চবি প্রতিনিধি
প্রকাশ : ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১১:৫৯ পিএম
অনলাইন সংস্করণ

চবিতে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগ কর্মীকে মারধর

ভুক্তভোগী আশিকুজ্জামান জয়। ছবি : সংগৃহীত
ভুক্তভোগী আশিকুজ্জামান জয়। ছবি : সংগৃহীত

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি) আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের একই গ্রুপের কর্মীকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে। অভিযুক্ত ও ভুক্তভোগী সবাই শাখা ছাত্রলীগের উপ-গ্রুপ বিজয়ের একাংশের অনুসারী।

সোমবার (২২ এপ্রিল) রাত ১১ টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ে এ এফ রহমান হলের ৪৪০ নাম্বার কক্ষে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী আশিকুজ্জামান জয় পরিসংখ্যান বিভাগের ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী। বিগত ৪ বছর ধরেই তিনি এ এফ রহমান হলের আবাসিক শিক্ষার্থী ও শাখা ছাত্রলীগের উপ-গ্রুপ বিজয়ের কর্মী।

মারধরের ঘটনায় অভিযুক্তরা হলেন, লোকপ্রশাসন বিভাগের ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী আব্দুল্লাহ আল জোবায়ের নিলয়, যোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের আলফাত রাব্বাকিয়ান মামুন, রাজনীতি বিজ্ঞান বিভাগের ফয়সাল মিয়া (আতিশ ফয়সাল), ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের তনয় কান্তি সরকার ও ডেভলপমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের শাকিল আহমেদ, উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের রাসেল রাজসহ মোট ১৫-২০ জন মারধরে অংশ নেয় বলে জানিয়েছেন ভুক্তভোগী আশিক। অভিযুক্ত সবাই ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী।

মারধরের বিষয়ে জানতে চাইলে ভুক্তভোগী আশিকুজ্জামান জয় জানান, কাল রাতে ইলিয়াস ভাইয়ের সঙ্গে আমার সম্পর্ক কেন খারাপ এই জেরে আলাওল হলের আল জোবায়ের নিলয়, রাব্বাকিয়া মামুন, আতিশ ফয়সাল, তনয় কান্তি সরকার, ও এফ রহমান হলের শাকিল আহমেদ, রাসেল রাজ-সহ ১৫-২০ জন মিলে আমাকে আমার ৪৪০ নং রুমে হত্যার চেষ্টা করে। আমার শরীরে চেয়ার ভাঙ্গা থেকে শুরু করে নানাভাবে আমাকে নির্যাতন করা হয়েছে।

তিনি জানান, মারধরের এক পর্যায় হলের ছাদ থেকে ফেলে দিতে চাইলে আমি ওদের ধাক্কা দিয়ে কোনভাবে দৌড়ে পালিয়ে যাই। পরে আমাকে হলের গেটে আবার মারধর করে। যখন আমাকে মেডিকেলে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল হলের সিসিটিভি ফুটেজ দেখলে সেটা প্রমাণ মিলবে। তারপর হলের ২জন সিনিয়রদের সহযোগিতায় আমাকে বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিকেলে নিয়ে যাওয়া হয়।

তিনি আরও জানান, এমনভাবে আমাকে মারা হয়েছে আমি জানিনা কবে সুস্থ হবো। অপরাজনীতির শিকার হয়ে আমাকে যেভাবে মারা হয়েছে আমি এর বিচার প্রশাসনের কাছে চাই। এ বিষয়ে প্রক্টর স্যারকে সঙ্গে সঙ্গে জানিয়েছিলাম, স্যার আমাকে সুষ্ঠু বিচারের আশ্বাস দিয়েছেন। আমি লিখিত অভিযোগ দিবো।

সরেজমিনে পর্যবেক্ষণ করে জানা গেছে, মূলত বিজয় গ্রুপের একাংশের নেতা শাখা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ইলিয়াসের সঙ্গে সম্পর্ক খারাপ ও মাদক সেবনের জন্যেই মারধর করা হয়েছে বলে অভিযোগ ভুক্তভোগী আশিকুজ্জামান জয়ের। অপরদিকে হলে মাদক কারবারের বিষয়ে নিষেধ করতে গিয়ে কথার কাটাকাটি ও পরে ধস্তাধস্তি হয়েছে বলে দাবি অভিযুক্তদের।

