নোয়াখালী ব্যুরো
প্রকাশ : ০৮ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৮:৪৮ পিএম
অনলাইন সংস্করণ

স্বর্ণের দোকানে ডাকাতি, নৈশপ্রহরীকে হত্যা

নৈশপ্রহরীকে হত্যার ঘটনাস্থলে পুলিশের তৎপরতা। ছবি : কালবেলা

নোয়াখালীর কবিরহাটে স্বর্ণের দোকানে ডাকাতির সময় শহীদ উল্যাহ (৫৫) নামের এক নৈশপ্রহরীকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। এ সময় দুটি স্বর্ণের দোকানের ২৫৭ ভরি স্বর্ণালংকার, ৩০০ ভরি রূপা ও নগদ তিন লাখ টাকা লুট করে নিয়ে যায় ডাকাতদল। শুক্রবার (৮ ডিসেম্বর) ভোর সাড়ে ৪টার দিকে উপজেলার চাপরাশিরহাট পশ্চিম বাজারে এই ডাকাতি ও হত্যার ঘটনা ঘটে। নিহত শহীদ উল্যাহ উপজেলার ধানশালিক ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের মৃত ছায়েদুল হকের ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, ১৫-২০ জনের ডাকাতদল চাপরাশিরহাট পশ্চিম বাজারের মা-মনি জুয়েলার্স ও নূর জুয়েলার্সের তালা ও সিন্দুক কেটে স্বর্ণালঙ্কার নিয়ে যান। এ সময় বাজারের নৈশপ্রহরী শহীদ উল্যাহ বাধা দিলে ডাকাতরা তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। সকালে মরদেহ উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করে বিষয়টি তদন্ত শুরু করে।

এ বিষয়ে মা-মনি জুয়েলার্সের মালিক মিন্টু চন্দ্র নাথ বলেন, ডাকাতদল পিকআপ নিয়ে এসে আমার দোকানের তালা ও সিন্দুক কেটে ২৫০ ভরি স্বর্ণালংকার, ১৫০ ভরি রূপা ও নগদ তিন লাখ টাকা লুট করে নিয়ে যায়।

নূর জুয়েলাসের্র মালিক নূর আলম বলেন, দোকানের তালা কেটে ডাকাতরা সাত ভরি স্বর্ণালংকার ও ১৫০ ভরি রূপা নিয়ে গেছে। বাজারের ব্যবসায়ীরা বেরিয়ে আসায় স্বর্ণের মূল সিন্দুক ভাঙতে পারেনি তারা।

এদিকে ডাকাতরা পথচারীদেরও সম্পদ লুটে নেয়। ওই বাজারের শরীফ শপিং সেন্টারের মালিক নেয়ামত উল্যাহ (২৭) বলেন, ভোর সোয়া ৪টার দিকে ব্যবসার কাজে ঢাকা যাওয়ার জন্য বাসস্ট্যান্ডে যাচ্ছিলাম। এ সময় ডাকাতরা আমাকে আটক করে। অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে আমার সঙ্গে থাকা চালানের তিন লাখ টাকা ও মোবাইল ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

সিএনজিচালিত অটোরিকশার চালক জাহাঙ্গীর হোসেন বাচ্চু (৪৮) বলেন, ভোর ৪টার দিকে ভাড়া আনতে যাওয়ার সময় ডাকাতরা আমাকে হাত-মুখ বেঁধে পিকআপে তোলে। অস্ত্রের মুখে আমার মোবাইল কেড়ে নেয়। স্কচটেপ দিয়ে হাতমুখ বেঁধে রাখে। সেখানে নামাজ পড়তে বের হওয়া আরও দুজনকেও বেঁধে রেখেছিল।

চাপরাশিরহাট ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন টিটু বলেন, ভোরে বাজারের এক ব্যবসায়ী ফোন করে বিষয়টি আমাকে জানান। বাজারে এসে নৈশপ্রহরী শহীদ উল্যাহর মরদেহ পড়ে থাকতে দেখি।

কবিরহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রফিকুল ইসলাম বলেন, সারা রাত পুলিশ বাজারে ডিউটি করে রাত ৩টার পর অন্য ইউনিয়নে গেলে ডাকাতরা বাজারে হানা দেয়। খবর পেয়ে আমরা নৈশপ্রহরী শহীদ উল্যাহর মরদেহ উদ্ধার করেছি।

নোয়াখালীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোর্তাহীন বিল্লাহ বলেন, দুটি স্বর্ণের দোকানে ডাকাতি এবং নৈশপ্রহরীকে হত্যার ঘটনায় তদন্ত চলছে। এ বিষয়ে যথাযথ আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

মাথাব্যথা কমাতে ওষুধ না খেয়ে কী কী করবেন?

পাকিস্তানে নতুন সরকার গঠনের পরই প্রেসিডেন্ট নির্বাচন

অসাধু ব্যবসায়ীদের কারসাজি রোধে ভোক্তাদেরও সতর্ক থাকাতে হবে : খাদ্যমন্ত্রী

এ কেমন শত্রুতা!

বাজার কারসাজির বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেবে সরকার : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

রমজানে কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করলে কঠোর ব্যবস্থা : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী 

পরকীয়ার জেরে ৩ সন্তা‌নের জননী‌কে গলা কেটে হত্যা, আটক ১

আলভেজকে সাহায্য করে বিপাকে নেইমার

‘আইন গরিবের জন্য, বড়লোকরা বিভিন্নভাবে রক্ষা পায়’

আরও ৩৭ জনের করোনা শনাক্ত

১০

বিএনপি নেতা প্রিন্সের বাসায় মঈন খান

১১

ভাসানচর রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সিলিন্ডার বিস্ফোরণ, পাঁচ শিশুসহ দগ্ধ ৯

১২

খেলার মাঠে ক্রিকেটারের মৃত্যু

১৩

সমাপ্তির পথে ‘ফাস্ট অ্যান্ড ফিউরিয়াস’ ফ্র্যাঞ্চাইজি

১৪

৯৫০ টন কয়লা নিয়ে দুর্ঘটনার কবলে জাহাজ

১৫

চীনে বহুতল ভবনে অগ্নিকাণ্ডে নিহত ১৫

১৬

বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য কানাডায় বৃত্তির সুযোগ

১৭

যুক্তরাষ্ট্রের উপসহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বিএনপির বৈঠক

১৮

প্রথম ফুটবলার হিসেবে জনপ্রিয়তার শীর্ষে মেসি

১৯

পোস্তগোলা সেতু বন্ধ, প্রভাব পড়েনি দৌলতদিয়ায়

২০
X