রাজশাহী ব্যুরো
প্রকাশ : ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০৯:৫০ পিএম
অনলাইন সংস্করণ

বিএনপি-জামায়াত দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে : লিটন

জনসভায় বক্তব্য রাখছেন রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন। ছবি : কালবেলা
জনসভায় বক্তব্য রাখছেন রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন। ছবি : কালবেলা

স্বাধীনতার ৫৪ বছর পরও বিএনপি-জামায়াত এবং যারা এদেশের স্বাধীনতা মেনে নিতে পারেননি, তারা দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন।

বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) বিকেলে আওয়ামী লীগের রাজশাহী জেলা ও মহানগরের উদ্যোগে নগরীর জয় বাংলা চত্বরে (গণকপাড়া মোড়) আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

লিটন বলেন, গত জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে আমরা দেখেছি, যে পরাশক্তি এদেশের স্বাধীনতা চায়নি, তারা বিভিন্ন অপতৎপরতায় লিপ্ত ছিলেন। শেখ হাসিনার বুদ্ধিমত্তায় সব ষড়যন্ত্র পরাজিত হয়েছে, তারা লেজ গুটিয়ে নিয়েছে।

তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্দেশে ১৯৭১ সালের ১৭ এপ্রিল বাংলার মাটিতেই স্বাধীন সার্বভৌম গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রথম শপথগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছিল। জাতীয় চার নেতা সেদিন জীবন-মৃত্যুর ভয় করেননি। বঙ্গবন্ধুর নির্দেশে জাতীয় চার নেতা শপথগ্রহণ করেন। তারা নেতার আদর্শে অবিচল ছিলেন। তারা নিশ্চিত মৃত্যু জেনেও কখনো খুনি খন্দকার মোশতাক ও জিয়াউর রহমান গংদের সঙ্গে আপস করেননি।

তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। দেশের উন্নয়নের সঙ্গে তাল মিলিয়ে সবাইকে সঙ্গে নিয়ে রাজশাহীকে আরও সুন্দর ও উন্নত করা হবে। নগরীর আয়তন কয়েকগুণ বাড়াতে চাই।

মেয়র বলেন, ‘উপজেলা নির্বাচনে দলের পক্ষ থেকে শেখ হাসিনা ও সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের ইতোমধ্যে বলে দিয়েছেন, নির্বাচিত হয়ে কেউ (এমপি) যেন মনে না করে যে এটা আমার প্রার্থী। আমার প্রার্থী মানেই দলের প্রার্থী। অতএব, তাকেই ভোট দাও। এই কথাটি আপনারা (নেতাকর্মীরা) মানবেন না, বিশ্বাস করবেন না। কারণ, বলা হয়েছে- যে গ্রহণযোগ্য, জনগণের কাছে জনপ্রিয়, মানুষের জন্য কাজ করেন, তার অধিকার আছে নির্বাচনে দাঁড়াবার। তাকে যদি লোকাল এমপি সমর্থন দেন, ভালো। না দিলে জনগণ যেটি সমর্থন দেয়, সেটিই আমরা গ্রহণ করতে চাই। ভালো ব্যক্তিত্ব নিয়ে নির্বাচিত হয়ে আসুন। কারও চামচা হয়ে নয়, কারও অপকর্মের সঙ্গী হওয়ার জন্য নয়।

তিনি বলেন, ‘আমরা ভালো মানুষ চাই, যে ভালো মানুষগুলো আগামী দিনে ৩০ বছর, ৪০ বছর নেতৃত্ব দেবেন। উপজেলা চেয়ারম্যান হবেন, আগামীতে কোনো এক সময় এমপি হবেন, মন্ত্রী হবেন। তাদের পথটা সুগম করে দিতে চাই। দলের মধ্যে নির্বাচনের যে লড়াই, সে লড়াইটি গণতান্ত্রিক লড়াই। এই লড়াই আওয়ামী লীগ সমর্থন করেছে। দলের সভানেত্রী ও সাধারণ সম্পাদক যেটি বলেছেন সেটিই আওয়ামী লীগের বক্তব্য। স্থানীয় কারও বক্তব্য আমরা শুনতে চাই না।

রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী কামালের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সদস্য বেগম আখতার জাহান, রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা অনিল কুমার সরকার, রাজশাহী-২(সদর) আসনের সংসদ সদস্য অধ্যক্ষ শফিকুর রহমান বাদশা, রাজশাহী-৩ (পবা-মোহনপুর) আসনের সংসদ সদস্য মুহা. আসাদুজ্জামান আসাদ। জনসভা সঞ্চালনা করেন রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোস্তাক হোসেন ও জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. লায়েব উদ্দিন লাভলু।

এসময় আরও বক্তব্য রাখেন, রাজশাহী-৫ (পুঠিয়া-দুর্গাপুর) আসনের সাবেক সংসদ সদস্য ডা. মনসুর রহমান, রাজশাহী-৪ (বাগমারা) আসনের সাবেক সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক, রাজশাহী-৬ (বাঘা-চারঘাট) আসনের সাবেক সংসদ সদস্য রায়হানুল হক, মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা নওশের আলী, ডা. তবিবুর রহমান শেখ, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ মোস্তাফিজুর রহমান মানজাল, বাঘা পৌরসভার মেয়র আক্কাছ আলী, বোয়ালিয়া থানা (পশ্চিম) আওয়ামী লীগের সভাপতি আতিকুর রহমান কালু, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি আব্দুল মোমিন।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

ভোলায় ভেসে গেল কোটি টাকার মাছ

চুয়াডাঙ্গায় আ.লীগ নেতাকে কুপিয়ে জখম

রাজবাড়ী জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম আহ্বায়ককে অব্যাহতি

স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ভরসা মোমবাতির আলো

ঘূর্ণিঝড় রিমাল / লন্ডভন্ড পিরোজপুর উপকূল, শত কোটির ক্ষয়ক্ষতি

চট্টগ্রামে আ.লীগ কর্মীকে ছুরিকাঘাত করে খুন

২০ টাকায় মোবাইলের ফুল চার্জ!

প্রভাবশালীদের দখলে রংপুরের কাফ্রিখাল বিল

মৌমাছি ‘গণহত্যার’ বিচার চাই

ঘূর্ণিঝড়ের রাতে ব্যাংকে ঢুকে পড়ল ডাকাতদল, অতঃপর...

১০

সরকারের কাছে অনেক রূপকথার কাহিনি আছে : রিজভী

১১

ঘূর্ণিঝড় রিমালে হতাহতের ঘটনায় ফখরুলের শোক

১২

হালদাপাড়ে ডিম সংগ্রহকারীদের নির্ঘুম রাত

১৩

খাবার সংকটে জাতীয় দল ছাড়লেন তিন আর্জেন্টাইন ফুটবলার

১৪

সিরাজগঞ্জে স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতার হাতে সাংবাদিক লাঞ্ছিত

১৫

ঋণ দেওয়ার যোগ্যতা নির্ধারণ করবে প্রাইভেট ক্রেডিট ব্যুরো

১৬

বন্ধ হচ্ছে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার রুটের বিশেষ ট্রেন

১৭

এমপি আনারের দেহাংশ উদ্ধার নিয়ে যা বললেন ডিবিপ্রধান

১৮

বিদ্যুৎবিহীন ডেমরাবাসীর ৩০ ঘণ্টা!

১৯

যে প্রক্রিয়ায় চলছে তাসকিনের সেরে ওঠার মিশন

২০
X