কালবেলা প্রতিবেদক
প্রকাশ : ২১ এপ্রিল ২০২৪, ০২:৩১ পিএম
আপডেট : ২১ এপ্রিল ২০২৪, ০৩:০৩ পিএম
অনলাইন সংস্করণ

ইসরায়েলি অস্ত্রকে বাচ্চাদের খেলনার সঙ্গে তুলনা

ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির আব্দুল্লাহিয়ান। ছবি : সংগৃহীত
ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির আব্দুল্লাহিয়ান। ছবি : সংগৃহীত

চলমান গাজা যুদ্ধের মধ্যেই ইসরায়েলি অস্ত্র নিয়ে বিস্ফোরক এক মন্তব্য করেছেন ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির আব্দুল্লাহিয়ান। শুধু তাই নয় গেল বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে ইরানের আকাশে যেসব ড্রোন অনুপ্রবেশ করেছে তার জন্য ইসরায়েলকে দায়ী করতেও অস্বীকৃতি জানিয়েছেন তিনি। যেখানে তেল আবিবের বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ জবাব দেয়ার হুঁশিয়ারি ছিল তেহরানের সেখানে এমন রহস্যজনক আচরণের বিভিন্ন ব্যাখ্যা দাঁড় করাচ্ছেন বিশ্লেষকরা। এ হামলা ও ইসরায়েলি অস্ত্রের সক্ষমতা নিয়ে ঠিক কী ভাবছেন ইরানি কর্মকর্তারা?

মার্কিন সংবাদমাধ্যম এনবিসি নিউজকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে শুক্রবার ভোরের হামলার পেছনে ইসরায়েলের জড়িত থাকার কথা অস্বীকার করেন ইরানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি জানান, এ হামলায় যেসব অস্ত্র ব্যবহার করা হয়েছে তা অনেকটা বাচ্চাদের খেলনার মতো।

ইরানি পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ভাষ্য, গত রাতে যা ঘটেছে তা কোনো হামলা নয়। এগুলো অনেকটা ইরানি বাচ্চাদের খেলনার মতো, কোনো ড্রোন নয়। এ সময় ইসরায়েল বড় ধরনের হামলা না করলে ইরানও কোনো প্রতিক্রিয়া দেখাবে না বলে জানান আমির আব্দুল্লাহিয়ান। এ সময় হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে ইরানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, ইসরায়েল যদি ইরানে হামলা করে, তাহলে তার জবাব হবে দ্রুত এবং কঠোর।

গেল ১ এপ্রিল দামেস্কের ইরানি দূতাবাসে বিমান হামলা চালিয়ে ইরানের বিপ্লবী রক্ষীবাহিনীর তিন শীর্ষ জেনারেলসহ অন্তত ৮ সামরিক কর্মকর্তাতে হত্যা করে ইসরায়েল। জবাবে ১৩ এপ্রিল দিবাগত রাতে ইসরায়েলি ভূখণ্ড লক্ষ্য করে তিন শতাধিক ড্রোন ও ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করে ইরান। পাল্টা জবাবে ইরানে ড্রোন হামলা চালায় তেল আবিব। যদিও দুটি হামলার কোনোটিরই দায় স্বীকার করেনি ইসরায়েলি বাহিনী।

আমির আব্দুল্লাহিয়ান জানান, ইসরায়েলি ভূখন্ডে হামলাটি ছিল সতর্কবার্তাস্বরূপ। তেহরান চাইলে তেল আবিব ও হাইফাতেও আক্রমণ করতে পারে, এমনকি ইসরায়েলি অর্থনৈতিক বন্দরে হামলার সক্ষমতাও রয়েছে ইরানি বাহিনীর। তবে বেসামরিক নাগরিকদের বিন্দুমাত্র ক্ষয়ক্ষতি না করেই শুধু সামরিক সতর্কবার্তা হিসেবে এ হামলা চালিয়েছে তেহরান।

যদিও ইরানের হামলার পর আমেরিকা ও পশ্চিমা মিত্রদের পক্ষ থেকে ইসরায়েলকে এমন কোনো আচরণ করতে নিষেধ করা হয়েছিল যাতে দুই প্রতিদ্বন্দ্বীর মধ্যে পূর্ণমাত্রার যুদ্ধ শুরু হয়। সেই পরামর্শ মেনে ইরানে ড্রোন পাঠিয়ে সর্বনিম্ন প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছে তেল আবিব। ইরানও এ অনুপ্রবেশকে আক্রমণ হিসেবে বিবেচনা না করে আপাতত সংঘাত এড়ানোর দিকেই এগিয়ে যাচ্ছে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

মন্তব্য করুন

ঘটনাপ্রবাহ: ইরান ইসরায়েল হামলা
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

নিয়োগে অনিয়ম: জামিন পেলেন রুয়েটের সাবেক ভিসি-রেজিস্ট্রার

কাল ঢাকায় আসছেন আইএমও মহাসচিব

খুলনায় বেড়িবাঁধ ভেঙে তলিয়ে গেছে ২৫ গ্রাম

ভুয়া বিজ্ঞপ্তি প্রচার করায় জিডি করল জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়

হত্যা মামলায় বাবা-ছেলেসহ ১০ জনের যাবজ্জীবন

সিকৃবি শিক্ষকদের কর্মবিরতি ও অবস্থান কর্মসূচি

বিয়ের ১২ দিন পর স্ত্রী হয়ে গেলেন পুরুষ

ঘূর্ণিঝড় রিমাল / শিক্ষার্থীদের দাবির মুখে খুবিতে পরীক্ষা স্থগিত

একনেকে ১৪ হাজার ৩৩৭ কোটি টাকার প্রকল্প অনুমোদন

রাঙামাটিতে ধর্ষণের দায়ে যুবকের যাবজ্জীবন

১০

ঘূর্ণিঝড় রিমাল / ভোলায় নিহত ৩

১১

আকর্ষণীয় বেতনে অক্সফামে চাকরির সুযোগ

১২

অপরাধী হলে শাস্তি পেতেই হবে, সাবেক সেনাপ্রধান-আইজিপির বিষয়ে কাদের

১৩

সাত ঘণ্টা বন্ধের পর সৈয়দপুরে বিমান চলাচল স্বাভাবিক

১৪

ঝিনাইদহে ধর্ষণ মামলায় ইউপি চেয়ারম্যানের যাবজ্জীবন

১৫

ঝড়ের মধ্যে চাঁদপুরে বিদ্যুতের ২৩ মিটার চুরি

১৬

ঘূর্ণিঝড়ের ক্ষয়ক্ষতি পরিদর্শনে পটুয়াখালী যাবেন প্রধানমন্ত্রী

১৭

ঘূর্ণিঝড় রিমাল / বরগুনায় পানিবন্দি ১০ হাজার পরিবার

১৮

আরও তিন উপজেলার ভোট স্থগিত

১৯

পরীক্ষা দিতে গিয়ে নিখোঁজ, খালে মিলল মরদেহ

২০
X