ফেনী প্রতিনিধি
প্রকাশ : ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১১:১৯ পিএম
অনলাইন সংস্করণ

ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে প্রবাসীর স্ত্রী থেকে চাঁদা আদায়ের অভিযোগ

ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আফাজ উদ্দিন সৌরভ। ছবি : কালবেলা
ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আফাজ উদ্দিন সৌরভ। ছবি : কালবেলা

ফেনীর সোনাগাজীর চরমজলিশপুর ইউনিয়নের এক প্রবাসীর স্ত্রীর থেকে চাঁদা আদায়ের অভিযোগ উঠেছে আফাজ উদ্দিন সৌরভের বিরুদ্ধে। তিনি ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক।

মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) এ ঘটনায় সংগঠনবহির্ভূত অনৈতিক কর্মকাণ্ডের অভিযোগ এনে তাকে কারণ দর্শানো নোটিশ দিয়েছে উপজেলা ছাত্রলীগ। আগামী তিন কর্মদিবসের মধ্যে শোকজের জবাব দিতে বলা হয়।

জানা গেছে, উপজেলার চরমজলিশপুরের চান্দলা গ্রামের সৌদি প্রবাসী বেলায়েত হোসেনের ছেলে ফাহাদ হোসেনের সঙ্গে মতিগঞ্জ ইউনিয়নের একটি মেয়ের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। বিষয়টি ফাহাদের মা জানতে পেরে ছেলে ফাহাদ হোসেনকে ওই মেয়ের সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করতে বলেন। এতে মেয়েটি যোগাযোগ বন্ধ না করে ছেলের বাড়ির আশপাশে ঘোরাঘুরি করে। এতে নিরুপায় হয়ে ছেলের মা মেয়ের বাড়িতে গিয়ে তার অভিভাবককে ছেলের সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করতে অনুরোধ করেন। এ সময় উল্টো মেয়ের পরিবার ছেলের মাকে আটকে রাখে।

আরও জানা যায়, খবর পেয়ে আফাজ উদ্দিন সৌরভ মতিগঞ্জ গিয়ে ফাহাদ হোসেনের মাকে উদ্ধার করে নিয়ে আসে। এ অজুহাত দেখিয়ে ফাহাদের মায়ের ব্যবহত স্বর্ণ স্থানীয় কুঠিরহাট বাজারে এক স্বর্ণ দোকানে বন্ধক রেখে দেড় লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়। পরবর্তীতে সৌরভ ওই প্রবাসীর স্ত্রীর কাছ থেকে আরও ২০ হাজার টাকা আদায় করে। গত ২১ এপ্রিল প্রবাসীর স্ত্রীর কাছে আরও ৫০ হাজার টাকা দাবি করলে বিষয়টি প্রকাশ হয়ে যায়। সম্প্রতি ফাহাদের বাবা প্রবাসী বেলায়েত হোসেন খবর পেয়ে ওই টাকা ফেরত আনতে ফাহাদের মাকে চাপ প্রয়োগ করে। এতে টাকা না দিয়ে উল্টো প্রবাসীর স্ত্রীকে হুমকি দিচ্ছে এই ছাত্রলীগ নেতা।

ফাহাদের মা জানান, সৌরভ নিজে তার বাড়িতে এসে স্বর্ণ নিয়ে তাকেসহ কুঠিরহাট বাজারে গিয়ে এক স্বর্ণ দোকানে স্বর্ণ বন্ধক রেখে দেড় লাখ টাকা নিয়ে যায়। সম্প্রতি তিনি আরও ৫০ হাজার টাকা দিতে চাপ প্রয়োগ করে। এতে নিরুপায় হয়ে তিনি বিষয়টি তার পরিবারকে ও স্থানীয় মেম্বার ও চেয়ারম্যানকে অবহিত করে।

চরমজলিশপুর ইউপি সদস্য মো. রিয়াদ জানান, ছেলের মাকে ব্লাকমেইল করে ছাত্রলীগ নেতা মতিগঞ্জ ইউপি চেয়ারম্যান রবিউজ্জামান বাবুর নাম ভাঙ্গিয়ে ওই মেয়ের সঙ্গে ছেলের বিয়ে না দেওয়ার কথা বলে দেড় লাখ টাকা আদায় করে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে চরমজলিশপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আফাজ উদ্দিন সৌরভ বলেন, ফাহাদের মাকে মতিগঞ্জ ইউনিয়নে ওই মেয়ের বাড়িতে আটকে রাখলে বিষয়টি ফাহাদ আমাকে জানায়। পরে আমি গিয়ে স্থানীয় চেয়ারম্যান ও মেম্বারের সঙ্গে কথা বলার পর মতিগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের সালিশ বৈঠকের কথা বলে ছেলের মাকে নিয়ে আসি। এ জন্য আমি তার কোনো টাকা গ্রহণ করিনি। স্থানীয় ইউপি সদস্য মো. রিয়াদ আমার নামে মিথ্যা অপবাদ দিচ্ছে।

সোনাগাজী উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মিনহাজ উদ্দিন সাইমুন বলেন, আমরা বিষয়টি জানতে পেরে তাকে আগামী তিন দিনের মধ্যে কারণ দর্শানোর নোর্টিশ করেছি। যদি ঘটনা সত্যি হয় তাহলে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের নিয়ম অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

ছয় বছরে দুই পিলার

লজ্জাজনক এ হারের দায় কার?

শান্তিপূর্ণ সমাজ বিনির্মাণে বুদ্ধের শিক্ষা অনুসরণ করা প্রয়োজন : প্রধানমন্ত্রী 

উপজেলা নির্বাচন / দ্বিতীয় ধাপে চেয়ারম্যান হলেন যারা

বুদ্ধ পূর্ণিমা আজ

সাঁকো নির্মাণ নিয়ে বিরোধ, যুবককে কুপিয়ে হত্যা

স্মার্ট বাংলাদেশের অগ্রযাত্রা নিয়ে সভা আজ

বুধবার ঢাকার যেসব এলাকায় যাবেন না

ইতিহাসের এই দিনে স্মরণীয় যত ঘটনা

২২ মে : নামাজের সময়সূচি

১০

অবসরের পরেও চেয়ারে তিনি, ৩ দিনে ৩৪ কোটি টাকার ঘুষ

১১

নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় শিক্ষার্থী নিহত

১২

বিনা টিকিটে ১২ বছর রেল ভ্রমণ, অতঃপর...

১৩

বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে নারী শ্রমিককে যৌন হয়রানি

১৪

ইন্টারন্যাশনাল স্ট্যান্ডার্ড ইউনিভার্সিটির ইংরেজি বিভাগের প্রথম জার্নাল প্রকাশিত

১৫

প্রেসিডেন্সি ইউনিভার্সিটিতে ‘সেমিস্টার ডে ২০২৪’ উদ্‌যাপন

১৬

ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি শ্রাবণের ওপর হামলার অভিযোগ

১৭

খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার খোঁজ নিলেন ফখরুল

১৮

যুক্তরাষ্ট্রের কাছে ধরাশায়ী হলো বাংলাদেশ

১৯

রাজধানীতে বিটিআরসির অভিযান, সরঞ্জামাদি জব্দ

২০
X