উল্লাপাড়া (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি
প্রকাশ : ২০ এপ্রিল ২০২৪, ০৩:০৬ এএম
অনলাইন সংস্করণ

ছেড়ে গেছেন সন্তানরা, সংসার টানছেন ১০৭ বছরের বৃদ্ধা

ডালিম খাতুন। ছবি : কালবেলা
ডালিম খাতুন। ছবি : কালবেলা

চোখের পানিতে ঝরে পড়ছে কতশত আক্ষেপ। ছেলে, মেয়ে, নাতি-নাতনি, সবাই আছে, কিন্তু না থাকার মতোই। খোঁজ, খবর নেয় না কেউই। জীবনযুদ্ধে তাই তিনি একা। এখন কেবলই মৃত্যুর জন্য অপেক্ষা।

সন্তান আর নাতি-নাতনিদের মায়া মহব্বতের মধ্যে দিন কাটানোর কথা ছিল ১০৭ বছর বয়সী ডালিম খাতুনের। কিন্তু নিজ বাড়িতে একাকী রাত কাটাতে হয় বয়সের ভারে নুয়ে পড়া এ বৃদ্ধার।

৪০ বছর আগে স্বামী জসিম উদ্দিনকে হারান ডালিম খাতুন। দুই ছেলে ও চার মেয়ে নিজেদের সম্পত্তি বিক্রি করে মাকে রেখে চলে গেছে একে একে। এর মধ্যে মারা গেছেন এক মেয়ে। এখনও বিভিন্ন জায়গায় বহাল তবিয়তে আছেন বাকিরা। মায়ের খোঁজখবর পর্যন্ত নেন না তারা। এমনকি পবিত্র ঈদুল ফিতরের দিনেও এই অভাগা বৃদ্ধার খোঁজ নেননি কোনো সন্তান। জীবনের শেষ পর্যায়ে এসেও বেঁচে থাকার লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন ডালিম খাতুন।

বয়সের কারণে চলাফেরা ও কাজ করা ডালিম খাতুনের জন্য অত্যন্ত ঝুঁকির। তবুও সবই করতে হয় নিজেকেই। রান্না করতে না পারলে থাকতে হয় না খেয়ে। মাঝে মধ্যে খাবার দিয়ে যান প্রতিবেশীরা।

বৃদ্ধা ডালিম খাতুন বলেন, আমাকে কেউ দেখে না। এ ঘরের মধ্যে পড়ে যদি মরে থাকি কেউ তো জানবেই না। চার মেয়ের মধ্যে একজন মারা গেছেন। কেউ আমার দিকে ফিরেও চায় না।

অস্পষ্ট স্বরে ডালিম খাতুন আরও বলেন, তিনি বয়স্ক ভাতা পান। কিন্তু টাকার গন্ধে হঠাৎ হঠাৎ উদয় হন তার কোন এক ছেলে। ফুসলিয়ে তাকে শুন্য হাতে রেখে সব নিয়ে যান হাসতে হাসতে।

ডালিম খাতুনের এক প্রতিবেশী বলেন, এখানে ওনাকে দেখাশোনার কেউ নেই। আমার যারা আছি সহায়তা করি।

ডালিম খাতুনের বাড়ি সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া উপজেলার চকনিহাল গ্রামে। শতবর্ষী এই বৃদ্ধার দুঃখ দুর্দশা দেখে পাশে দাঁড়িয়েছেন মামুন বিশ্বাস নামের এক সমাজকর্মী। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে খোঁজ পেয়ে তার মাধ্যমে সাহায্যের হাত বাড়িয়েছেন অনেকেই।

সেই সাহায্য থেকে বৃদ্ধা ডালিম খাতুনের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে নগদ টাকাসহ নতুন পরনের কাপড়, বিছানার চাদর, জায়নামাজ, চার্জার ফ্যান, জুতা, চালের বস্তা এবং নিত্যপ্রয়োজনীয় খাবার। বৃদ্ধার কাছ থেকে আবারও কেউ টাকা লুটে নিলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন প্রতিবেশীরা।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

আকর্ষণীয় বেতনে অক্সফামে চাকরির সুযোগ

অপরাধী হলে শাস্তি পেতেই হবে, সাবেক সেনাপ্রধান-আইজিপির বিষয়ে কাদের

সাত ঘণ্টা বন্ধের পর সৈয়দপুরে বিমান চলাচল স্বাভাবিক

ঝিনাইদহে ধর্ষণ মামলায় ইউপি চেয়ারম্যানের যাবজ্জীবন

ঝড়ের মধ্যে চাঁদপুরে বিদ্যুতের ২৩ মিটার চুরি

ঘূর্ণিঝড়ের ক্ষয়ক্ষতি পরিদর্শনে পটুয়াখালী যাবেন প্রধানমন্ত্রী

ঘূর্ণিঝড় রিমাল / বরগুনায় পানিবন্দি ১০ হাজার পরিবার

আরও তিন উপজেলার ভোট স্থগিত

পরীক্ষা দিতে গিয়ে নিখোঁজ, খালে মিলল মরদেহ

সরকারি চাকরিতে ৩ লাখ ৭০ হাজার পদ ফাঁকা : জনপ্রশাসনমন্ত্রী

১০

সর্বজনীন পেনশন স্কিম বাতিলের দাবি বুটেক্স শিক্ষকদের

১১

আম্বানির ছেলের বিয়েতে মঞ্চ মাতাবে শাকিরা, ডুয়া লিপা ও এ আর রহমান

১২

গভীর রাতে ঘরে ঢুকে নাতি-দাদির প্রাণ নিল ডাকাতদল

১৩

অভিজ্ঞতা ছাড়া ইবনে সিনায় নিয়োগ, পাবেন অনেক সুবিধা

১৪

ঘুর্ণিঝড় রিমাল / গৌরনদী উপজেলা পরিষদ নির্বাচন স্থগিত

১৫

গাজীপুরে কাভার্ডভ্যান চাপায় পোশাক শ্রমিক নিহত

১৬

উপকূলে এখনো থামেনি ঘূর্ণিঝড় রিমালের দাপট

১৭

দেশ বাঁচাতে হলে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে হবে : দুদু

১৮

ভারতীয় বিশ্বকাপ স্কোয়াডের আইপিএল পারফরম্যান্স কেমন

১৯

আন্তর্জাতিক সংস্থায় চাকরি, বেতন ৬৩,৯৬৪ টাকা

২০
X