শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১
আক্কেলপুর (জয়পুরহাট) প্রতিনিধি
প্রকাশ : ১৪ অক্টোবর ২০২৩, ০২:৩৭ পিএম
অনলাইন সংস্করণ

আক্কেলপুরের ৩৮ পূজামণ্ডপে দেবী দুর্গার আরাধনার অপেক্ষা

জয়পুরহাটের আক্কেলপুর পূজামণ্ডপে কারিগরদের ব্যস্ততা। ছবি : কালবেলা
জয়পুরহাটের আক্কেলপুর পূজামণ্ডপে কারিগরদের ব্যস্ততা। ছবি : কালবেলা

জয়পুরহাটের আক্কেলপুরে এ বছর ৩৮টি মণ্ডপে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এসব মণ্ডপে শনিবার (১৪ অক্টোবর) মহালয়া উদ্‌যাপন হচ্ছে। আগামী ২০ অক্টোবর ষষ্ঠীতে দেবী দুর্গার বোধন, আমন্ত্রণ ও অধিবাসের মধ্যে দিয়ে শুরু হবে শারদীয় দুর্গাপূজার মূল আনুষ্ঠানিকতা। ইতিমধ্যে অধিকাংশ প্রতিমার মূল কাঠামো নির্মাণের কাজ শেষ হয়েছে। এখন রংতুলির আঁচড়ে প্রতিমাকে দৃষ্টিনন্দন করার কাজে ব্যস্ত শিল্পীরা।

এবার পৌরসভায় ৮টি, রুকিন্দীপুর ইউনিয়নে ৭টি, সোনামুখী ইউনিয়নে ৩টি, গোপীনাথপুর ইউনিয়নে ১০টি, তিলকপুর ইউনিয়নে ৩টি, রায়কালী ইউনিয়নে ৭টি মণ্ডপে পূজা হচ্ছে। এসব মণ্ডপে প্রতিমা তৈরির কাজ প্রায় শেষপর্যায়ে জানিয়ে উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা রাজেন্দ্র প্রসাদ আগরওয়ালা বলেন, ‘পূজার সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য পুলিশ প্রশাসনের পাশাপাশি মন্দির কমিটির পক্ষ থেকে প্রতিটি মণ্ডপে নিরাপত্তার জন্য স্বেচ্ছাসেবক থাকবে।’

আক্কেলপুর পৌর শহরের নবাবগঞ্জ ঘাট (পারঘার্টি) কেন্দ্রীয় সার্বজনীন দুর্গা মন্দিরে কাজ করছেন বগুড়া জেলার আদমদিঘী উপজেলার ছাতিনগ্রামের শ্রী বিকাশ মালাকার। তিনি বলেন, এ বছর তিনি বিভিন্ন এলাকায় ১৭টি মণ্ডপে প্রতিমা তৈরির কাজ নিয়েছেন। আকার ভেদে প্রতিটি প্রতিমার পারিশ্রমিক নিচ্ছেন ২৫ থেকে ৫৫ হাজার টাকা।

আক্কেলপুর কেন্দ্রীয় দুর্গা মন্দিরের পূজা কমিটির সভাপতি শ্রী কমল চন্দ্র দাস বলেন, ‘এখানে আমরা ২০০টি পরিবার বসবাস করি। দীর্ঘদিন ধরে এই মন্দিরে পূজা অর্চনা হয়ে আসছে। বিজয়া দশমীর দিন বিশাল মেলা বসে মন্দির প্রাঙ্গণে। আমাদের এই মন্দিরটি তুলসী গঙ্গা নদীসংলগ্ন হওয়ায় প্রতি বছর নৌকায় মা দুর্গাকে তুলে কয়েক কিলোমিটার প্রদক্ষিণ করে সন্ধ্যায় বিসর্জন দেওয়া হয়। এই সময় শত শত দর্শনার্থীরা নৌকায় ভ্রমণ ও উপভোগ করেন। প্রতি বছর জাঁকজমকভাবে পূজা উদযাপন করা হয়।’

বাংলাদেশ হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ উপজেলা শাখার সভাপতি ওমপ্রকাশ আগরওয়ালা বলেন, ‘বাঙালি জাতির মহোৎসব দুর্গাপূজা, যা আদিকাল থেকে সর্বজনীনভাবে পালন হয়ে আসছে। প্রতিটি ঘরে উৎসব পালন হয়।’

আক্কেলপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শাহিনুর রহমান বলেন, ‘মণ্ডপগুলোতে নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হয়েছে। প্রতিটি পূজামণ্ডপে পুলিশি টহলের ব্যবস্থা করা হয়েছে। পাশাপাশি সাদা পোশাকে পুলিশ থাকবে।’

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

৮০ কিমি বেগে ঝড়ের শঙ্কা, সতর্কতা জারি

পাবলিশহার এক্সেলেন্স অ্যাওয়ার্ড পেলেন মিতিয়া ওসমান

৮৪ জন গ্রাউন্ড সার্ভিস এসিস্টেন্ট নিয়োগ দিল বিমান

প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলের শাড়ি বন্ধুদের দিলেন ব্যারিস্টার সুমন

‘নতুন প্রজন্মের মাঝে স্বাধীনতার ঘোষণাপত্রের তাৎপর্য তুলে ধরার আহ্বান’

লক্ষ্য যাত্রী সেবার মানোন্নয়ন  / ৮৪ জন গ্রাউন্ড সার্ভিস অ্যাসিস্ট্যান্ট নিয়োগ দিল বিমান

নওগাঁয় সিআইডি পরিচয়ে চাঁদাবাজি, অতঃপর...

ইন্দোনেশিয়ায় অগ্ন্যুৎপাতে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে ১১ হাজার মানুষকে

প্রবাসীদের রেমিট্যান্স উন্নয়নের অন্যতম মূল চালিকা শক্তি : দীপু মনি

প্রচণ্ড তাপদাহে অগ্নি দুর্ঘটনা প্রতিরোধে যা করবেন

১০

মেঘনায় জাটকা ধরায় ২০ জেলে আটক

১১

হাইকমিশনারের সঙ্গে বৈঠক / বিএনপির কৌশল বুঝতে চায় ব্রিটেন

১২

মদ বিক্রেতার হামলায় আহত হয়ে মন্দিরের প্রতিমা ভাঙচুর

১৩

যৌন হয়রানির অভিযোগে শিক্ষক রিমান্ডে 

১৪

বাংলাদেশ থেকে ইউরোপে অভিবাসী পাচারের অভিযোগে গ্রেপ্তার ২৪

১৫

সাভারে গ্যাস বিস্ফোরণে দগ্ধ ৩

১৬

বিএনপি-জামায়াত দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে : লিটন

১৭

শিল্প এবং সংস্কৃতির উন্নয়নে বিনিয়োগ বাড়াতে হবে : তথ্যপ্রতিমন্ত্রী 

১৮

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে গলা কেটে হত্যা

১৯

বিরিশিরিতে নয়নাভিরাম সৌন্দর্যে মোড়ানো সাদা মাটির পাহাড়

২০
*/ ?>
X