কালবেলা প্রতিবেদক
প্রকাশ : ০৭ জুন ২০২৩, ১২:০০ এএম
প্রিন্ট সংস্করণ

ষড়যন্ত্রকারীদের কাছে আত্মসমর্পণ করবে না সরকার : ওবায়দুল কাদের

ছবি : সংগৃহীত
ছবি : সংগৃহীত

মার্কিন সরকারের কাঙ্ক্ষিত স্যাংশন না পেয়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম চিরাচরিত ভঙ্গিতে প্রলাপ বকছেন বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেছেন, বিএনপি মিলিয়ন মিলিয়ন ডলার খরচ করে প্রতিনিয়ত সরকারবিরোধী কুৎসা ও বদনাম রটাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী এ ধরনের মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী খুনিগোষ্ঠী ও ষড়যন্ত্রকারীদের কাছে আত্মসমর্পণ করবেন না। জনগণকে সঙ্গে নিয়ে দেশবিরোধী এ শক্তিকে উৎখাত করা হবে। গতকাল মঙ্গলবার আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়ার সই করা এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব কথা বলেন তিনি।

ত্রিশ লাখ শহীদের প্রাণের বিনিময়ে অর্জিত স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্বকে ম্লান করে হীন রাজনৈতিক উদ্দেশ্য হাসিলে বিএনপি বিদেশি প্রভুদের কাছে ধরনা দিচ্ছে এবং ষড়যন্ত্র চালাচ্ছে উল্লেখ করে সেতুমন্ত্রী বলেন, দেশের মানুষের প্রতি তাদের কোনো আস্থা ও বিশ্বাস নেই। দেশের সংবিধান, গণতন্ত্র, নির্বাচন ও গণরায়কে অবজ্ঞা করে তারা কেবল বিদেশি প্রভুদের কাছে করুণা প্রার্থনা করছে।

বিবৃতিতে তিনি বলেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ঘোষিত ভিসা নীতি নিয়ে আওয়ামী লীগ ও সরকার ভীত নয়। কারণ, আমরা সর্বদা সংবিধান, গণতন্ত্র, মানবাধিকার ও আইনের শাসনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। যদি এই ভিসা নীতি যথাযথভাবে প্রয়োগ হয়, তাহলে বিএনপি নেতাকর্মীদের এর আওতায় আসার আশঙ্কা রয়েছে। কেননা, তারা বরাবরই গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়াকে ব্যাহত করছে।

মূলত এই জিয়াউর রহমানই বাংলাদেশের গণতন্ত্র ও সংবিধান ধ্বংস করেছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, প্যাডসর্বস্ব ভুঁইফোঁড় বিবৃতিজীবী, পাকিস্তানপন্থি রাজনীতিক ও যুদ্ধাপরাধীদের ধরে এনে সরকারি গোয়েন্দা সংস্থার মাধ্যমে রাজনৈতিক দল গঠন করে পাকিস্তানপন্থিদের ক্ষমতায়ন করেছিল জিয়াউর রহমান।

সড়ক পরিবহন মন্ত্রী বলেন, রাষ্ট্রীয় কার্যক্রম ও গণমাধ্যম থেকে মুক্তিযুদ্ধের জয়ধ্বনি ‘জয় বাংলা’ ও ‘জয় বঙ্গবন্ধু’কে নির্বাসনে পাঠিয়েছিল জিয়া। তিনি বলেন, মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বিপরীতে পাকিস্তানি দর্শনের রাজনীতির প্রচলন করেছিল। দিনের পর দিন আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে তালাবদ্ধ করে কার্যত অঘোষিতভাবে রাজনীতি নিষিদ্ধ করে রাখা হয়েছিল।

তিনি বলেন, আজকে বিএনপির কোনো কোনো নেতার বক্তব্যে তাদের এতটাই দেউলিয়াত্বের বহিঃপ্রকাশ ঘটেছে যে, তাদের আর কোনো রাজনৈতিক সংগঠন বলা চলে না। জনগণের প্রতি আস্থা না রেখে বিএনপি নেতারা বিদেশি প্রভুদের পদলেহনের মাধ্যমে ক্ষমতায় আসতে মরিয়া হয়ে উঠেছে।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

ঢাবির নাটমণ্ডলে মঞ্চায়িত হচ্ছে থিয়েটার বিভাগের নাটক ‘সিদ্ধান্ত’

টিআইবির ফেলোশিপ পেলেন সাংবাদিক সজিবুর রহমান

রংপুরে এরিক ও বিদিশার ওপর হামলার অভিযোগ

বইমেলার সময় বাড়ল

রিহ্যাব নির্বাচনে ব্যবসায়ী ঐক্য পরিষদের নিরঙ্কুশ জয়

৬ মাস বিশ্ববাজারে পেট্রোল বিক্রি করবে না রাশিয়া

ফরিদপুরে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, আহত ২০

গাধা বেচবে চিড়িয়াখানা

রাজধানীতে ৬ স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা

হকিতে মেরিনার্স-আবাহনীর সহজ জয়

১০

ভিনদেশের মোহ কেটেছে জামালের! 

১১

পানগাঁও আইসিটিকে মুখ থুবড়ে পড়তে দেওয়া যাবে না : নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী

১২

বিপিএম পদকে ভূষিত হলেন মো. শাহ আলম

১৩

পুলিশের ৪০০ সদস্যকে পদক পরিয়ে দিলেন প্রধানমন্ত্রী

১৪

প্রথমবারের মতো ওয়াটার রকেট উৎক্ষেপণ ঢাবি আইটি সোসাইটির

১৫

ট্রাকচাপায় দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

১৬

খেজুর ভেজানো পানি খেয়ে বেঁচে আছে গাজার শিশুরা

১৭

টাইগারদের ব্যাটিং ও বোলিং কোচ হলেন যারা

১৮

বিপিএম পদকে ভূষিত হলেন মো. মাজহারুল ইসলাম

১৯

বিপিএম পদক পেলেন তওফিক মাহবুব চৌধুরী

২০
X