কালবেলা প্রতিবেদক
প্রকাশ : ১৯ অক্টোবর ২০২৩, ০৯:১২ পিএম
আপডেট : ১৯ অক্টোবর ২০২৩, ০৯:১৫ পিএম
অনলাইন সংস্করণ

ঢাকে কাঠি পড়ছে কাল 

বনানী পূজামণ্ডপ পরিদর্শন করেন মার্কিন রাষ্ট্রদূত। ছবি : কালবেলা
বনানী পূজামণ্ডপ পরিদর্শন করেন মার্কিন রাষ্ট্রদূত। ছবি : কালবেলা

ঢাকে কাঠি পড়ছে কাল। মহাষষ্ঠী তিথিতে দেবির বোধনের মধ্য দিয়ে কাল থেকে শুরু হচ্ছে সনাতন সম্প্রদায়ের পাঁচ দিনব্যাপী প্রধান ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা। আগামী ২৪ অক্টোবর বিজয়া দশমীর পর প্রতীমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে উৎসবের সমাপ্তি ঘটবে। ইতোমধ্যে দেশের সব মণ্ডপে সার্বিক প্রস্তুতি প্রায় সম্পন্ন হয়েছে। বসানো হয়েছে প্রতীমা। শেষ মুহূর্তে রঙ তুলির আচড়ে দেবী দুর্গাকে রাঙিয়ে তোলার চেষ্টা করছেন শিল্পীরা। চলছে আলোকসজ্জার কাজ। উৎসব উপলক্ষে নগরীর প্রায় সব পূজা মণ্ডপে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর পুরোনো ঢাকাসহ বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, উৎসবকে কেন্দ্র করে রীতিমতো সাজসাজ রব। এখন পূজার উপকরণ কিনছেন অনেকেই। ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দির ঘিরে দিনভর পূজার আয়োজনের পাশাপাশি নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে কাজ করছেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। মার্কেটগুলোতে চলছে শেষ মুহূর্তের কেনাকাটা। বিশেষ করে শিশুদের মধ্যে বাড়তি আনন্দ লক্ষ্য করা গেছে।

বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ বলছে, এ বছর সারা দেশে ৩২ হাজার ৪০৭টি মণ্ডপে পূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। আর মহানগর সার্বজনীন পূজা কমিটির নেতারা জানিয়েছেন, এ বছর রাজধানীতে পূজার সংখ্যা ২৪৬টি।

দুর্গা শব্দের অর্থ হলো ব্যূহ বা আবদ্ব স্থান। যা কিছু দুঃখ-কষ্ট মানুষকে আবদ্ধ করে- যেমন বাধাবিঘ্ন, ভয়, দুঃখ, শোক, জ্বালা, যন্ত্রণা এসব থেকে তিনি ভক্তকে রক্ষা করেন। শাস্ত্রকাররা দুর্গার নামে অন্য একটি অর্থ করেছেন। দুঃখের দ্বারা যাকে লাভ করা যায় তিনিই দুর্গা। দেবী দুঃখ দিয়ে মানুষের সহ্যক্ষমতা পরীক্ষা করেন। তখন মানুষ অস্থির না হয়ে তাকে ডাকলেই তিনি তার কষ্ট দূর করেন।

হিন্দু পুরাণ মতে দুর্গাপূজার সঠিক সময় হলো বসন্তকাল কিন্তু বিপাকে পড়ে রামচন্দ্র, রাজা সুরথ এবং বৈশ্য সমাধি বসন্তকাল পর্যন্ত অপেক্ষা না করে শরতেই দেবিকে অসময়ে জাগ্রত করে পূজা করেন। সেই থেকে অকাল বোধন হওয়া সত্ত্বেও শরত কালে দুর্গাপূজা প্রচলিত হয়ে যায়।

বিশুদ্ধ সিদ্ধান্ত পঞ্জিকা মতে, জগতের মঙ্গল কামনায় দেবী দুর্গা এবার ঘোটকে (ঘোড়ায়) চড়ে কৈলাশ থেকে মর্ত্যালোকে (পৃথিবী) আসবেন। এতে প্রাকৃতিক বিপর্যয়, রোগ শোক হানাহানি মারামারি বাড়বে। অন্যদিকে কৈলাশে (স্বর্গে) বিদায়ও নেবেন ঘোড়ায় চড়ে। যার ফলে জগতে মড়ক ব্যাধি এবং প্রাণহানির মতো ঘটনা বাড়বে।

