সাইদুল ইসলাম, চট্টগ্রাম
প্রকাশ : ২১ মে ২০২৪, ০৮:৩০ পিএম
অনলাইন সংস্করণ

মিথ্যা তথ্য দেওয়ায় নামতে পারে ‘খড়গ’

তৌহিদুল হক চৌধুরী ও তার স্ত্রী উম্মে সালমা। ছবি : সংগৃহীত
তৌহিদুল হক চৌধুরী ও তার স্ত্রী উম্মে সালমা। ছবি : সংগৃহীত

চট্টগ্রামের উপজেলা নির্বাচনে আনোয়ারা উপজেলা ঘিরে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা এবং উত্তেজনা দিন দিন বেড়েই চলেছে। এবারের আলোচনা ভিন্ন আমেজের। উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থীদের দেওয়া হলফনামায়ও উঠে এসেছে গোপন করা অনেক তথ্যও। যা নিয়ে উপজেলাজুড়ে চলছে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা।

দুবারের উপজেলা চেয়ারম্যান তৌহিদুল হক চৌধুরীর নিজ উপজেলায় স্ত্রী উম্মে সালমাকে ঠিকাদার বানিয়ে দেদার ঠিকাদারি ব্যবসা করেছেন তিনি। যদিও নির্বাচনের হলফনামায় স্ত্রীকে দেখিয়েছেন গৃহিণী। অথচ আনোয়ারার উন্নয়ন প্রকল্পে তার স্ত্রীর প্রতিষ্ঠান সালমা এন্টারপ্রাইজের ঠিকাদারির বিষয়টি এক রকম ওপেন সিক্রেট।

নির্বাচন অফিসসহ সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, তৌহিদুল হক চৌধুরী দুই মেয়াদে টানা ১০ বছর উপজেলা চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করছেন। এবারও তিনি চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। মনোয়নপত্র দাখিলকালে তৌহিদুল হক চৌধুরী গত ২৪ এপ্রিল নির্বাচন কমিশনের বরাবরে হলফনামা দাখিল করেন। সেখানে নিজেকে ব্যবসায়ী ও তার স্ত্রী উম্মে সালমাকে গৃহিণী হিসেবে উল্লেখ করা হয়।

প্রাপ্ত তথ্য থেকে আরও জানা গেছে, হলফনামায় স্ত্রীকে গৃহিণী দেখানো হলেও তার স্ত্রী সালমা এন্টারপ্রাইজ নামে একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের মালিক। প্রতিষ্ঠানের ঠিকানা-বরুমছড়া, আনোয়ারা, চট্টগ্রাম। এই নামে পূবালী ব্যাংক আনোয়ারা শাখা থেকে টেন্ডার প্রক্রিয়ার জন্য একটি লেটার অব কমিটমেন্ট প্রদান করা হয়। চিঠিটি উপজেলা প্রকৌশলী, আনোয়ারা চট্টগ্রাম বরাবর ইস্যুকৃত।

যেখানে ৫৯ লাখ টাকার ৮টি টেন্ডারের কথা উল্লেখ রয়েছে। ২০২৩-২৪ অর্থবছরের উন্নয়ন প্রকল্প, উন্নয়ন তহবিল, বাজার ও রাজস্বখাতের অধীনে এসব টেন্ডার প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়।

উপজেলা পরিষদ আইন ১৯৯৮ এর ৮ বিধির তথ্য কেউ গোপন করলে প্রথমেই শাস্তিযোগ্য অপরাধ বলে উল্লেখ করে সুশাসনের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আখতার কবির চৌধুরী বলেন, আইন সবার জন্য সমান। কেউ আইন না মেনে তথ্য গোপন করে কোনো প্রার্থী বিজয়ী বা পরাজিত হলেও শাস্তিযোগ্য অপরাধ।