মারধরের বিষয়ে জানতে চাইলে অভিযুক্ত আব্দুল্লাহ আল জোবায়ের নিলয় বলেন, ওই ছেলে (আশিকুজ্জামান জয়) মাদকাসক্ত এবং হলে দীর্ঘদিন ধরে মাদকের আস্তানা তৈরি করে রেখেছে। তার এসব কর্মকাণ্ডের কারণে হলের সিনিয়র জুনিয়র সকলেই বিরক্ত। আমরা বিভিন্ন সময় নানাভাবে তাকে এসব থেকে বিরত থাকতে বলে আসতেছি কিন্তু তিনি কিছুতেই কর্ণপাত করেনা। ঘটনার দিনও আমরা সেশনের সব বন্ধুরা মিলে তাকে এ নিয়ে বুঝাতে গিয়েছিলাম। কিন্তু তিনি আমাদের সঙ্গে চরমভাবে খারাপ ব্যবহার করে এবং অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে। যার কারণে সেখানে থাকা কয়েকজন রেগে যায় এবং ধস্তাধস্তির ঘটনা ঘটে।

অপর অভিযুক্ত রাসেল রাজ বলেন, আমরা শুধু কথা বলতে গিয়েছিলাম। মারধরের কোনো উদ্দেশ্যই আমাদের ছিলনা। বাইরে থেকে আমরা কোনো অস্ত্রই নিয়ে যাইনি। তিনি যে লাঠিসোটা ও হকিস্টিকের কথা বলছে তা সম্পন্ন মিথ্যা।

এ বিষয়ে জানতে বিজয় গ্রুপের একাংশের নেতা মোহাম্মদ ইলিয়াসের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তিনি সাড়া দেননি।

এ বিষয়ে এ এফ রহমান হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক আলী আরশাদ চৌধুরীর কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান, আমি সদ্য নিয়োগ পেয়েছি এই হলে এজন্য এখনো অনেক বিষয় জানিনা। তবে যারা এ ধরনের কাজের সঙ্গে জড়িত আছে তাদের বিরুদ্ধে প্রক্টরিয়াল বডি ব্যবস্থা নিবে। আর খুব শীঘ্রই তাদের ছাত্র ও বহিষ্কৃতদের বের করে বৈধভাবে সিট বরাদ্দ দেওয়া হবে।

এ বিষয়ে চবি প্রক্টর ড. অহিদুল আলম বলেন, গতকাল রাতে ঘটনা জানার পর এফ রহমান হলে সহকারী প্রক্টর পাঠিয়েছিলাম। আজকে সকালে আমিও এফ রহমান হলে গিয়েছিলাম তবে ভুক্তভোগী কোনো একটা কটেজে অবস্থান করাতে দেখা করতে পারিনি। এভাবে কেউ কাউকে মারধর করাটা বড় অপরাধ। ভুক্তভোগী এখনও প্রক্টর অফিসে কোনো অভিযোগ করেনি। অভিযোগ করলে আমরা এটা নিয়ে কাজ শুরু করব।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

বুধবার ঢাকার যেসব এলাকায় যাবেন না

ইতিহাসের এই দিনে স্মরণীয় যত ঘটনা

২২ মে : নামাজের সময়সূচি

অবসরের পরেও চেয়ারে তিনি, ৩ দিনে ৩৪ কোটি টাকার ঘুষ

নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় শিক্ষার্থী নিহত

বিনা টিকিটে ১২ বছর রেল ভ্রমণ, অতঃপর...

বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে নারী শ্রমিককে যৌন হয়রানি

ইন্টারন্যাশনাল স্ট্যান্ডার্ড ইউনিভার্সিটির ইংরেজি বিভাগের প্রথম জার্নাল প্রকাশিত

প্রেসিডেন্সি ইউনিভার্সিটিতে ‘সেমিস্টার ডে ২০২৪’ উদ্‌যাপন

ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি শ্রাবণের ওপর হামলার অভিযোগ

১০

খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার খোঁজ নিলেন ফখরুল

১১

যুক্তরাষ্ট্রের কাছে ধরাশায়ী হলো বাংলাদেশ

১২

রাজধানীতে বিটিআরসির অভিযান, সরঞ্জামাদি জব্দ

১৩

৫৪ মণ ওজনের গরু প্রধানমন্ত্রীকে উপহার দিতে চান হামিদা

১৪

নরসিংদীতে বিদ্যুৎস্পর্শে ঝলসে গেছে দুই শিক্ষার্থী

১৫

হবিগঞ্জে খড়ের গাদা থেকে পড়ে কৃষকের মৃত্যু

১৬

কুমিল্লায় শিশু হত্যা মামলায় যুবকের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

১৭

মৌলভীবাজারে গরম মসলার বাজারে অভিযান

১৮

শাবি কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি রমজান, সম্পাদক জাবেদ

১৯

নরসিংদীতে নেতাকর্মীদের ভালোবাসায় সিক্ত বিএনপি নেতা খায়রুল কবির খোকন

২০
X