন। ৪৯ ব্যাচ আমাদের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের ঐতিহ্য ধরে রাখবে বলে প্রত্যাশী।

৪৮ ব্যাচের আরেক শিক্ষার্থী মো. আশরাফুল ইসলাম জুনিয়রদের উদ্দেশে বলেন, নিঃসন্দেহে চবির ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগ একটি সমৃদ্ধশীল একটি বিভাগ। এই বিভাগ থেকে অনেক বড় জায়গায় আমাদের সিনিয়ররা অবস্থান করছেন। বিসিএস ক্যাডার, দেশে বিদেশে এমন অসংখ্য নজির রয়েছে। যদি এখন থেকে তোমার সেরাটা দিয়ে চেষ্টা করো তাহলে সফলতার শেষ চূড়া সেটা স্পর্শ করা সম্ভব বলে আমি মনে করি। ভর্তিযুদ্ধে হাজার শিক্ষার্থীকে পেছনে ফেলে তোমরা এ অবস্থানে এসেছ। অবশ্যই তোমরা প্রত্যেকে মেধাবী এবং সফল মানুষ।

সার্বিক অনুষ্ঠান নিয়ে (২০২১-২২) শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী শাহারিয়ার ইমন হৃদয় বলেন, আমাদের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগে প্রতিবছর ইমিডিয়েট সিনিয়ররা বিভাগে আগত নতুন শিক্ষার্থীদের বরণ করে নেয়। সেই ধারাবাহিকতায় আমরাও আমাদের জুনিয়র ব্যাচকে নবীনবরণের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে বরণ করে নিয়েছি। এই আয়োজন সুন্দর করে সফল করতে পেরে আমরা আনন্দিত। এই অনুষ্ঠানকে সাফল্যমণ্ডিত করতে যারা অক্লান্ত পরিশ্রম করেছে তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

তীব্র গরমে বিশ্বজুড়ে বছরে ১৮৯৭০ শ্রমিকের মৃত্যু

আপিল বিভাগে তিন বিচারপতি নিয়োগ

যুদ্ধের মধ্যেই মন্ত্রীকে আটক করলেন পুতিন

সকালে ইসতিসকার নামাজ আদায়, রাতে নামল স্বস্তির বৃষ্টি

তাপমাত্রা আরও বাড়ার শঙ্কা

অফিসার নিয়োগ দেবে কাজী ফার্ম, আবেদন করুন দ্রুত

হিট স্ট্রোকে অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষকের মৃত্যু

অন্তঃসত্ত্বা নারীর চিকিৎসা করলেন না ডাক্তার, সমালোচনার ঝড়

টাইগারদের সঙ্গে সিরিজের জন্য জিম্বাবুয়ে দল ঘোষণা

থাইল্যান্ড পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী

১০

চাকরি দিচ্ছে কাজী ফার্মস, নেই বয়সসীমা

১১

কালবেলায় প্রতিবেদন প্রকাশ / ভূমিদস্যু কামরুলের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে ১০ আইনজীবীর আবেদন 

১২

আশ্রয়কেন্দ্র নির্মাণে বাংলাদেশকে সহায়তা করতে চায় ভারত

১৩

ইরান-ইসরায়েল উত্তেজনার মধ্যে / হঠাৎ ইরান সফরে উত্তর কোরিয়ার প্রতিনিধি দল

১৪

ল্যাবএইড হাসপাতালে চাকরির সুযোগ, ৪৫ বছরেও আবেদন

১৫

ইয়াবাসহ ইউপি চেয়ারম্যানের ভাই গ্রেপ্তার

১৬

৪ বছরের ছেলেকে ৪১ বার ছুরিকাঘাত করেন মা

১৭

দুর্নীতি মামলায় এসকে সিনহার বিরুদ্ধে প্রতিবেদন ২৬ জুন

১৮

হারে মোস্তাফিজের দায় দেখছেন না চেন্নাই অধিনায়ক

১৯

দ্রুত গলছে হিমবাহ, হ্রদের আয়তন বাড়ছে হিমালয়ে

২০
*/ ?>
X