উপজেলা প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা জানান, এটি শুধু টেন্ডারের একটি প্যাকেজের নমুনা। বাস্তবে গত ১০ বছর ধরে তিনি নিয়মিতই ঠিকাদারি করে গেছেন। উপজেলার বেশিরভাগ কর্মকর্তা তৌহিদের ঘনিষ্ঠ হওয়ায় এই সমস্ত নথিপত্র যাতে কারো হাতে না যায় সেজন্য কঠোর গোপনীয়তা রক্ষা করা হচ্ছে। স্বামী উপজেলা চেয়ারম্যান হওয়াতে দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রকৌশলীরাও যোগসাজশের মাধ্যমে এই প্রতিষ্ঠানকে দিয়ে কাজ পাইয়ে দিতে সহযোগিতা করেন বলে অভিযোগ রয়েছে। সালমা এন্টারপ্রাইজের মালিক উম্মে সালমা উপজেলা পরিষদে না এসেও নিয়মিত সরকারি কাজ পাওয়া নিয়ে বিস্ময় প্রকাশ করেছেন অনেকে।

প্রাপ্ত তথ্য থেকে জানা যায়, সালমা এন্টারপ্রাইজের নামে গত বছরের ২ সেপ্টেম্বর সর্বশেষ ট্রেড লাইসেন্স ইস্যু হয়। যার নম্বর ৭১৯। বরুমচড়া ইউপি চেয়ারম্যান মো. শামসুল ইসলাম তাতে স্বাক্ষর করেন। ট্রেড লাইসেন্সে নাম উম্মে সালমা, ঠিকানা- কমিউনিটি সেন্টার বরুমচড়া, ব্যবসার ধরন ঠিকাদার বলে উল্লেখ রয়েছে।

উম্মে সালমার যে আয়কর প্রত্যয়নপত্র জমা দেওয়া হয়েছে সেখানে বর্তমান ঠিকানা, আবদুল বারী মুন্সির বাড়ি, বরুমড়ার ৯নং ওয়ার্ড, আনোয়ারা লেখা রয়েছে।

উম্মে সালমার ভোটার আইডিতে তার স্বামীর নাম তৌহিদুল হক চৌধুরী উল্লেখ রয়েছে। বর্তমান ঠিকানাও আবদুল বারী মুন্সি, বরুমচড়া, আনোয়ারা, যা চেয়ারম্যান তৌহিদের স্থায়ী ঠিকানা।

স্ত্রীর নাম গোপন করে চেয়ারম্যান তৌহিদের ঠিকাদারি ব্যবসায় বিস্ময় প্রকাশ করেছেন সাধারণ মানুষ। তাদের মতে, সাবেক ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদের নাম ভাঙিয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান হওয়ার পাশাপাশি স্ত্রীর নামে ঠিকাদারি করে প্রচুর টাকা কামিয়েছেন তৌহিদুল হক চৌধুরী।

উপজেলা প্রকৌশলী তাসলিমা জাহান বলেন, প্রতি বছর ৪০ থেকে ৪৮টি প্যাকেজে কাজ হয়। সেখানে সালমা এন্টারপ্রাইজের নামে কী কী কাজ হয়েছে জানা নেই। তবে এবার এই প্রতিষ্ঠান কোনো কাজ পায়নি। এই মুহূর্তে বিস্তারিত জানাও নেই। সব ফাইল ইউএনও অফিসে চলে গেছে।

এ বিষয়ে জানতে উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী তৌহিদুল হক চৌধুরীকে একাধিকবার কল দেওয়া হলেও ফোনটি রিসিভ হয়নি।

আনোয়ারার সাধারণ মানুষ এবং একাধিক ভোটার বলছেন, এবার উপজেলা নির্বাচন ঘিরে একটু উত্তেজনা দেখা যাচ্ছে। প্রার্থীদের পক্ষে-বিপক্ষে সমর্থকরা মাঠে কাজ করছেন। নির্বাচন কমিশন আচরণবিধি লঙ্ঘনের কারণে শোকজও করেছেন অনেককেই। তবে কিছু প্রার্থীর হলফনামায় তথ্য ‘গোপন’ করার বিষয়ে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা শুরু হয়েছে।

