কালবেলা ডেস্ক
প্রকাশ : ০৯ ডিসেম্বর ২০২৩, ১১:১৬ এএম
অনলাইন সংস্করণ

ইসরায়েলের কাছে ৪৫ হাজার ট্যাংক-গোলা বেচতে চায় যুক্তরাষ্ট্র

ইসরায়েলি ট্যাংক। ছবি : সংগৃহীত
ইসরায়েলি ট্যাংক। ছবি : সংগৃহীত

ইসরায়েল ও হামাসের যুদ্ধের মধ্যে ইসরায়েলি যুদ্ধ ট্যাংকের জন্য ৪৫ হাজার গোলা বিক্রি করতে মার্কিন কংগ্রেসের কাছে অনুমতি চেয়ে আবেদন করেছে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তর। এ বিষয়ের সঙ্গে সরাসরি সংশ্লিষ্ট একটি সূত্রের বরাতে এই তথ্য জানিয়েছে মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন।

গত সপ্তাহে কংগ্রেসের কাছে এই অনুরোধ করেছে পররাষ্ট্র দপ্তর। বর্তমানে কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদের ফরেন অ্যাফেয়ার্স কমিটি ও উচ্চকক্ষ সিনেটের বৈদেশিক সম্পর্ক কমিটি পর্যালোচনা করছে। মূলত ইসরায়েলি মারকাভা ট্যাংকের জন্য এই ৪৫ হাজার গোলা চাওয়া হয়েছে। এই অনুরোধ দ্রুত পাস করতে কংগ্রেসের দুই কমিটিকে চাপ দিচ্ছে পররাষ্ট্র দপ্তর।

মার্কিন কংগ্রেসের কাছে এমন সময়ে এই আবেদন পাঠানো হয়েছে যখন ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় যুদ্ধবিরতির দাবিতে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন প্রশাসনের ওপর দেশি ও বিদেশি চাপ বাড়ছে।

এ বিষয়ে পররাষ্ট্র দপ্তরের এক মুখপাত্র সিএনএনকে বলেছেন, আমাদের নীতি হলো প্রস্তাবিত প্রতিরক্ষা সহায়তা বা বিক্রি নিয়ে যতক্ষণ না আনুষ্ঠানিকভাবে কংগ্রেসে অবহিত করা হয় ততক্ষণ এগুলো নিয়ে আমরা কোনো মন্তব্য করি না।

নভেম্বরের শুরুতে ৩২০ মিলিয়ন ডলার মূল্যের বোমার সরঞ্জাম ইসরায়েলে পাঠানোর বিষয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে কংগ্রেসকে অবহিত করে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তর। অবশ্য কংগ্রেসকে জানানোর আগেই এ বিষয়ে খবর দিয়েছিল সিএনএন।

গত ৭ অক্টোবর হামাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা পর থেকে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে সামরিক সরঞ্জামবাহী ২০০ কার্গো প্লেন গেছে ইসরায়েলে। এসব সামরিক সরঞ্জামের মধ্যে গোলা, সাঁজোয়া যান ও অন্যান্য অস্ত্র রয়েছে। তবে কোন দেশ থেকে কী পরিমাণ সামরিক সহায়তা পেয়েছে, তা জানাতে অস্বীকার করেছে ইসরায়েলি প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়। যুক্তরাষ্ট্রও এ বিষয়ে সরাসরি তেমন কিছু প্রকাশ করে না।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

ঘটনাপ্রবাহ: ফিলিস্তিন-ইসরায়েল সংঘাত
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

গণতন্ত্র মঞ্চের কর্মসূচিতে হামলার নিন্দা ১২ দলীয় জোটের

যাদের বিপক্ষে মাঠে নামছে ব্রাজিল

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পূর্ব-বিরোধে দুপক্ষের সংঘর্ষ, আহত ৫০

গাজীপুরে কারখানায় বিস্ফোরণ, নিহত ১

মুক্তিযোদ্ধা দলের সভাপতি উলফাতের মুক্তি দাবি ফখরুলের 

আতঙ্কে আবারও গ্রেপ্তার শুরু করেছে সরকার : রিজভী

মিশিগানে জয় পেলেও স্বস্তিতে নেই বাইডেন

হলমার্কের তানভীরসহ ১৮ জনের মামলার রায় থেকে সাক্ষীতে

খুরশীদ আলম ও ড. হাবিব হচ্ছেন ডেপুটি গভর্নর

বউ-শাশুড়ি লাইব্রেরি গড়তে বই নিয়ে শ্বশুরবাড়ি নববধূ

১০

ড. মোহাম্মদ বদরুজ্জামান ভূঁইয়ার নিবন্ধ / অর্থনৈতিক মুক্তি অর্জনে সব দুরভিসন্ধি দূরে ঠেলে এগিয়ে যাওয়ার এখনই সময়

১১

ডিআইজি মিজানের ১৪ বছরের সাজা বহাল

১২

৪ হাসপাতালে র‍্যাবের অভিযানে ৩৬ দালাল আটক

১৩

সাগর-রুনি হত্যা মামলার প্রতিবেদন আগামী ২ এপ্রিল

১৪

ঢাবি অধ্যাপকের বিরুদ্ধে এবার আরেক ছাত্রীর যৌন হয়রানির অভিযোগ 

১৫

‘অর্জনে বেঁচে থাকবেন পঙ্কজ উদাস’

১৬

স্বামীকে জিম্মি করে অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ

১৭

ভিকারুননিসার ১৬৯ শিক্ষার্থীর ভর্তি বাতিল

১৮

‘নির্বাচনের সব কার্যক্রম ডিজিটাল করার প্রক্রিয়া চলছে’

১৯

মেয়েকে শ্লীলতাহানির প্রতিবাদ করায় বাবাকে মারধর, গ্রেপ্তার ৪

২০
X