সাতক্ষীরা প্রতিনিধি
প্রকাশ : ০৬ ডিসেম্বর ২০২৩, ০১:২৭ পিএম
অনলাইন সংস্করণ

টানা ২ বছর রাঁধুনীকে ধর্ষণের অভিযোগ হোটেল মালিকের বিরুদ্ধে

নিউ আব্বাস হোটেল। ইনসেটে অভিযুক্ত হোটেলের মালিক হজরত আলী। ছবি : কালবেলা

বিয়ের প্রলোভনে ঘর ভাড়া রেখে ২ বছর ধরে হোটেলের রাঁধুনিকে ধর্ষণ এবং তার নিকট থেকে ৩ লাখ ২০ হাজার টাকা কৌশলে হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে সাতক্ষীরা শহরের নিউমার্কেট এলাকার নিউ আব্বাস হোটেলের মালিক হজরত আলীর বিরুদ্ধে।

ওই ঘটনায় সাতক্ষীরা শহরের দক্ষিণ কাটিয়া এলাকার ওই নারী সাতক্ষীরার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে হজরত আলীর বিরুদ্ধে মামলা করেছেন।

মামলাটি আমলে নিয়ে আদালত পিবিআই সাতক্ষীরাকে তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়ছেন। অভিযুক্ত হজরত আলী (৩৫) সাতক্ষীরা সদরের ফয়জুল্যাপুর গ্রামের সুরত আলীর ছেলে।

ভিকটিম ওই নারী কালবেলাকে বলেন, তিন বছর আগে হজরত আলী শহরের নিউমার্কেট এলাকায় মেসার্স নিউ আব্বাস হোটেল অ্যান্ড বিরিয়ানি হাউস নামে নিউমার্কেট মোড় এলাকায় ব্যবসা শুরু করেন। তখন আমি সেখানে রাঁধুনির কাজ শুরু করি। সারা দিন কাজের সুবাদে হোটেল মালিক হজরত আলী বিভিন্ন সময় আমার সাথে কথা বলতেন। একপর্যায়ের তার কুদৃষ্টি পড়ে আমার দিকে। তখন তিনি আমাকে অনৈতিক প্রস্তাবও দেন। আমি তাতে রাজি না হলে আমাকে বিয়ের প্রলোভন দেখান। একপর্যায়ে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে শহরের কামালনগরে বাসা ভাড়া নিয়ে আমাকে সেখানে রাখেন এবং যাতায়াত শুরু করে শারীরিক সম্পর্ক অব্যাহত রাখেন। আমি তাকে বিয়ের জন্য চাপ সৃষ্টি করতে থাকলে নানা অজুহাতে তিনি এড়িয়ে যেতে থাকেন। এরই মধ্যে আমার কাছে থাকা ৩ লাখ ২০ হাজার টাকা স্ট্যাম্পে লিখিত করে এক মাসের জন্য ধার নেন।

‘একপর্যায়ে ওই বাসায় প্রায় দুই বছর থাকার পর যখন আমি জোরালোভাবে বিয়ে এবং টাকা ফেরতের জন্য চাপ সৃষ্টি করি। তখন তিনি সব সম্পর্ক অস্বীকার করেন এবং টাকা নেয়নি বলে সাফ জানিয়ে আমাকে হোটেল থেকে তাড়িয়ে দেন। একপর্যায়ে আমি অসহায় হয়ে বাংলাদেশ রেস্তোরাঁ মালিক সমিতি সাতক্ষীরা শাখায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করি। সেখানে তিনিসহ তার লোকজন উপস্থিত হয়ে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করলেও কোনো সুরাহা করেননি।’

ওই ঘটনার পর আমি কোনো উপায়ান্তর না পেয়ে চলতি বছরের ৩ অক্টোবর সাতক্ষীরার নারি ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ ট্রাইব্যুনালে হজরত আলীকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করি। বর্তমানে পিবিআই সাতক্ষীরা মামলাটি তদন্ত করছেন।

এসব ঘটনায় সাতক্ষীরা জেলা রেস্তোরাঁ মালিক সমিতির সভাপতি শাহ আলম বলেন, হজরত আলীর বিরুদ্ধে ওই নারী সংগঠনে অভিযোগ করলে আমরা হজরত আলীকে সংগঠনের কার্যালয়ে ডেকে উভয়পক্ষকে ডেকে বোঝাপরা করি। সেখানে হজরত আলী ওই নারীর সাথে অনৈতিক সম্পর্কের বিষয়টি স্বীকার করেন এবং টাকা দিয়ে মিটমাট করার প্রস্তাব দেন। কিন্তু নির্যাতিত নারী রাজি না হওয়ায় সেখানে মিটমাট হয়নি।

সাতক্ষীরা জেলা হোটেল শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সাত্তার বলেন, ‘আমাদের শ্রমিক সংগঠনের একজন নারী শ্রমিকের সমস্যা নিয়ে কথা বলা বা দেখা শুনা করায় হজরত ও তার লোকজন আমাকে নানাভাবে হুমকি দিচ্ছেন। বিষয়টির প্রতিকার চেয়ে আমরা হোটেল শ্রমিক ইউনিয়নের সদস্যরা দ্রুত মানববন্ধন করে লম্পট হজরতের গ্রেপ্তার দাবি করব।’

তবে অভিযুক্ত হজরত আলী উপরোক্ত অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘আমাকে মিথ্যা অভিযোগে ফাঁসানোর চেষ্টা করা হচ্ছে।’

পিবিআই সাতক্ষীরার এসআই ও মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা সোহান হোসেন বলেন, ‘মামলাটির তদন্ত চলছে। তদন্ত শেষে আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন প্রেরণ করা হবে।’

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

শীতে খুশকির সমস্যা সমাধান করুন ঘরে বসেই

ঘুষ-দুর্নীতির আখড়া জাজিরার বড়কান্দি ইউনিয়ন ভূমি অফিস

মীন রাশিতে কাজে সফল হওয়ার দিন আজ

২৭ ফেব্রুয়ারি : নামাজের সময়সূচি

মঙ্গলবার রাজধানীর যেসব এলাকায় যাবেন না

কী ঘটেছিল ইতিহাসের এই দিনে

প্যারিসে ভাষা দিবস উপলক্ষে পঞ্চ কবির গানের সন্ধ্যা

বাবাকে কুপিয়ে জখম, ছেলে গ্রেপ্তার

আধিপত্য বিস্তারে দুই গ্রুপের ককটেল বিস্ফোরণ, আহত ৩

পথ হারানো ৩১ দর্শনার্থীকে উদ্ধার করল পুলিশ

১০

শিক্ষা সফরে মদপান, দুই শিক্ষক সাময়িক বরখাস্ত

১১

মিয়ানমারে সরকার গঠন করতে যাচ্ছে বিদ্রোহীরা!

১২

রাতের ঢাকায় নতুন মাদক

১৩

বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশন এর কার্যনির্বাহী কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

১৪

রংপুরকে উড়িয়ে ফাইনালে লিটনের কুমিল্লা

১৫

যুগান্তরের অবদান চির স্মরণীয় হয়ে থাকবে

১৬

ভিকারুননিসার শিক্ষক মুরাদ গ্রেপ্তার

১৭

যৌন হয়রানির অভিযোগে ভিকারুননিসা শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা

১৮

করোনায় আক্রান্ত ডিবি প্রধান হারুন

১৯

‘বঙ্গবন্ধু বিচ’ নামকরণের প্রস্তাব বাতিল

২০
X