চট্টগ্রামের অতিরিক্ত জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. শহীদুল ইসলাম প্রামাণিক বলেন, নির্বাচনের ইস্যুতে যাচাইবাছাই অনেক আগেই শেষ হয়ে গেছে। হলফনামায় তথ্য গোপন বা স্ত্রী ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে সম্পৃক্ততা আছে এমন অভিযোগ তখন কেউ করেননি। এখন সব শেষ, আমার কাজ হচ্ছে নির্বাচন পরিচালনা করা। বাকিগুলো অন্যরা দেখভাল করবেন। তবে সুষ্ঠু ও নিরপক্ষে নির্বাচন করার জন্য সব প্রকার কাজ করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

হলফনামায় প্রার্থীদের শপথ

হলফনামায় প্রার্থীরা শপথ করে ৮টি তথ্য প্রদান করেন। সেগুলো হলো- শিক্ষাগত যোগ্যতা, ফৌজদারি মামলার বিবরণ, পেশার বিবরণ, প্রার্থীর নিজের ও নিভর্রশীলদের আয়ের উৎস, প্রার্থীর স্ত্রী বা স্বামী এবং নির্ভরশীলদের সম্পদ-দায়ের বিবরণ, আগে প্রার্থী ছিলেন কিনা, ঋণসংক্রান্ত তথ্য।

গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ ১৯৭২ (আরপিও) অনুযায়ী, হলফনামায় ভুল বা মিথ্যা তথ্য দিলে প্রার্থিতা বাতিল হতে পারে। এমনকি নির্বাচিত হওয়ার পরও প্রার্থিতা বাতিল হতে পারে। দুদক ও রাজস্ব বোর্ডও বিষয়টি তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নিতে পারেন।

তাছাড়া উপজেলা পরিষদ আইন ১৯৯৮ এর ৮ বিধির ২ (ঝ) উপবিধি অনুযায়ী কারো পরিবারের সদস্য তথা পিতা, মাতা, ভাইবোন, স্ত্রী, কন্যা উপজেলা পরিষদে ঠিকাদারি সংশ্লিষ্ট কাজে যুক্ত থাকলে ওই ব্যক্তি উক্ত উপজেলা পরিষদে চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী হওয়ার অযোগ্য বলে বিবেচিত হবেন।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

গরম নিয়ে আবহাওয়া অফিসের নতুন বার্তা

ইউরো ২০২৪ / ডাচদের হারিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েই শেষ ষোলোতে অস্ট্রিয়া

সিলেটে ৮ লাখ টাকার চিনিসহ ট্রাক জব্দ

সিলেটে বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি, বাড়ছে নানা রোগবালাই

জাবির সাবেক উপাচার্য মারা গেছেন

চিকিৎসকদের অবহেলায় সাপে কাটা রোগীর মৃত্যুর অভিযোগ

খালেদা জিয়ার আরোগ্য কামনায় যুবদলের দোয়া মাহফিল

ট্রাক্টরচাপায় প্রাণ গেল দুজনের

চাঁদা চাওয়ায় কাস্টমসের কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ব্যবসায়ীর মামলা

এবার সিরাজগঞ্জে মিলল রাসেল ভাইপারের বাচ্চা, এলাকায় আতঙ্ক

১০

এআইইউবি ও ফিলিস্তিনের শিক্ষার্থীদের মধ্যে প্রীতি ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত

১১

সিলেটে তরুণীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ

১২

১৫ লাখ টাকার একটি খাসি, কেড়ে নিল লাকীর হাসি

১৩

বিশ্বকে মহাবিপদ থেকে বাঁচাতে যে সতর্কবার্তা দিল তুরস্ক

১৪

হত্যা নাকি মৃত্যু, দেড় মাস পর কিশোরের লাশ উত্তোলন

১৫

কীসের বিনিময়ে মুক্তি পেলেন জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জ?

১৬

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নৈশপ্রহরী হত্যা, দুজনের যাবজ্জীবন

১৭

খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় দোলাইপাড়ে বিএনপির দোয়া মাহফিল

১৮

সরকারি কর্মকর্তাদের দুর্নীতি নিয়ে সংসদে ক্ষোভ

১৯

স্মার্ট নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে ছাত্রলীগের প্রতি আহ্বান পলকের

২০
X