কালবেলা ডেস্ক
প্রকাশ : ২১ মে ২০২৪, ১১:৩৫ এএম
আপডেট : ২১ মে ২০২৪, ১২:৪০ পিএম
অনলাইন সংস্করণ

যুক্তরাষ্ট্রের কাছে সহায়তা চেয়েও পায়নি ইরান

ছবি : সংগৃহীত
ছবি : সংগৃহীত

রোববার রহস্যজনক এক হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় নিহত হন ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির আব্দুল্লাহিয়ানসহ ৯ জন। দুর্ঘটনার কবলে পড়া হেলিকপ্টারটি ছিল যুক্তরাষ্ট্রের তৈরি বেল ২১২ মডেলের। এ ঘটনার পরই তাৎক্ষণিকভাবে সাহায্যকারী দল পাঠায় তুরস্ক ও রাশিয়া। যদিও হেলিকপ্টার বিধ্বস্তের পর সেটির প্রস্তুতকারক দেশ যুক্তরাষ্ট্রের কাছেও সাহায্য চেয়েছিল ইরান। তবে সেই সাহায্য করতে অস্বীকৃতি জানায় ওয়াশিংটন।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, রাইসিকে বহনকারী হেলিকপ্টারটি বিধ্বস্ত হওয়ার পর সেটি খুঁজে পেতে যুক্তরাষ্ট্রের কাছে সাহায্যের আবেদন জানিয়েছিল ইরান সরকার। সোমবার ইরানের পক্ষ থেকে সাহায্য চাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তর। ইরানের সঙ্গে কূটনৈতিক কোনো সম্পর্ক না থাকার পর তেহরান কীভাবে ওয়াশিংটনের কাছে সাহায্য চেয়ে বার্তা পাঠিয়েছে সে বিষয়ে কোনো বিস্তারিত তথ্য দেওয়া হয়নি।

মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ম্যাথু মিলার জানান, এ ব্যাপারে তিনি বিস্তারিত বলছেন না। তবে ইরান সরকার যুক্তরাষ্ট্রের কাছে সহায়তা চেয়েছিল। ওয়াশিংটন জানিয়েছিল, এ ধরনের আবেদনে তারা বিদেশি সরকারগুলোকে সাহায্য করে থাকে। তবে শেষ পর্যন্ত মূলত রসদ সরবরাহজনিত ইরানকে সেই সহায়তা করতে পারেনি যুক্তরাষ্ট্র।

যুক্তরাষ্ট্রের তৈরি বেল ২১২ হেলিকপ্টারটি ৭০ দশক থেকে ইরানের আকাশে তার ডানা মেলে আসছে। ইসলামী বিপ্লবের আগে ইরানের বহরে এ ধরনের বেশ কয়েকটি হেলিকপ্টার সংযুক্ত করা হয়। তবে বিপ্লবের পর মার্কিন নিষেধাজ্ঞার কারণে এসব রক্ষণাবেক্ষণের জন্য অতিরিক্ত যন্ত্রাংশ কিনতে বেগ পেতে হয় তেহরানকে। মূলত এ কারণে রাইসিকে বহনকারী হেলিকপ্টারটি দুর্ঘটনায় পড়ে।

রাইসিকে বহনকারী হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হওয়ার পর ইরান সরকার জানিয়েছিল হার্ড ল্যান্ডিংয়ের কারণে এই দুর্ঘটনা ঘটেছে। হার্ড ল্যান্ডিং তখন বলা হয়, যখন বৈরী আবহাওয়া বা যান্ত্রিক ত্রুটি বা পাইলটের অদক্ষতার কারণে একটি হেলিকপ্টারকে স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি গতিতে হঠাৎ অবতরণ করতে হয়। তাই স্পেয়ার পার্টসের অভাবে যান্ত্রিক ত্রুটির বিষয়টি এড়িয়ে দেওয়া যায় না।

আলজাজিরা এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, বেল ২১২ একটি মাঝারি আকারের হেলিকপ্টার। এই হেলিকপ্টারে ১৫টি আসন থাকে। এর মধ্যে পাইলটের জন্য একটি আসন এবং যাত্রীদের জন্য বাকি ১৪টি। জানা গেছে, রাইসিকে বহনকারী হেলিকপ্টারে তার সঙ্গে পররাষ্ট্রমন্ত্রীসহ আরও ৮ জন আরোহী ছিলেন। হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় তাদের সকলেই নিহত হন।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

কালবেলায় সংবাদের পর বঙ্গবন্ধু মেডিকেলের হোস্টেলে অভিযান

হাঁড়িভাঙা আম দেখলেই মায়া লাগে : কৃষিমন্ত্রী

পাবনায় ‘ঢালারচর এক্সপ্রেস’ ট্রেনে কাটা পড়ে বৃদ্ধার মৃত্যু

ন্যাটোর পরবর্তী প্রধান হচ্ছেন মার্ক রুটে

বারবার কারা নির্যাতনেই মাখনের মৃত্যু, অভিযোগ রিজভীর

আকস্মিক বন্যায় ৭ লাখ ৭২ হাজারের বেশি শিশু ক্ষতিগ্রস্ত 

দৌলতদিয়া ঘাটে ফেরির অপেক্ষায় দুই শতাধিক যানবাহন

আমেরিকা প্রবাসী মামার জন্য ছাগল কেনেন ইফাত

ইসরায়েলি গণমাধ্যমের বিশ্লেষণ / হামাসের সঙ্গে যুদ্ধে কি ইসরায়েল হেরে যাচ্ছে?

আওয়ামী লীগ দলে বাড়ছে তরুণনির্ভরতা

১০

অস্ট্রেলিয়ায় নেমেসিসের তিন কনসার্ট

১১

নানা আয়োজনে বাগেরহাটে কবি রুদ্রের মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

১২

তীব্র গরমে সৌদিতে এক হাজারের বেশি হজযাত্রীর মৃত্যু

১৩

এবার বাবরের বিরুদ্ধে ম্যাচ ফিক্সিংয়ের অভিযোগ

১৪

তারা সুতারিয়ার স্বপ্ন

১৫

উজানের পানিতে গাইবান্ধায় নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত

১৬

নেত্রকোনায় পানিতে ডুবে মাদ্রাসা শিক্ষার্থীর মৃত্যু

১৭

সড়ক দুর্ঘটনায় লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ইরান আহত 

১৮

‘জামায়াতের সর্বস্তরের জনশক্তি বন্যার্তদের পাশে রয়েছে’ 

১৯

ড. মোহাম্মদ বদরুজ্জামান ভূঁইয়ার নিবন্ধ / ‘প্রতিবেশী কূটনীতিতে বাংলাদেশ’

২০
X