কালবেলা প্রতিবেদক
প্রকাশ : ২০ মে ২০২৪, ০৭:২৩ পিএম
অনলাইন সংস্করণ

বৃক্ষ সংরক্ষণ-সম্প্রসারণে গবেষণা বৃদ্ধি করা হবে : বনমন্ত্রী

মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত ‘বৃক্ষরোপণে প্রধানমন্ত্রীর জাতীয় পুরস্কার-২০২২-২৩’ পদকসংক্রান্ত জাতীয় কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়। ছবি : কালবেলা
মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত ‘বৃক্ষরোপণে প্রধানমন্ত্রীর জাতীয় পুরস্কার-২০২২-২৩’ পদকসংক্রান্ত জাতীয় কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়। ছবি : কালবেলা

পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তনমন্ত্রী সাবের হোসেন চৌধুরী বলেছেন, বৃক্ষরোপণ অভিযান জোরদারের অংশ হিসেবে বিলুপ্তপ্রায় বৃক্ষ সংরক্ষণ ও সম্প্রসারণে গবেষণা কার্যক্রম জোরদার করা হবে। সহব্যবস্থাপনা ও সহযোগিতামূলক বন ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে স্থানীয় জনগণকে সম্পৃক্ত করে বন ব্যবস্থাপনা করা হচ্ছে ফলে বন ও বনভূমি অনেক বেশি টেকসই হচ্ছে। বিদ্যমান বনভূমিতে ব্যাপকভাবে বনায়ন করে বনের আচ্ছাদন বৃদ্ধি করা হচ্ছে। বনভূমি উজাড় রোধে জবরদখলকৃত বনভূমি চিহ্নিতপূর্বক উদ্ধার করা হচ্ছে এবং বনায়ন করা হচ্ছে।

সোমবার (২০ মে) মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত ‘বৃক্ষরোপণে প্রধানমন্ত্রীর জাতীয় পুরস্কার-২০২২-২৩’ পদকসংক্রান্ত জাতীয় কমিটির সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

সাবের চৌধুরী বলেন, বন ও বনভূমি রক্ষায় টহল কার্যক্রম জোরদার করা হয়েছে। বন ও বনভূমির ডিজিটাল বাউন্ডারি ম্যাপিংয়ের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। ফলে বনভূমি জবরদখল চিহ্নিত করা সহজ হবে। জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষতিকর প্রভাব মোকাবিলায় সারা দেশে সবুজায়ন কার্যক্রম জোরদার করতে হবে। বিশেষ করে শহরে বাড়ির ছাদসহ অন্যান্য স্থানে কীভাবে গাছ লাগানো যায়, সেটা গুরুত্বের সঙ্গে দেখতে হবে।

সভায় বৃক্ষরোপণে বিশেষ অবদান রাখায় প্রধানমন্ত্রীর জাতীয় পুরস্কারের জন্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠান, ব্যক্তিগত পর্যায়, ব্যক্তি মালিকানাধীন নার্সারি, বন বিভাগ কর্তৃক সৃজিত বাগান, বাড়ির ছাদে বাগান সৃজন, বৃক্ষ গবেষণা, সংরক্ষণ ও উদ্ভাবন প্রভৃতি ক্যাটাগরিতে ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের নাম চূড়ান্ত করা হয়েছে। এর আগে উপজেলা, জেলা ও বিভাগ পর্যায়ের কমিটিতে যাচাইবাছাই শেষে খসড়া তালিকা প্রণয়ন করা হয়।

১৯৯৩ সাল থেকে চালু হওয়া এই পুরস্কারের প্রতিটি ক্যাটাগরিতে পুরস্কারপ্রাপ্তদের সনদপত্র দেওয়া হবে। আর পুরস্কারের মূল্যমান হিসেবে প্রথম পুরস্কারের জন্য এক লাখ টাকা, দ্বিতীয় পুরস্কারের জন্য ৭৫ হাজার এবং তৃতীয় পুরস্কারের জন্য ৫০ হাজার টাকা দেওয়া হবে।

পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তনমন্ত্রী সাবের হোসেন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় সাবেক উপমন্ত্রী হাবিবুন নাহার, জাতীয় কমিটির সদস্য আরমা দত্ত, মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. ফারহিনা আহমেদ, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. এমদাদুল হক চৌধুরী, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. আবু তাহের, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপউপাচার্য (শিক্ষা) ড. সীতেশ চন্দ্র বাছার, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এমিরেটস অধ্যাপক ও বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর আতিউর রহমান, অতিরিক্ত সচিব (উন্নয়ন) মোশাররফ হোসেন, অতিরিক্ত সচিব (পরিবেশ) ড. ফাহমিদা খানমসহ কমিটির সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

চট্টগ্রাম ও সিলেটে পাহাড় ধসের সতর্কবার্তা

রাসেল ভাইপার চিনবেন কীভাবে ?

বন্যার্তদের সাহায্যে এগিয়ে আসার আহ্বান চরমোনাই পীরের

রাসেল ভাইপার : সন্দেহজনক কয়েকটি মৃত্যু

সড়কে আরও এক বছর থাকছেন নুরী

চাদে বিস্ফোরণে নিহত ৯, আহত ৪৬

শুক্রবার ভারত যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

ফিলিস্তিনে ইসরায়েলি হামলায় হামাসের পোয়াবারো

মন্ত্রীর বাসার লিফটে পরিচালককে মারধর, অভিযুক্ত কর্মকর্তা বরখাস্ত

মুসলমানদের ইতিহাস মুছতে সাড়ে ৩ হাজার গ্রামের নাম বদলে দিল চীন

১০

পরিচ্ছন্নতা ও পুনঃপ্রক্রিয়াজাতকরণ : কোরবানি বর্জ্যকে সম্পদে রূপান্তর

১১

চট্টগ্রামে বৃষ্টি উপেক্ষা করেই জমজমাট বিনোদন স্পট

১২

অবৈধ অভিবাসীদের বড় সুখবর দিল আমেরিকা

১৩

সৌদি যুবরাজের রাজকীয় সংবর্ধনায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী

১৪

কোটালীপাড়া থেকে রাজৈর হয়ে ঢাকায় বাস চলাচলের দাবিতে মানববন্ধন

১৫

বরযাত্রীবাহী মাইক্রোবাস-বাস মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১

১৬

সোনারগাঁয়ের চরাঞ্চলে প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণ, ৫ মাসের অন্তঃসত্ত্বা

১৭

অজি পেসারের কথায় আতঙ্কিত হন ইংলিশরা

১৮

কোচ সংকটে দুর্ভোগ রেলপথে

১৯

উত্তর কোরিয়ায় কোথায় থাকছেন পুতিন?

২০
X