হাতীবান্ধা (লালমনিরহাট) প্রতিনিধি
প্রকাশ : ১৯ মে ২০২৪, ১২:০১ এএম
অনলাইন সংস্করণ

অবশেষে লালমনিরহাটে কাঙ্ক্ষিত বৃষ্টি

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় বিভিন্ন স্থানে ঝরছে বহুল কাঙ্ক্ষিত স্বস্তির বৃষ্টি। ছবি : কালবেলা
লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় বিভিন্ন স্থানে ঝরছে বহুল কাঙ্ক্ষিত স্বস্তির বৃষ্টি। ছবি : কালবেলা

তীব্র দাবদাহের পর অবশেষে লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় বিভিন্ন স্থানে ঝরছে বহুল কাঙ্ক্ষিত স্বস্তির বৃষ্টি। সঙ্গে বইছে হিমেল হাওয়া।

শনিবার (১৮ মে) সকাল থেকে সূর্যের তেজ কম থাকায় দেখা মেলে মেঘের।

অন্যদিনের তুলনায় তাপমাত্রা অনেকটা কম ছিল আজ। দিনের বেলা মেঘের দেখা মিললেও বৃষ্টির দেখা মেলেনি। অবশেষে রাত ৯টার দিকে দেখা মেলে সেই কাঙ্ক্ষিত স্বস্তির বৃষ্টির।

প্রায় দুই মাস তীব্র দাবদাহে মাঠঘাট ফেটে চৌচির। প্রচণ্ড গরমে শ্রমজীবী মানুষের জীবন অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে। তবে আজ সারাদিন সূর্যের তেজ তেমন একটা দেখা যায়নি। ফলে আকাশে কালো মেঘের আনাগোনা বাড়ে। দিন শেষে সন্ধ্যা নামলেই শুরু হয় মেঘের গর্জন। পরে দেখা মেলে কাঙ্ক্ষিত স্বস্তির বৃষ্টির। এতে জনমনে কিছুটা হলেও স্বস্তি নেমে আসে। তবে বৃষ্টিতে সাময়িক ভোগান্তিতে পড়েছে পথচারী, মোটরসাইকেল চালক, ফুটপাতের দোকানদারগণ।

ফুটপাতের কয়েকজন দোকানদারের সঙ্গে কথা বললে তারা বলেন, বৃষ্টিতে সাময়িক একটু ভোগান্তিতে পড়েছি। তবে স্বস্তির বৃষ্টি ও হিমেল বাতাসে সকল ভোগান্তি ধুয়েমুছে দিয়েছে। প্রায় দুই মাস ধরে প্রচণ্ড গরমে আমাদের জীবন অতিষ্ঠ হয়ে গেছে। এই বৃষ্টিতে একটু শান্তি পাচ্ছি।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

পেট্রোডলার ছেড়ে চীনের ইউয়ানের দিকে ঝুঁকছে সৌদি আরব

মিয়ানমারে যুদ্ধবিরতির পেছনে কলকাঠি নাড়ছে চীন

নচিকেতা ও আলতাফেরে ‘লক্ষ্য একই’

ঈদের আগেই কাঁচা মরিচের দাম ৪০০ টাকা

‘রাজপুত্র’ নেইমার কি পারবেন রাজা হতে?

জমে উঠেছে শেষ মুহূর্তের কোরবানির পশুর হাট

খাইটা বিক্রি হচ্ছে ওজনে!

ঘূর্ণিঝড় রিমালে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে নেই ঈদ আনন্দ

চামড়া কেনাবেচায় সিন্ডিকেট করলে কঠোর ব্যবস্থা : ডিএমপি কমিশনার

হাট ঘুরে ক্রেতা-বিক্রেতাদের খোঁজ নিলেন মেয়র

১০

রাতে ৬০ কিমি বেগে ঝড়ের আভাস, সতর্ক সংকেত

১১

আগামী বিশ্বকাপের টিকিট কি পাবে পাকিস্তান-নিউজিল্যান্ড?

১২

আমের কেজি ৩ লাখ টাকা, চাষ হচ্ছে বাংলাদেশে

১৩

সেন্টমার্টিন ইস্যু নিয়ে যা বললেন ফখরুল

১৪

পাখা ছাড়া ঘুমাতে পারে না জমিদার

১৫

ঈদ জামাতের জন্য প্রস্তুত শোলাকিয়া

১৬

বাজারের প্রধান আকর্ষণ কালো পাহাড়

১৭

ভাই হারালেন ডিপজল 

১৮

সংবর্ধিত হলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শুসেন চন্দ্র শীল

১৯

সিলেটে পশুর হাটে কমছে না দাম, ক্রেতাদের অপেক্ষা

২০
X