কালবেলা ডেস্ক
প্রকাশ : ০৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ০১:৫১ পিএম
অনলাইন সংস্করণ

নতুন ইন্টারনেট প্যাকেজের সিদ্ধান্ত স্মার্ট বাংলাদেশের প্রতিবন্ধক

ছবি : সংগৃহীত
ছবি : সংগৃহীত

বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) মোবাইল ইন্টারনেটের প্যাকেজের ক্ষেত্রে নতুন যে সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেছে, তা স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণের পথে প্রতিবন্ধকতা তৈরি করবে বলে মনে করেছে বাংলাদেশ মুঠোফোন গ্রাহক অ্যাসোসিয়েশন নামক একটি সংগঠন।

বুধবার (৬ সেপ্টেম্বর) সংবাদ মাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে সংগঠনের সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ বলেন, প্রান্তিক পর্যায়ের সাধারণ মানুষ, শ্রমজীবী, বেকার, শিক্ষার্থী এমনকি নিম্ন আয়ের মানুষজন মোবাইল ইন্টারনেটের বড় গ্রাহক। এসব গ্রাহকদের চাহিদাও ভিন্ন ভিন্ন হয়ে থাকে। বিশেষ করে ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র প্যাকেজ যা স্বল্প মূল্যে গ্রাহকরা কিনতে পারে, এই শ্রেণির গ্রাহকের সংখ্যা বাংলাদেশের প্রায় ৬০ থেকে ৭০ ভাগ।

তিনি আরও বলেন, বিটিআরসি যদি এমন সিদ্ধান্ত নিত যে তিন দিনের জন্য বর্তমান যে প্যাকেজ বা ক্ষুদ্র প্যাকেজের যে মূল্য ঠিক সমপরিমাণ মূল্য দিয়েই সাত দিন বা ১৫ দিনের প্যাকেজ গ্রাহক কিনতে পারবে সেক্ষেত্রে বিটিআরসি কে আমরা সাধুবাদ জানাতাম।

বর্তমান সময়ে সাত দিনের সর্বনিম্ন একটি প্যাকেজের মূল্য ১৪৯ টাকা থেকে ৩০ দিনের প্যাকেজ এর সর্বনিম্ন মূল্য ৭৯৯ টাকা। আর আনলিমিটেড প্যাকেজ সাধারণত করপোরেটরা ব্যবহার করে যার মূল্য ১১০০ টাকার ওপরে।

তিনি বলেন, স্বল্প আয়ের এমনকি শিক্ষার্থী বেকার তরুণ-তরুণীদের শ্রমজীবীদের পক্ষে ২০০ বা ৩০০ টাকা দিয়ে মোবাইল ইন্টারনেট ব্যবহার করা অসম্ভব। আজকে প্রধানমন্ত্রী এবং তথ্যপ্রযুক্তি উপদেষ্টা যে ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণ করেছেন তা কেবলমাত্র এসব গ্রাহকদের মাধ্যমেই সম্ভব হয়েছে। আগামীতে সরকার যে স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণ করতে যাচ্ছে, সেখানে দেশের প্রত্যেকটি মানুষকে সরকার ইন্টারনেটের ব্যবহারের মাধ্যমে আনতে চায়।

মহিউদ্দিন আহমেদ বলেন, বিটিআরসি উল্টো পথে হাঁটছে। এই সিদ্ধান্তের ফলে ইন্টারনেট ব্যবহারের সংখ্যা মাত্রা অতিরিক্ত পরিমাণ কমে যেতে পারে। গ্রাহকের চাহিদা এবং পছন্দের ওপর কমিশন হস্তক্ষেপ করতে পারে না। এই সিদ্ধান্তের ফলে হয়তো মোবাইল অপারেটর রা লাভবান হবে। কারণ ইন্টারনেটের খরচ বহুলাংশে বৃদ্ধি পাবে এতে কোনো সন্দেহ নেই। বিটিআরসি যদি প্যাকেজের সংখ্যা কমাতে চায় তাহলে ৪০টি কেন? ব্রডব্যান্ডের ন্যায় এক দেশ এক রেট নয় কেন? চারটি অপারেটরের প্যাকেজের মূল্য এক নয় কেন? অব্যবহৃত ডাটা গ্রাহক ফেরত পায় না কেন? প্রকৃতপক্ষে কমিশন এ সব গ্রাহকদের বিশেষ করে সাধারণ শ্রেণি গ্রাহকদের কথা আমলে নেয়নি। গ্রাহকের চাহিদা এবং পছন্দের কথা এবং সামর্থ্য বিবেচনা করে কমিশন এই সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করবে বলে আমরা মনে করি।

সেই সঙ্গে এই সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের জন্য কমিশনের কাছে আমরা বিনীত অনুরোধ করছি। একই সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী এবং তথ্যপ্রযুক্তি উপদেষ্টা মহোদয়ের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলতে চাই, আপনি যে ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণ করেছেন এবং যার ওপর ভিত্তি করে স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণ করতে চাচ্ছেন সেই পথে বিটিআরসির মোবাইল ইন্টারনেট ডাটা প্যাকেজের সিদ্ধান্ত বাধার সৃষ্টি করবে এতে কোনো সন্দেহ নেই। তাই এ ব্যাপারে আপনাদের সুদৃষ্টি কামনা করছি।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

ডেমরায় যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

ফের আচরণবিধি লঙ্ঘন করেছেন চেয়ারম্যান প্রার্থী, নীরব প্রশাসন

ভোটের তিন বছর পর কাউন্সিলর হচ্ছেন আলী আহাম্মদ

পাবনায় ঐতিহ্যবাহী ঘোড় দৌড় প্রতিযোগিতা

বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ইউপি সদস্যের মৃত্যু

শুধু আ.লীগের লোকজন ভিজিএফ ও টিসিবি কার্ড পাবে

ছেড়ে গেছেন সন্তানরা, সংসার টানছেন ১০৭ বছরের বৃদ্ধা

৫ হাজার টাকায় স্ত্রীকে ‘মাদক কারবারির’ হাতে তুলে ‍দিলেন স্বামী

ব্যারিস্টার সুমনের খেলা দেখতে হাজারো মানুষের ভিড়

সাতক্ষীরায় এমপির গাড়িতে হামলা

১০

জব্বারের বলী খেলা ২৫ এপ্রিল

১১

মতিঝিল আইডিয়ালের গভর্নিং বডির নির্বাচন অনুষ্ঠিত

১২

খরুচে বোলিং মোস্তাফিজের, চেন্নাইয়ের হার

১৩

এফডিসিতে ৫৭০ ভোটারের সংবাদ সংগ্রহে ৩০০ সাংবাদিক

১৪

যশোরে অধিকাংশ টিউবওয়েলে মিলছে না পানি

১৫

বিদেশি শ্রমিকদের সুখবর দিল কুয়েত

১৬

এফডিসিতে ফিরেছেন নির্বাচন কমিশনার, খোঁজ নেই নিপুনের

১৭

চাঁদপুরে পূবালী ব্যাংক কর্মকর্তা নিখোঁজের ঘটনায় ৮ কর্মকর্তা বদলি

১৮

বিআরটিএর অভিযানে ৪০৫ মামলা, ১০ লাখ টাকা জরিমানা 

১৯

প্রেমিককে কুপিয়ে জখম, প্রেমিকা আটক

২০
*/ ?>
X