কালবেলা প্রতিবেদক
প্রকাশ : ০৯ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৫:০৮ পিএম
আপডেট : ০৯ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৫:১৭ পিএম
অনলাইন সংস্করণ

ইইউর নির্বাচনী বিশেষজ্ঞ মিশনের সঙ্গে এবি পার্টির বৈঠক

ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের নির্বাচনী বিশেষজ্ঞ মিশনের প্রতিনিধিদের সঙ্গে মতবিনিময় করেছে এবি পার্টি। ছবি : কালবেলা
ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের নির্বাচনী বিশেষজ্ঞ মিশনের প্রতিনিধিদের সঙ্গে মতবিনিময় করেছে এবি পার্টি। ছবি : কালবেলা

ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের (ইইউ) নির্বাচনী বিশেষজ্ঞ মিশনের প্রতিনিধিদের সঙ্গে মতবিনিময় করেছে আমার বাংলাদেশ (এবি) পার্টি। মিশনের প্রধান ও নির্বাচনী বিশেষজ্ঞ ডেভিড নোয়েল ওয়ার্ড এবং রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞ আলেকজান্ডার মাতুস মিশনের প্রতিনিধিত্ব করেন।

বৈঠকে বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ও এবি পার্টির যুগ্ম আহ্বায়ক তাজুল ইসলাম, সদস্য সচিব মজিবুর রহমান মঞ্জু, এবি পার্টির যুগ্ম সদস্যসচিব ব্যারিস্টার আসাদুজ্জামান ফুয়াদ ও ব্যারিস্টার যোবায়ের আহমেদ ভূঁইয়া দলের পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন।

আজ শনিবার সকালে রাজধানীর একটি হোটেলে এই মতবিনিময় হয়। পরে দলটির এক বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়।

ইইউ নির্বাচন বিশেষজ্ঞরা এবি পার্টি’র উদ্দেশ্য, কর্মসূচি এবং সমস্যা সমাধানমূলক নতুন প্রজন্মের রাজনীতি এবং ৭ জানুয়ারির নির্বাচন বর্জনের কারণ সম্পর্কে জানতে আগ্রহ প্রকাশ করেন। এবি পার্টির নেতারা দলের সাংগঠনিক কাঠামো, সারা দেশে কার্যক্রম বিশেষ করে আইন প্রয়োগকারী সংস্থা এবং ক্ষমতাসীন দলের সন্ত্রাসীদের কারণে নতুন দলের বিস্তৃতির চ্যালেঞ্জগুলো ব্যাখ্যা করেন। সব শর্ত পূরণ সত্ত্বেও ইসি কর্তৃক এবি পার্টির নিবন্ধন না দেওয়ার বিষয়টিও মতবিনময়কালে উত্থাপিত হয়। এবি পার্টি নেতৃবৃন্দ দলের নিবন্ধনের জন্য হাইকোর্টে দায়েরকৃত রিট পিটিশনের বিষয়েও অবহিত করেন।

প্রতিনিধি দলকে এবি পার্টি নেতৃবৃন্দ জানান, অবাধ, সুষ্ঠু ও বিশ্বাসযোগ্য নির্বাচন আয়োজনে শুরু থেকেই ইসি বা সরকার কারোরই কোনো আগ্রহ ছিল না। আসন্ন নির্বাচনে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ডের অভাব নিয়েও তারা উদ্বেগ প্রকাশ করেন। ২০২৩ সালের অক্টোবর থেকে অদ্যাবধি প্রায় ২০ হাজার গণতন্ত্রপন্থী কর্মীকে বেআইনিভাবে আটক করা এবং ছয় শতাধিক শীর্ষ বিরোধী নেতৃত্বকে মিথ্যাভাবে শাস্তি প্রদান করা অবাধ, সুষ্ঠু, অংশগ্রহণমূলক এবং বিশ্বাসযোগ্য নির্বাচনের জন্য কোনোভাবেই সহায়ক নয় বলে তারা মত প্রকাশ করেন। তারা বলেন, ক্ষমতাসীন দলের সৃষ্ট ভুঁইফোড় রাজনৈতিক দল ও ডামি প্রার্থী নির্বাচনকে হাস্যকর করে তুলেছে।

এবি পার্টির নেতৃবৃন্দ ইইউ মিশনকে জানান, পুলিশের বেআইনি ভূমিকার কারণে গণতান্ত্রিক স্থান ক্রমাগত সংকুচিত হচ্ছে। তারা নির্বাচন-পরবর্তী পরিস্থিতির অবনতি হতে পারে এবং নাগরিক অস্থিরতা সহিংস হয়ে উঠতে পারে বলে উদ্বেগ জানান।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

ঘটনাপ্রবাহ: দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

৫ মার্চ : নামাজের সময়সূচি

সারিয়াকান্দিতে অপহৃত স্কুল শিক্ষার্থীর বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার

বগুড়ায় মাটি খুঁড়তে গিয়ে তিনটি গ্রেনেড উদ্ধার

টাকা-ডলার অদলবদলে রিজার্ভের পালে হাওয়া

শিশু ধর্ষণ মামলায় মাহেন্দ্র চালকের যাবজ্জীবন

সেপটিক ট্যাংকের গর্তে মাটি চাপা পড়ে শ্রমিকের মৃত্যু

ফোনে কথা বলার সময় ট্রেনে কাটা পড়ে মৃত্যু

চাঁদার দাবিতে ৪ তরমুজ চাষিকে কুপিয়ে জখম

চট্টগ্রামের সুগার মিলের আগুন পুড়ল এক লাখ টন চিনি

কর্তৃপক্ষের সমন্বয়হীনতায় পরিস্কার পানি থেকে বঞ্চিত লক্ষাধিক মানুষ

১০

দণ্ডিত মেজর হাফিজ আত্মসমর্পণ করবেন মঙ্গলবার

১১

মেহেরপুরে ৫ ঘণ্টায় ১ তালাক

১২

রোহিঙ্গাদের মর্যাদাপূর্ণ প্রত্যাবর্তন নিশ্চিত করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

১৩

তিনশ একর প্যারাবন ২১ দখলদারের কবলে

১৪

১০ মাসে হাতে কোরআন লিখলেন ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী

১৫

সংসদে ১০ মিনিটের জন্য নিজেকে বিরত রাখলেন লতিফ সিদ্দিকী 

১৬

চট্টগ্রামের সুগার মিলের আগুন নিয়ন্ত্রণে

১৭

রমজানে চাকরিজীবীদের কর্মঘণ্টা কমালো আমিরাত

১৮

রাষ্ট্রপতির পুলিশ পদক পেলেন সাতক্ষীরার বায়েজিদ হোসেন 

১৯

চট্টগ্রামে ছাত্রলীগ-যুবলীগ নেতাকর্মীদের বেধড়ক পিটুনি

২০
X