শফিকুল ইসলাম
প্রকাশ : ১২ জুন ২০২৪, ০৩:২০ এএম
আপডেট : ১২ জুন ২০২৪, ০৭:২৬ এএম
প্রিন্ট সংস্করণ

সাংগঠনিক শক্তি বাড়াতে মাঠে তৎপর বিএনপি

দুর্নীতি নিয়ে লিফলেট বিতরণের সিদ্ধান্ত
সাংগঠনিক শক্তি বাড়াতে মাঠে তৎপর বিএনপি

সাংগঠনিক শক্তি জোরদার করতে মাঠপর্যায়ে তৎপরতা বাড়িয়েছে বিএনপি। এর মধ্য দিয়ে নতুন আন্দোলনের প্রস্তুতি নিচ্ছে দলটি। প্রাথমিক পর্যায়ে জনস্বার্থ-সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন ইস্যুতে কর্মসূচি পালনের পরিকল্পনা করছে বিএনপির হাইকমান্ড। এর অংশ হিসেবে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকারের মন্ত্রী-এমপি ও আমলাদের দুর্নীতির তথ্য সংবলিত লিফলেট বিতরণ করা হবে। গত সপ্তাহে দলের সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরাম স্থায়ী কমিটির ভার্চুয়াল বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি ছাত্রদল, যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দল ও কৃষক দলের পক্ষ থেকে সারা দেশে তৃণমূল নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় হচ্ছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

এদিকে বিএনপির স্থায়ী কমিটির ওই সভায় দলের জাতীয় কাউন্সিলের বিষয়ে ফের আলোচনা হয়। কমিটির সদস্য সালাহউদ্দিন আহমেদ অনির্ধারিত আলোচনায় বিষয়টি উত্থাপন করলে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরও সহমত পোষণ করেন। কাউন্সিলের পক্ষে তিনি যুক্তি তুলে ধরে বলেন, ‘এখনই কাউন্সিল করার সময়’। দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানও তাদের বক্তব্যে সায় দেন। তবে এ নিয়ে আলোচনা বেশিদূর এগোয়নি।

বিএনপি নেতারা জানান, দ্বাদশ জাতীয় নির্বাচনের আগে সরকার পতনের দাবিতে টানা একদফার আন্দোলন করতে গিয়ে নানা কারণে ক্লান্ত হয়ে পড়েন দলটির নেতাকর্মীরা। প্রায় ২৮ হাজার নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার ও কারারুদ্ধ করা হয়। ইতোমধ্যে তাদের প্রায় সবাই কারামুক্ত হয়েছেন। ফলে আবারও সাংগঠনিক শক্তি বৃদ্ধির মাধ্যমে নতুনভাবে আন্দোলনে নামতে চায় বিএনপি।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সেনাবাহিনীর সাবেক প্রধান আজিজ আহমেদ ও পুলিশের সাবেক প্রধান বেনজীর আহমেদের দুর্নীতির ঘটনায় সরকারের মনোভাব নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছে বিএনপি। পাশাপাশি সরকারের গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করা বর্তমান ও সাবেক শীর্ষ কর্মকর্তা এবং ক্ষমতাসীন দলের সাবেক ও বর্তমান এমপি-মন্ত্রী এবং নেতাদের ব্যক্তিগত দুর্নীতি অনুসন্ধান করা হচ্ছে। এ জন্য একটি কমিটি গঠন করা হবে। পাশাপাশি সরকার-সংশ্লিষ্ট দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তা ও মন্ত্রী-এমপি ও নেতাদের দুর্নীতি নিয়ে লিফলেট বিতরণ করবে দলটি।

বিএনপির নীতিনির্ধারকদের মতে, দেশ পরিচালনায় আওয়ামী লীগ সরকারের ‘ব্যর্থতা’, ‘সীমাহীন দুর্নীতি’ এবং ‘ভয়াবহ অর্থনৈতিক সংকট’ সহজে কাটবে না। আগামী দিনে ক্ষমতাসীনদের দুর্নীতি ও অর্থনৈতিক সংকটকে সামনে রেখেই ফের আন্দোলনের ভিত তৈরির লক্ষ্যে কাজ করছেন তারা। সর্বশেষ গত ৩ জুন অনুষ্ঠিত স্থায়ী কমিটির সভায় এসব বিষয় ছাড়াও সাংগঠনিক বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ইস্যুতে আলোচনা হয়।