সম্রাট আকবরের শাসনামলে রাজশাহীর তাহেরপুরের রাজা কংশনারায়ণ বঙ্গভূমিতে সর্বপ্রথম দুর্গাপূজা প্রচলন করেন। দেবী দুর্গা যেহেতু অসুরদের দলপতি মহিষাসুরকে বধ করে দেবকুলকে রক্ষা করেছিলেন, তাই তিনি সত্য, শুভ ও ন্যায়ের পক্ষে সংগ্রামকারীদের আজও আদর্শ ও অনুপ্রেরণা দানকারী। দুর্গা অর্থই যিনি দুর্গতি নাশ করেন। এ ছাড়া রাজা সুরথের দুর্গাপূজা করার কথা বিভিন্ন ধর্মীয় গ্রন্থে উল্লেখ থাকলেও ১৬১০ সালে কলকাতার রাজা সাবর্ণ রায় চৌধুরী সপরিবারে দুর্গাপূজার প্রচলন করেন। সেই প্রচলিত ধারায় দুর্গাপূজা সর্বজনীনতা পায়।

শারদীয় দুর্গোৎসবের তিন পর্ব, মহালয়া, বোধন আর সন্ধিপূজা। মহালয়ায় পিতৃপক্ষ সাঙ্গ করে দেবীপক্ষের দিকে যাত্রা শুরু হয়। এদিন থেকে মণ্ডপে মণ্ডপে অধিষ্ঠান করেন মা মহামায়া। এই দিন চণ্ডী পাঠের মধ্য দিয়ে দেবী দুর্গাকে আবাহন জানানো হয় মর্ত্যলোকে। মানবকল্যাণ প্রতিষ্ঠায় মহাশক্তির প্রতীক দেবী দুর্গা প্রতিবছর শরৎকালে হিমালয়ের কৈলাশ ছেড়ে দুর্গা দেবী মর্ত্যে আসেন। ভক্তদের কল্যাণ সাধন করে শত্রুর বিনাশ ও সৃষ্টিকে পালন করেন। তার সঙ্গে থাকেন জ্ঞানের প্রতীক দেবী সরস্বতী; ধন ও ঐশ্বর্যের প্রতীক দেবী লক্ষ্মী; সিদ্ধিদাতা গণেশ এবং বলবীর্য ও পৌরুষের প্রতীক কার্তিক। মূল প্রতিমায় দেবীর রূপ কল্পনা করে আট উপাচারে অর্থাৎ দেবীর অধিবাসের মধ্য দিয়ে ষষ্ঠী পূজায় ভক্তরা দেবীবন্দনা শুরু করেন। প্রচলিত বিশ্বাস এই, দেবীর পূজার শ্রেষ্ঠ সময় হচ্ছে বসন্তকাল। চৈত্রমাসের শুক্লাষষ্ঠী থেকে নবমী পর্যন্ত দেবীর বাসন্তী পূজার রীতিও প্রচলিত আছে।

বছরের আশ্বিন-কার্তিকের পঞ্চমী থেকে দশমী তিথির পাঁচ দিন ‘জগজ্জননী’ দুর্গা দেবী পিতৃগৃহ ঘুরে যান। বিজয়া দশমীতে বিহিত বিসর্জনাঙ্গ পূজা, বিসর্জন, বিজয়া দশমী কৃত্য ও কুলাচারানুসারে বিসর্জনান্তে অপরাজিতা পূজা হয়। এই দশমী তিথিই বিজয়া দশমী নামে খ্যাত। দুর্গতিনাশিনী দেবী দুর্গা মর্ত্যলোক ছেড়ে স্বর্গশিখর কৈলাশে স্বামীগৃহে ফিরে যান। পেছনে ফেলে যান ভক্তদের শ্রদ্ধা ও আনন্দমাখা জল। ভক্তদের কাছে রেখে যান আগামী বছরে ফিরে আসার অঙ্গীকার।

বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি জে এম ভৌমিক কালবেলাকে বলেন, সারা দেশে উৎসবমুখর পরিবেশের মধ্য দিয়ে শুক্রবার থেকে শারদীয় দুর্গোৎসব শুরু হতে যাচ্ছে। ইতোমধ্যে সাবির্ক প্রস্তুতি শেষ করার কথা জানিয়ে তিনি বলেন, শরিয়তপুরে সর্বশেষ একটি দুর্গা প্রতিমা ভাঙচুর হয়েছে। এ ঘটনায় অপরাধীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিচ্ছে স্থানীয় প্রশাসন। এর বাইরে অন্যান্য জেলা ও উপজেলা থেকে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত রিপোর্ট ভালো এসেছে।

