কালবেলা প্রতিবেদক
প্রকাশ : ১৩ মে ২০২৪, ০৯:১৩ পিএম
আপডেট : ১৩ মে ২০২৪, ০৯:১৯ পিএম
অনলাইন সংস্করণ

ভুল সিদ্ধান্তের কারণে বারবার নীতি পরিবর্তনে বাধ্য হচ্ছে বাংলাদেশ ব্যাংক

বাংলাদেশ ব্যাংকের সাথে বৈঠক শেষে ব্যাংকের চেয়ারম্যানরা
বাংলাদেশ ব্যাংক। গ্রাফিক্স : কালবেলা
বাংলাদেশ ব্যাংক। গ্রাফিক্স : কালবেলা

ভুল সিদ্ধান্তের কারণে বারবার নীতি পরিবর্তনে বাধ্য হচ্ছে বাংলাদেশ ব্যাংক। বাংলাদেশ ব্যাংকের সঙ্গে ব্যাংক চেয়ারম্যানদের অনুষ্ঠিত বৈঠক শেষে এমন কথা জানিয়েছেন তারা।

তারা বলেন, পৃথিবীর কোনো দেশেই সুদহার ধরে রাখার নজির নেই। আমাদের দেশেও সেটা ভুল প্রমাণিত হয়েছে। তাই বাংলাদেশ ব্যাংক আগের সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছে। এভাবে ভুল সিদ্ধান্তের কারণেই বারবার নীতি পরিবর্তন করতে হচ্ছে বাংলাদেশ ব্যাংককে।

সোমবার (১৩ মে) বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরের আমন্ত্রণে বৈঠকে আসেন ব্যাংকের চেয়ারম্যানরা। কিন্তু গভর্নর আব্দুর রউফ তালুকদার অর্থ মন্ত্রণালয়ে জরুরি বৈঠকে নিতে চলে যাওয়ায় বাংলাদেশ ব্যাংকের পূর্ব নির্ধারিত সভায় সভাপতিত্ব করেন ডেপুটি গভর্নর নুরুন নাহার।

জানা গেছে, সভায় ব্যাংক একীভূতকরণ, ডলারের বিনিময় হার, ঋণের সুদহার, সুশাসনসহ দেশের অর্থনীতির নানা বিষয়ে আলোচনা হওয়ার কথা থাকলেও কেবল বাংলাদেশ ব্যাংকের উদ্যোগে হাসপাতাল নির্মাণ প্রসঙ্গেই আলোচনা হয়েছে।

বৈঠক শেষে বেসরকারি ব্যাংক উদ্যোক্তাদের সংগঠন বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব ব্যাংকের (বিএবি) চেয়ারম্যান মো. নজরুল ইসলাম মজুমদার সাংবাদিকদের বলেন, ঋণের সুদহার চাহিদা এবং জোগানের ওপর নির্ভর করে। ফলে এটিকে আটকে রাখার কারও কোনো ক্ষমতা নাই। পৃথিবীর কোনো দেশেই সুদহার নির্দিষ্ট করে দেওয়ার নজির নেই। সুদহার আপন গতিতে চলবে। চলতে চলতে এক জায়গায় থেমে যাবে। আবার নামবে, আবার উঠবে। এটাই অর্থনীতির নিয়ম। ফলে সুদহার নির্ধারণ করে দেওয়া বাংলাদেশ ব্যাংকের কাজ নয়। সেটা বাজারের ওপর ছেড়ে দিতে হবে। অবশেষে বাংলাদেশ ব্যাংকও আগের সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছে। আমরা এটাকে সাধুবাদ জানাই। তিনি আরও বলেন, ডলারের দাম বাজারভিত্তিক করার বিকল্প নেই। অন্য দেশেও ডলারের দাম অনেক বেশি। আমাদের এখানে এতদিন জোর করে চাপিয়ে রাখা হয়েছিল। যা এখন বাজারের কাছাকাছি চলে এসেছে।