স্থায়ী কমিটির দুজন সদস্য কালবেলাকে জানান, সরকারের দুর্নীতির বিভিন্ন তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ করা হচ্ছে। আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে সেগুলো উপস্থাপন করা হবে। এ ছাড়া খাতভিত্তিক দুর্নীতির খতিয়ান তৈরি করে তা সারা দেশে লিফলেট আকারে বিতরণসহ ঢাকায় সভা-সমাবেশ করার পরিকল্পনাও হচ্ছে। যদিও এখনো কোনো কর্মসূচি চূড়ান্ত হয়নি। শিগগিরই এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত আসবে বলে জানা গেছে।

জানতে চাইলে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু কালবেলাকে বলেন, ‘শাসকগোষ্ঠীর দুর্নীতি আর লুটপাটে দেশের অর্থনীতি তছনছ হয়ে গেছে। রিজার্ভ ও ডলারের ঘাটতি চরমে। দেশের কী অবস্থা তা সবাই টের পাচ্ছেন। এনপির নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে কিছু হলেই মিথ্যা মামলা আর সাজা দেওয়া হয়। এখন সেনাবাহিনীর সাবেক প্রধান আজিজ আহমেদ ও পুলিশের সাবেক প্রধান বেনজীর আহমেদের পাহাড়সমান দুর্নীতির তথ্য বের হলেও দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) কোনো তৎপরতা নেই কেন? এ ধরনের অসংখ্য আজিজ-বেনজীর বানিয়েছে আওয়ামী লীগ। সুতরাং একটি দায়িত্বশীল রাজনৈতিক দল হিসেবে বিএনপি ক্ষমতাসীনদের লুটপাট ও দুর্নীতির চিত্র জাতির সামনে তুলে ধরতে কাজ করছে।’

জানা গেছে, আজিজ ও বেনজীর ইস্যুতে গণমাধ্যমে নানা তথ্য প্রকাশিত হলেও তাতে সরকার কোনো হস্তক্ষেপ না করায় বিএনপি নেতারা সংশয় প্রকাশ করেন। স্থায়ী কমিটির বৈঠক এ নিয়ে আলোচনা হয়। সেখানে নেতারা বলেন, আজিজ-বেনজীরের দুর্নীতির খবর নিয়ে গণমাধ্যম সরব হলেও এ-সংক্রান্ত সংবাদ প্রকাশে সরকারের পক্ষ থেকে কোনো বাধা দেওয়া হচ্ছে না। অথচ সংবাদ প্রকাশের নিয়ে সরকার অতটা সহনশীলও নয়।

বিএনপি নেতাদের কারও কারও প্রশ্ন, আজিজ ও বেনজীর ইস্যু সামনে রেখে সরকার অন্য কোনো বড় কাজ করছে কি-না? হয়তো সরকার অর্থনীতিসহ অন্য ধরনের বড় চাপে আছে যা প্রকাশ করতে চাইছে না। এ জন্য আজিজ-বেনজীর ইস্যু জিইয়ে রাখছে।

বৈঠকে বিএনপি নেতাদের আলোচনায় সরকার-সংশ্লিষ্ট আরও অনেকের দুর্নীতির অভিযোগের বিষয়টি উঠে আসে। বৈঠকে আনারের একজন ‘রাজনৈতিক গডফাদার’ নিয়েও আলোচনা হয়। তবে ভারতের মাটিতে একজন এমপিকে খুনের পর লাশ গুম করা হলেও সরকারের আচরণ রহস্যজনক মনে করছেন নেতারা।

বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য মিজানুর রহমান ভূঁইয়া মিল্টন কালবেলাকে বলেন, ‘আজিজ-বেনজীরের দুর্নীতির খবরে প্রশাসনের ভেতরে-বাইরে সবাই আতঙ্কিত। কারণ, ক্ষমতাসীনরা প্রয়োজনে বেনজীর ও আজিজদের মতো সরকারি কর্মকর্তাদের ব্যবহারের মাধ্যমে অনৈতিক স্বার্থ হাসিল করেছে। বিনিময়ে তাদেরও অনৈতিক সুবিধা দিয়েছে। এখন নিজেরা বাঁচতে বড় গলায় দুর্নীতির বিরুদ্ধে কথা বলছে আওয়ামী লীগ। প্রকৃতপক্ষে আওয়ামী লীগ সরকার গণতান্ত্রিক ও সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানগুলো ধ্বংস করে ক্ষমতায় টিকে আছে। তবে দেশের মানুষ বোকা নয়। তারা সবকিছুই বুঝে। যারা আমলাদের দুর্নীতির সুযোগ ও প্রশ্রয় দিয়েছে তাদেরও বিচার হওয়া উচিত।’

এদিকে সরকারের পদত্যাগের একদফা আন্দোলনের নয়া কর্মসূচি নিয়ে শিগগিরই রাজপথে নামতে চায় বিএনপি। কর্মসূচি শুরুর আগে দলীয় নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ ও তাদের উজ্জীবিত করতে সারা দেশে কর্মিসভা, কারামুক্ত নেতাকর্মীদের সংবর্ধনাসহ বিভিন্ন কর্মসূচি অব্যাহত রয়েছে। বিশেষ করে দেশের তরুণ সমাজকে টার্গেট করে ছাত্রদল, যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দল ও কৃষক দল মাঠে কাজ করছে।

যুবদল সাধারণ সম্পাদক মোনায়েম মুন্না বলেন, ‘আমাদের অসংখ্য নেতাকর্মী হামলা-মামলায় জর্জরিত। যুবদল নেতৃবৃন্দের খোঁজ খবর নেওয়া এবং সংগঠনকে সুসংগঠিত, শক্তিশালী করার লক্ষ্যে আমরা তৃণমূলে সফর করছি।’

ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক নাছির উদ্দিন নাছির জানান, তারা রাজশাহী ও ফরিদপুর বিভাগের কর্মিসভা শেষ করেছেন। কোরবানির পর চট্টগ্রাম বিভাগে কর্মিসভা ফের শুরু হবে। তাছাড়া কেন্দ্রীয় কমিটি পূর্ণাঙ্গ করার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

পর্যায়ক্রমে সারা দেশে মতবিনিময় সভা করছে কৃষক দলও। স্বেচ্ছাসেবক দলের সাংগঠনিক সম্পাদক নাজমুল হাসান বলেন, ‘সারা দেশে নির্যাতিত নেতাকর্মীদের খোঁজ নিয়ে টিম গঠন করা হয়েছে। দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা তৃণমূল সফর করছেন।’

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

দেখে নিন সেমির সময়সূচি

পশ্চিমাদের বিরুদ্ধে ইরানি সাফল্যের রহস্য

পরীমণির সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্কে চাকরি হারাচ্ছেন সেই সাকলায়েন

ময়মনসিংহ ও নেত্রকোনায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধ

গোমতীর পাড়ে সৌন্দর্য বিলাচ্ছে তিতবেগুন ফুল

জামিন পেলেন পরীমণি

বাংলাদেশকে হারিয়ে সেমিতে উঠে আফগানদের ইতিহাস

চিনি চোরাচালানে অভিনব কায়দা, বিপাকে পুলিশ

দুটি রাসেলস ভাইপার পিটিয়ে মারল এলাকাবাসী

কাঠ পুড়িয়ে কৃত্রিম কয়লা তৈরি, হুমকিতে পরিবেশ

১০

ভালো নেই মাহালী জনগোষ্ঠীর বাঁশ শিল্পের কারিগররা

১১

আত্মসমর্পণ করলেন পরীমণি

১২

গ্যালারিতে বসে দলের ছন্নছাড়া ফুটবল দেখলেন নেইমার

১৩

শীর্ষ করদাতা কাউছ মিয়া মারা গেছেন

১৪

সন্ধান মিলল ছাগলকাণ্ডের সেই মতিউরের

১৫

অবশেষে কারামুক্ত জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জ, ফিরলেন নিজ দেশে

১৬

পুলিশ সদস্যদের দুর্নীতি ইস্যু এবার মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরে

১৭

একের পর এক উইকেট হারাচ্ছে বাংলাদেশ

১৮

পুকুরে ডুবে ৩ শিশুর মৃত্যু

১৯

হত্যা মামলার আসামি যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে জখম

২০
X