মহানগর সার্বজনীন পূজা কমিটির সভাপতি মনীন্দ্র কুমার নাথ কালবেলা জানান, দুর্গোৎসবের সর্বশেষ প্রস্তুতি প্রায় শেষ পর্যায়ে। সরকারের পক্ষ থেকে সার্বিক নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে সন্তুষ্টির কথা জানিয়ে তিনি বলেন, ২২ অক্টোবর মহাঅষ্টমীতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঢাকেশ্বরী মন্দিরে আসবেন। শুক্রবার সকলে মহানগর সার্বজনীন পূজা মণ্ডপ পরিদর্শনে আসবেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। ১১টায় দুঃস্থদের মধ্যে বস্ত্র বিতরণ করবেন নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী। বৃহস্পতিবার সকালে ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দিরে গিয়ে নিরাপত্তা প্রস্তুতি ঘুরে দেখেন ডিএমপি কমিশনার হাবিবুর রহমান। র‌্যাবের পক্ষ থেকে মন্দির পরির্দশন করা হয়েছে।

২১ অক্টোবর মহাসপ্তমী, ২২ অক্টোবর মহাঅষ্টমী ও কুমারী পূজা, ২৩ অক্টোবর মহানবমী এবং ২৪ অক্টোবর বিজয়া দশমীর মাধ্যমে শারদোৎসবের সমাপ্তি ঘটবে। এবার বিজয়া দশমী পড়েছে মঙ্গলবার। এদিন বিকাল ৩টার পর থেকে প্রতীমা বিসর্জনের কথা বলা হয়েছে। এবার রাজধানীতে পূজার সংখ্যা ২৪৬টি।

মহানগর সার্বজনীন পূজা কমিটির নেতারা জানান, দশমীতে পলাশীর মোড় থেকে প্রতিবছরের ন্যায় বিজয়া শোভাযাত্রা বের হয়ে সদরঘাটের বুড়িগঙ্গার ওয়াইজ ঘাটে প্রতীমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে শেষ হবে।

এদিকে, আজ সকালে বনানী পূজা মণ্ডপ পরিদর্শন করেছেন মার্কিন রাষ্ট্রদূত পিটার হাস। এ কথা জানিয়ে বনানী সার্বজনীন পূজা কমিটির সভাপতি পান্না লাল দত্ত বলেন, মার্কিন রাষ্ট্রদূত এসে আমাদের পূজার প্রস্তুতি দেখে গেছেন। তিনি আমাদের সঙ্গে সকালের নাস্তা করে কুশল বিনিময় করেন। বৃহস্পতিবার রাতে মণ্ডপে প্রতীমা বসানোর কথাও জানান তিনি।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

নীলফামারীতে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

২৫ মে : নামাজের সময়সূচি

ময়মনসিংহে বাস চাপায় স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যু

ঘুষ নিয়েও কাজ না করায় ভূমি অফিসে তুলকালাম

শনিবার রাজধানীর যেসব এলাকায় যাবেন না

উপজেলা নির্বাচন বর্জনে কুমিল্লায় বিএনপির লিফলেট বিতরণ

বগুড়ায় দুই দিনের ‘স্পর্ধিত তারুণ্য’ কবিতা উৎসব শুরু

কোরবানির হাট কাঁপাবে ‘যুবরাজ’

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ২ শতাধিক ঘরবাড়ি পুড়ে ছাই

বাড়িতে একা পেয়ে কলেজছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ, যুবক গ্রেপ্তার

১০

কালাচাঁনের সকাল-বিকেলের নাস্তা পরোটা ও ফল

১১

ইজিবাইক চালক হত্যা মামলার মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি গ্রেপ্তার

১২

রাতের অন্ধকারে মাছ ধরে সংসার চালান ৪ বোন

১৩

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় প্রবাসীর স্ত্রীর মরদেহ উদ্ধার

১৪

শ্যালককে বিয়ে করাতে গিয়ে দুলাভাইয়ের কারাদণ্ড

১৫

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সাত-সতেরো

১৬

বগুড়ায় চেয়ারম্যান প্রার্থীকে জরিমানা

১৭

প্রেমের জেরে যুবককে পিটিয়ে হত্যা

১৮

ট্রাকের ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

১৯

আজ যেসব সড়ক এড়িয়ে চলার নির্দেশনা ডিএমপির

২০
X