বৈঠকে ব্যাংক একীভূতকরণ নিয়ে কোনো আলোচনা হয়েছে কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, ব্যাংক একীভূতকরণ নিয়ে কোনো আলোচনা হয়নি। তবে পদ্মা ব্যাংকের সঙ্গে এক্সিম ব্যাংকের মিলন হচ্ছে- এই বিষয়ে আমি নিশ্চিত করতে পারি। পদ্মা এবং এক্সিম উভয় ব্যাংকই এই বিষয়ে সম্মত আছে।

ডলারের দাম বাড়ানো এবং সুদহার বাজারের ওপর ছেড়ে দেওয়ার বিষয়ে পূবালী ব্যাংকের চেয়ারম্যান মনজুরুর রহমান বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের আগের নীতিগুলোগুলো ফেল করেছে। ভুল সিদ্ধান্তের কারণে বারবার নীতি পরিবর্তনে বাধ্য হচ্ছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

এর আগে, ২০২০ সালের এপ্রিল মাসে ব্যবসায়ীদের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে ঋণের সর্বোচ্চ সুদহার ৯ শতাংশে বেঁধে দিয়েছিল বাংলাদেশ ব্যাংক। সেইসঙ্গে আমানতের সুদও যেন ৬ শতাংশের নিচে না নামে সেই বিষয়েও ব্যাংকগুলোকে নির্দেশনা দিয়েছিল বাংলাদেশ ব্যাংক। এরপর আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) পরামর্শে গত বছরের জুলাই মাসে মুদ্রানীতি ঘোষণার সময় ঋণের সুদহারের এই সীমা তুলে দিয়ে ‘স্মার্ট’ (সিক্স মান্থস মুভিং অ্যাভারেজ রেট অব ট্রেজারি বিল) চালু করে বাংলাদেশ ব্যাংক। আর গত বুধবার স্মার্ট পদ্ধতি থেকেও সরে এসে পুরোপুরি বাজারের ওপর ছেড়ে দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। সেইসঙ্গে নীতি সুদহারও বাড়িয়ে দিয়েছে। এ ছাড়া, ডলারের দর পুরোপুরি বাজারে না ছাড়লেও অনেকটাই বাজারভিত্তিক করা হয়েছে।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

২৮ মে : নামাজের সময়সূচি

মঙ্গলবার কেমন থাকবে আবহাওয়া?

নির্মাণাধীন ভবনের পিলার পড়ে স্কুলছাত্র নিহত

ঘূর্ণিঝড় রিমাল / বাউফলে ঘরচাপায় বৃদ্ধের মৃত্যু

নাটোরে গণধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি গ্রেপ্তার

প্রধানমন্ত্রী না ঘুমিয়ে মানুষের কথা ভাবেন : প্রতিমন্ত্রী

স্ত্রী হত্যার অভিযোগে স্বামী আটক

আসামির বিয়ে, পুলিশের খবর নেই

মিল্টনের আশ্রমে প্রশাসক নিয়োগ দিয়েছে সমাজসেবা অধিদপ্তর

মাথা গোঁজার সম্বল হারিয়ে দুশ্চিন্তায় দুর্গতরা

১০

পছন্দের প্রার্থীকে জেতাতে ঘরে ঘরে টাকা বিতরণ

১১

পুলিশ-আওয়ামী লীগ নেতাদের ছত্রছায়ায় সাভারে কারখানা দখল

১২

চুয়েটে দুর্যোগসহনীয় শহর নির্মাণবিষয়ক কর্মশালা

১৩

আশুলিয়ায় ৩৯৫ বোতল ফেনসিডিলসহ আটক ২

১৪

খাদ্যমন্ত্রীর সঙ্গে ভারতীয় হাইকমিশনারের বৈঠক

১৫

জাল নোট শনাক্তকরণ ও প্রচলন প্রতিরোধে আইএফআইসি ব্যাংকের কর্মশালা

১৬

কৃষকদের আর্থিক সহায়তা প্রদান করল সাউথইস্ট ব্যাংক

১৭

উচ্চশিক্ষার সকল তথ্য যথাযথভাবে সংরক্ষণের আহ্বান ইউজিসি’র

১৮

ঘূর্ণিঝড় রিমালের তাণ্ডবে লন্ডভন্ড হাতিয়া

১৯

পটুয়াখালীতে কুকুরের কামড়ে আহত অর্ধশতাধিক 

২০
X