ডেমরা (ঢাকা) প্রতিনিধি
প্রকাশ : ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:১৬ পিএম
অনলাইন সংস্করণ

জামাইয়ের বাড়িতে শ্বশুর-শ্যালক মিলে চুরি

আলমারি ভেঙে চুরি করে চোর। ছবি : কালবেলা
আলমারি ভেঙে চুরি করে চোর। ছবি : কালবেলা

রাজধানীর ডেমরায় মেয়ের জামাইয়ের বাড়ি ফাঁকা পেয়ে শ্বশুর ও শ্যালক তাদের এক সহযোগীকে নিয়ে চুরি করেছেন। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী মো. ইউসুফ সরকার মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) রাতে ডেমরা থানায় অভিযুক্ত ওই তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

অভিযুক্তরা হলেন- ডেমরার ডগাইর নিউটাউন এলাকার মৃত লাল মিয়া আমিনের ছেলে ও বাদীর শ্বশুর মুখলিছুর রহমান কাসেমী (৬০), তার ছেলে মো. আসাদ (১৪) ও সহযোগী চাঁদপুরের সদর থানার মধ্যইচর গ্রামের মো. আব্দুল কাদেরের ছেলে মো. আরিফুল ইসলাম (২৪)। সিসি ক্যামেরার ফুটেজে চুরির ঘটনা ধরা পড়ায় বর্তমানে আসামিরা পলাতক রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

জানা যায়, ১০ এপ্রিল ঘরে তালা দিয়ে স্বপরিবারে গ্রামের বাড়িতে বেড়াতে যান মো. ইউসুফ। গত ১২ এপ্রিল বিকেলে তারা বাড়ি ফিরে এসে দেখেন ঘরে চুরি হয়েছে। পরে সিসি ক্যামেরার ফুটেজে দেখা যায়, ১১ এপ্রিল গভীর রাতে শ্বশুর, শ্যালক মিলে তাদের এক সহযোগীকে নিয়ে চুরি করেছে। এ সময় তারা ওই ঘরে থাকা নগদ ৯ লাখ টাকা, সাড়ে ৬ ভরি স্বর্ণালঙ্কার যার আনুমানিক বাজারমূল্য ৬ লাখ ৫০ হাজার টাকা, ৭০ হাজার টাকা মূল্যের ১টি মোবাইলফোন, ৩০ হাজার টাকা মূল্যের ১টি ট্যাব, বাড়ির দলিলপত্র, মামলার কাগজপত্র ও ব্যাংকের চেক বই চুরি করে।

এ ছাড়াও এ এলাকায় একই ভবনের ৪টি ফ্ল্যাটে একইসঙ্গে চুরির ঘটনা ঘটেছে। গত ৯ এপ্রিলের সকাল ৯টা থেকে ১৫ এপ্রিল রাত ১১টার যে কোনো সময়ে ২৫৪/৩৫ ভবনে এ চুরির ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, পরিবারের সবার সঙ্গে ঈদ উদযাপনের জন্য মো. সোলাইমান, সামছুর রহমান, বোরহানউদ্দিন, মো. ওয়াহিদুজ্জামান সকলেই ৯ এপ্রিল সকাল ৯টার দিকে দেশের বাড়িতে পাড়ি জমান। তারা সকলেই একই ভবনের বাসিন্দা। পরে ১৫ এপ্রিল রাত ১১টায় বাসায় এসে বাসার আলমারি, শোকেস, আসবাবপত্র ভাঙা দেখতে পান।

ওয়াহিদুজ্জামানের ফ্ল্যাট নং ২/বি থেকে ৩৫ হাজার টাকা, সোলাইমানের ৩/এ থেকে ৪ লাখ ৭০ হাজার টাকা, সামছুর রহমানের ৩/বি থেকে ৬ লাখ টাকা এবং বোরহান উদ্দিনের ৪/এ থেকে ৫৫ হাজার টাকাসহ প্রতিটি ফ্ল্যাটে থাকা সব স্বর্ণালঙ্কারসহ যাবতীয় মালামাল চুরি হয়েছে বলে জানা যায়। এ ভবন থেকে নগদ ১১ লাখ ৬০ হাজার টাকা এবং ৫ লাখ টাকার স্বর্ণালঙ্কার নিয়ে যায় অজ্ঞাত চোর চক্র।

ডেমরা থানার ওসি মো. জহিরুল ইসলাম বলেন, এবার রোজার সময়েই আমরা বিশেষভাবে কখনো মাইকিং কখনো মসজিদে জুমার দিনে মাইকিং করে সবাইকে সজাগ থাকার জন্য অনুরোধ করেছি। কারণ ঈদের লম্বা ছুটিতে অসাধু লোকেরা সুযোগ নিতে পারে। তারপরও কিছু কিছু বিছিন্ন চুরির ঘটনা ঘটছে। আমরা এসব চোরদের ব্যাপারে সিরিয়াস। দ্রুত তাদের আইনের আওয়তায় আনা হবে।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

বুধবার ঢাকার যেসব এলাকায় যাবেন না

ইতিহাসের এই দিনে স্মরণীয় যত ঘটনা

২২ মে : নামাজের সময়সূচি

অবসরের পরেও চেয়ারে তিনি, ৩ দিনে ৩৪ কোটি টাকার ঘুষ

নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় শিক্ষার্থী নিহত

বিনা টিকিটে ১২ বছর রেল ভ্রমণ, অতঃপর...

বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে নারী শ্রমিককে যৌন হয়রানি

ইন্টারন্যাশনাল স্ট্যান্ডার্ড ইউনিভার্সিটির ইংরেজি বিভাগের প্রথম জার্নাল প্রকাশিত

প্রেসিডেন্সি ইউনিভার্সিটিতে ‘সেমিস্টার ডে ২০২৪’ উদ্‌যাপন

ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি শ্রাবণের ওপর হামলার অভিযোগ

১০

খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার খোঁজ নিলেন ফখরুল

১১

যুক্তরাষ্ট্রের কাছে ধরাশায়ী হলো বাংলাদেশ

১২

রাজধানীতে বিটিআরসির অভিযান, সরঞ্জামাদি জব্দ

১৩

৫৪ মণ ওজনের গরু প্রধানমন্ত্রীকে উপহার দিতে চান হামিদা

১৪

নরসিংদীতে বিদ্যুৎস্পর্শে ঝলসে গেছে দুই শিক্ষার্থী

১৫

হবিগঞ্জে খড়ের গাদা থেকে পড়ে কৃষকের মৃত্যু

১৬

কুমিল্লায় শিশু হত্যা মামলায় যুবকের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

১৭

মৌলভীবাজারে গরম মসলার বাজারে অভিযান

১৮

শাবি কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি রমজান, সম্পাদক জাবেদ

১৯

নরসিংদীতে নেতাকর্মীদের ভালোবাসায় সিক্ত বিএনপি নেতা খায়রুল কবির খোকন

২০
X