কালবেলা প্রতিবেদক
প্রকাশ : ০৮ ডিসেম্বর ২০২৩, ১২:৪৫ এএম
অনলাইন সংস্করণ

জামায়াতকে ইস্যু করে আন্দোলন ক্ষতিগ্রস্ত করবেন না : ভিপি নুর

সংক্ষিপ্ত সমাবেশ বক্তব্য রাখছেন নুরুল হক নুর। ছবি : সংগৃহীত

তফশিল বাতিল, সরদকারের পদত্যাগ ও নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতে বিরোধী দলসমূহের ডাকা দশম দফা অবরোধের সমর্থনে বিক্ষোভ মিছিল ও সড়ক অবরোধ করে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করেছে নুরুল হক নুরের নেতৃত্বাধীন গণঅধিকার পরিষদ।

বৃহস্পতিবার (০৭ ডিসেম্বর) দুপুর ১২টায় পুরানা পল্টন আল রাজী কমপ্লেক্সের সামনে থেকে মিছিল শুরু করে পল্টন মোড় ঘুরে বিজয়নগর পানির ট্যাংকির মোড়ে এসে সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়।

সংক্ষিপ্ত সমাবেশে গণঅধিকার পরিষদের সভাপতি ও ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর বলেন, সরকার এখন সংক্রামকে পরিণত হয়েছে। সকলে ঐক্যবদ্ধ হয়ে এই সংক্রামক প্রতিরোধ করতে হবে। কে বাম , কে ডান, কে জামায়াত-হেফাজত-চরমোনাই তা এখন দেখার বিষয় না। আমাদের সবার লক্ষ্য এক- এই সরকারের পতন ঘটিয়ে দেশে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করা। নিজেরা বিভিন্ন ভাগে বিভক্ত হয়ে সরকারকে আর বিভাজনের ট্রাম্প কার্ড খেলতে দেওয়া যাবে না।

তিনি বলেন, আন্দোলনকারী সকল দলের প্রতি অনুরোধ- জামায়াতকে ইস্যু করে আপনারা আন্দোলনকে ক্ষতিগ্রস্ত করবেন না। জামায়াত তাদের সক্ষমতা নিয়ে মাঠে থাকলে আন্দোলনের জন্য সেটা পজিটিভ। আমরা বিভাজিত থাকলে সরকারের লাভ। এ দেশের নির্বাচন, ভোট কীভাবে হবে- সেটা এ দেশের জনগণ ঠিক করবে। বিদেশিদের কথায় এ দেশে কোনোকিছু হবে না।

নুর বলেন, যারা পাতানো নির্বাচনে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন তাদের প্রতি আহ্বান- আপনারা মনোনয়ন প্রত্যাহার করে আন্দোলনে যোগ দিন। জনগণ আপনাদের ক্ষমা করবে। বেইমানদের কী হয়- শাহজাহান ওমরকে দেখেন।

গণঅধিকার পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মো. রাশেদ খান বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার আবারও একটি একতরফা নির্বাচনের দিকে যাচ্ছে। আমরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বারবার অনুরোধ করে আসছি, আপনি দেশকে সংকটের দিকে নিয়ে যাবেন না। ইতোমধ্যে প্রধানমন্ত্রী নিজেই বলেছেন, অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা আসতে পারে। তার মানে পরিকল্পিতভাবে দেশকে শ্রীলঙ্কার মতো দেউলিয়া করার চক্রান্ত করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, জনগণের প্রতি আমাদের আহ্বান থাকবে- আগামী ৭ জানুয়ারি কেউ ভোটকেন্দ্রে যাবেন না। এই সরকারের বিরুদ্ধে এখন থেকে প্রতিটা পাড়া-মহল্লায় গণপ্রতিরোধ গড়ে তুলুন।

সংক্ষিপ্ত সমাবেশ সঞ্চালনা করেন গণঅধিকার পরিষদের উচ্চতর পরিষদের সদস্য আবু হানিফ।

মিছিলে আরও উপস্থিত ছিলেন গণঅধিকার পরিষদের উচ্চতর পরিষদের সদস্য শাকিল উজ্জামান, শহিদুল ইসলাম ফাহিম,ফাতিমা তাসনিম, সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাসান আল মামুন, সহধর্মবিষয়ক সম্পাদক মোবারক হোসেন যুব পরিষদের সভাপতি মনজুর মোর্শেদ মামুন, সহ সভাপতি ফখরুল ইসলাম,যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রবিউল ইসলাম, ছাত্র অধিকার পরিষদের সহসভাপতি সাব্বির হোসেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হাসান, নেওয়াজ খান বাপ্পি, শ্রমিক অধিকার পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সোহেল রানা সম্পদ, গণঅধিকার পরিষদ মহানগর দক্ষিণের সভাপতি নাজিম উদ্দিন,উত্তরের সভাপতি মিজানুর রহমান,সাধারণ সম্পাদক আব্দুুর রহিমসহ নেতাকর্মীরা।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

বুয়েটে স্নাতক শ্রেণিতে ভর্তির প্রাক-নির্বাচনী পরীক্ষা অনুষ্ঠিত

অভিনব পন্থায় ইয়াবা পাচারকালে গ্রেপ্তার

মহাসমাবেশের ডাক দিল বেকার যুবকরা

তৃতীয় বছরে যুদ্ধ, চাপে ইউক্রেনের প্রতিরক্ষা

এশিয়া কাপ আর্চারিতে পদক পেল বাংলাদেশ

রেস্টুরেন্টে অগ্নিকাণ্ড, কলেজছাত্রী আহত

চলন্ত বাসে ইবি শিক্ষার্থীকে হত্যাচেষ্টার অভিযোগ

বশির-হার্টলির ঘূর্ণিতে কাবু ভারত

জাতীয় পার্টি ধীরে ধীরে দুর্বল হয়ে পড়েছে : জি এম কাদের

সরকারের ভুলনীতি-দুর্নীতিতে বাড়ছে গ্যাস-বিদ্যুতের দাম : এবি পার্টি

১০

দীপংকরের সিনেমায় প্রফুল্লনলিনীর অজানা গল্প

১১

‘ভুল তথ্য প্রতিরোধে যৌথভাবে কাজ করবে বাংলাদেশ-তুরস্ক’

১২

মজুতদার ও সিন্ডিকেটদের বিএনপি পৃষ্ঠপোষকতা করছে : ওবায়দুল কাদের

১৩

উল্টে গেল যাত্রীবোঝাই বাস

১৪

আবারও রুশ গোয়েন্দা বিমান ভূপাতিতের দাবি ইউক্রেনের

১৫

জলাবদ্ধতায় তলিয়ে গেছে দুইশ একর বোরো জমি

১৬

অবশেষে কথা রাখলেন শচীন

১৭

রমজানে সেহরি ও ইফতারের বিষয়ে নির্দেশনা দিল সৌদি

১৮

তিন সদস্যের কমিটি গঠন / উত্তরাঞ্চলের সঙ্গে ৮ ঘণ্টা পর ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক

১৯

সম্প্রতি বাংলাদেশের গোলটেবিল আলোচনা / ‘ভাষাকে শক্তিশালী করতে অর্থনীতিকে সমৃদ্ধ করতে হবে’

২০
X